বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:২২ পূর্বাহ্ন

English Version
কাজী জুবেরী মোস্তাক এর নির্বাচিত কবিতা

কাজী জুবেরী মোস্তাক এর নির্বাচিত কবিতা

কাজী জুবেরী মোস্তাক
কাজী জুবেরী মোস্তাক



  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

প্রত্যয়ী

পুরোনো চুক্তিটার মেয়াদ পেরিয়ে গেছে ,
তাই পাওয়া না পাওয়া জলাঞ্জলী দিয়ে
পথচলা শুরু নব উদ্যমের নতুন চুক্তিতে ৷

বেহায়ার মতো তাকিয়ে আছে সকালটা ,
এ যেনো প্রেয়সীর জন্য প্রিয়’র অপেক্ষা
আর মন ভোলানোর হরেক স্বপ্নের কথা ৷

পুরোনো চুক্তি ভেস্তে নতুন চু্ক্তি হয়েছে ,
স্বপ্ন আর সুখে’রা চাপা বাঁকির খোলসে
নব উদ্যমে সেও আজ খোলস ছাড়িয়ে ৷

নতুন দিনে নতুন সূর্যটাকে মাথায় নিয়ে ,
স্বপ্নগুলো ধরার প্রস্তুতি নতুন আঙ্গিকে
স্বপ্নগুলো সত্যি হবেই সব বাধা পেরিয়ে ৷

পুরোনো সূর্যতেই আলোকিত পূর্বাকাশ ,
তবুও সে সূর্যতে যেন নতুনত্বের আভাস
যে আলোয় আলোকিত স্বপ্নের আকাশ ৷

স্বপ্নরা আজ সফল হওয়ার নব প্রত্যয়ে ,
ঠিক কচ্ছপের মতোই খোলস ছাড়িয়ে
নব উদ্যমেই আজ দিয়েছে পা বাড়িয়ে ৷

আমিই সেই বাসিন্দা

এই নষ্ট শহরের আমিই একমাত্র নষ্ট বাসিন্দা ,
নষ্ট এই শহর জুড়ে শুধুই ভেলকি আর ধান্দা
নষ্ট এ সমাজের জন্য দায়ী আমিই সেই বান্দা ৷

দিনের কপাল বেয়ে গড়িয়ে পরে ব্যস্ততার ঘাম ,
কেউ চাকরি খোঁজে হন্যে অথচ বিধি তার বাম
কেউবা আবার সফল করে দুই আঙ্গুলের কাম ৷

আজ এ সমাজ নষ্ট হয়েছে নষ্ট হয়েছে এ শহর ,
এখানে অন্যায় করেও অন্যায়কারীই পায় পার
অথচ নিরপরাধীর কাঁধে মিথ্যে যতো দায়ভার ৷

আজ এই শহর নষ্ট , নষ্ট সমাজ , নষ্ট এ জনপদ ,
রুখে দেওয়ার শপথ নিয়েও ভেঙেছি সে শপথ
নিজেই আজকে বন্ধ করেছি নিজের চলার পথ ৷

রাতের শরীর বেয়ে হামাগুড়ি খেলে নষ্ট নারীরা ,
নষ্ট নারীই ঢেঁকে রেখেছে আমার নষ্ট চরিত্রটাও
অথচ দিনের আলোয় অপবাদ দেই নষ্টা কুলটা ৷

নষ্ট এই শহরের বুকে আমি’ই সেই নষ্ট বাসিন্দা ,
যে সব সু-পথ ই আটকেছি সফল করতে ধান্দা
নষ্ট সে শহরের জন্য আমি’ই কাঁদি মিছে কান্না ৷

এ শহর পরিত্যাক্ত

এই শহর এখন পরিত্যক্ত হয়ে গেছে ,
পচন ধরেছে ওর সারা শরীর জুড়ে
কংক্রিটের ভীড়ে স্বপ্নরা পড়ে আছে ৷

জীবনের মতো জীবন হেঁটে চলেছে ,
আঁধারের পাশ দিয়ে রাত্রির গহীনে
দম লাগানো মেশিনের মতো করে ৷

