আজ সোমবার, ১৭ Jun ২০১৯, ০৯:০৪ পূর্বাহ্ন

রাজারহাটে প্রতি লিটার দুধে ৭শ গ্রাম পানি

রাজারহাটে প্রতি লিটার দুধে ৭শ গ্রাম পানি

  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    4
    Shares

এ.এস.লিমন, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এক লিটার দুধে হাফ লিটার পানি পাওয়ায় এসব দুধ নর্দমায় ফেলে দেয়া হয়েছে।

সোমবার বিকালে রাজারহাট বাজারে দুধ পরীক্ষার অভিযান করা হয়। অভিযানে উপজেলা স্যানেটারি পরিদর্শক আব্দুল লতিফ গোয়ালাদের বালতির দুধ পরীক্ষা করলে পাওয়া যায় ভেজাল দুধ। প্রতি লিটার দুধে প্রায় ৭০০ গ্রাম করে পানি এবং দুধে মেশানো হয়েছে চক পাউডার আর ময়দা। পুরো দুধেই ভেজাল।

এ সময় এক গোয়ালা তার বালতির দুধ রাস্তায় রেখেই দৌড় দিয়ে পালিয়ে যায় এবং পাশে থাকা আরও ৩ জন গোয়ালা লুকিয়ে পড়ে। এরপর স্যানেটারি পরিদর্শক বালতি ও বোতললে থাকা ভেজাল দুধ ড্রেনে ফেলে দেয়। গোয়ালাদের ধরতে না পারায় তাদের জরিমানা করা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, রমজানের আগে প্রতি লিটার দুধের দাম ছিল ৪৫/৫০ টাকা। আর রমজান মাসে বিক্রি হচ্ছে ৬০/৭০ টাকা। এ কারণে গোয়ালরা অবাধে গরুর দুধে ভেজাল করে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করছে। তবে বাজারে কিছু কিছু গোয়ালের কাছে ভেজালহীন দুধ পাওয়া গেছে বলে তিনি জানান।

উপজেলার পার্শ্ববর্তী গ্রামের আনিছুর রহমান, মোফামুদ্দিন,আবু সাইদ, বাজারে প্রতিদিন দুধ নিয়ে আসে। এলাকার মানুষ খাঁটি দুধ মনে করে এসব দুধ কিনে খাচ্ছে। কৃষকদের দাবি, আমরা বাড়িতে গাভি পালন করে খাঁটি দুধ গোয়ালাদের কাছে বিক্রি করছি। তারা দুধে ভেজাল মিশ্রণ করে বিক্রি করে। এ বিষয়ে স্যানেটারি পরিদর্শক আব্দুল লতিফ বলেন, পুরো রমযান মাস এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। আর যারা ভেজাল দুধ বিক্রি করবে তাদের জেল, জরিমান করা হবে

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

কে এই যুবক? টিস্যু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছে



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com