নির্বাচনকালীন সরকারের প্রস্তাব দেবে বিএনপি | Nobobarta

নির্বাচনকালীন সরকারের প্রস্তাব দেবে বিএনপি

নিবার্চন কমিশনের সঙ্গে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির আনুষ্ঠানিক সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ অক্টোবর। সংলাপে সেনাবাহিনী মোতায়েনসহ আরপিও সংশোধন, সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তাব দেবে দলটি। এর পাশাপাশি সব দলের অংশগ্রহণমুলক নির্বাচনের স্বার্থে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরিতে ইসিকে কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানানো হবে সংলাপে।

এছাড়া নির্বাচনকালীন সরকার গঠন, নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করতে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক স্তরে নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের দায়িত্ব দেয়া, ইভিএমের বিরোধিতা, ভোটার তালিকা হালনাগাদের পাশাপাশি প্রবাসীদের অন্তর্ভুক্ত, ভোট কেন্দ্রে ছবিসহ ভোটার তালিকা সরবরাহ, রাজনৈতিক আনুগত্য রয়েছে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের চিহ্নিত করে নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে বিরত রাখা ও মামলা প্রত্যাহারসহ বেশ কিছু সুপারিশ করবে বিএনপি। দলটির একাধিক সিনিয়র নেতার সঙ্গে আলাপ করে এসব তথ্য জানা গেছে।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গণতান্ত্রিক যে কোনো প্রক্রিয়ার সঙ্গে আমরা আছি। ইসি বাস্তবতা উপলব্ধি করে সব দলের সঙ্গে আলোচনা করে নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা নেবে বলে আশা করি। গণতান্ত্রিক দল হিসেবে বিএনপি সেই নির্বাচনে যে কোনো সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছে। তবে ইসির ভ‚মিকার সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, তারা সরকারের এজেন্ডা নিয়ে কাজ করছে। ফলে এই সংলাপে খুব একটা ফল পাওয়া যাবে তা নিয়ে সংশয় তো রয়েছে।

একই প্রসঙ্গে দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ইসির আমন্ত্রণে যাওয়ার ব্যাপারে এখনও সিদ্ধান্ত না হলেও সংলাপে দলের পক্ষ থেকে কী কী সুপারিশ করা হবে, তা নিয়ে কাজ চলছে। বর্তমান প্রধান নির্বাচন কমিশন একটি দলের প্রতি অনুগত। এখন পর্যন্ত নিরপেক্ষতার সেই স্বাক্ষর রাখতে পারেননি। এদিকে, নির্বাচন কমিশনে সংলাপ যাওয়ার আগে আগামী সপ্তাহে এ বিষয়ে দলের নীতিনির্ধারনী পর্যায়ের নেতাদের নিয়ে বৈঠকে হতে পারে। এমন অভাস দিয়েছেন বিএনপির দফতরের দায়িত্বে থাকা একজন কেন্দ্রীয় নেতা।

Rudra Amin Books
ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.