এই শহর এখন বসবাসের অযোগ্য ,
যেমন বাতাসে বেড়েছে শিশার ঘনত্ব
তেমনি মানুষের মনে বেড়েছে পুরুত্ব ৷

মিথ্যে কথার এ মেকি শহরের পথে ,
মুখোশের ভীড়েও কিছু মানুষ থাকে
নিয়ে যাবো তাদের শহর থেকে দুরে ৷

ফিরতে চাইনা আর এ শহরের ঘরে ,
নীরব কান্না যেখানে ঝরে ঝরে পরে
উঁচু উঁচু অট্টালিকার শিশার ওপারে ৷

এ শহর এখন পরিত্যক্ত হয়ে গেছে ,
আশাগুলো বন্দী শহরের চৌকাঠে
আর স্বপ্নগুলো বন্ধ ঘরের সিলিংয়ে ৷

ভালোবাসার অক্সিজেন শূন্য শহরে ,
ভালো মনের বড়’ই অভাব পড়েছে
মন সেও মন খোঁজে শরীরের ভাঁজে ৷

আমি স্বপ্ন সন্ধানী

স্বপ্নগুলো পূরণ হওয়ার আশা জাগায় বারবার
প্রলোভনে এই আমাকে ধর্ষণও করেছে বহুবার ,
বিনিময়ে স্বপ্নগুলো ভেংগেচুরে গেছে বারংবার
ষোড়শী মতো নিজেকে গুটিয়ে নেইনি আবার ৷

লোকলজ্জার ভয়ে নিজেকে কোনঠাসা করিনি
প্রতিবাদী কন্ঠের মতো আবারও জেগে উঠেছি ,
ধর্ষিতার স্বপ্নের মতো স্বপ্নরা ভেঙ্গেছে দেখেছি
তবু নিজেকে লজ্জাবতীর মতো গুটাতে দেইনি ৷

আকাশের মতোই বিশাল স্বপ্নের পৃথিবী আমার
এক স্বপ্ন ভেঙ্গেছে তো হাজার স্বপ্ন আছে আমার ,
স্বপ্নরা আগ্নেয়গিরির মতো উদগিরন হবেই তার
সব বাধা সংশয় কাটিয়ে জেগে উঠবোই আবার ৷

হতাশাগুলো যতই ধর্ষন করুক না কেন আমাকে
স্বপ্নগুলো আমাকে আবারও বাঁচতে শিখিয়েছে
আর জীবন সে আমাকে বাস্তবতার সঙ্গা দিয়েছে
আমি স্বপ্ন-সন্ধানী কোন বাধাতে বাঁধবে আমাকে ?

একটা বাক্সবন্দী প্রথা

সমাজের পরতে পরতে মানবতার অবক্ষয়
মানুষের মিছিলে আজ মানুষ পাওয়া দায় ,
ধর্মের লেবাসেও আজ অধর্মরাই জয়ী হয়
আমরা বোকারাও গাই তাদেরই জয় জয় ৷

মানুষ আজ ব্যানার-ফেস্টুনে প্রতিবাদী হয়
কিম্বা ঝড় তুলে ফেসবুক টুইটারের পাতায় ,
বাস্তবতায় অসহায়ের সহায় ক’জনইবা হয়
বাস্তবে মানুষের ভিরে মানুষই পাওয়া দায় ৷

সমাজের শরীর আজ বৈষম্যের ঘামে ভেজা
শহরের শরীরে ঝড়ছে সভ্যতার ভয়াবহতা ,
রাতের শরীরে বইছে পতিতাদের কাতরতা
তবু চিৎকার করে বলি হায় সভ্যতা সভ্যতা ৷

বুক পকেটের নিচেই চাপা পরেছে মানবতা
পাশ কাটিয়ে যাই যদি দেখি কোন নৃশংসতা
নিজের বেলায় ঠিকইতো খুঁজি সেই মানবতা
এ কেমন মানুষ আমরা কেমনতর মানবতা ?

একবিংশ শতাব্দীতেও চালু আদিম হিংস্রতা
নাম পাল্টে সে প্রথা আজকে হয়েছে সভ্যতা
মানবতা আজ শুধুই একটা বাক্সবন্দী প্রথা
সভ্যতায় বিলিন আজ মানুষ আর মানবতা ৷

লাইক দিন

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com