বুধবার, ১৫ অগাস্ট ২০১৮, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন

English Version
আগৈলঝাড়ায় প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে নৌকায় বসে বাল্যবিয়ে
এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য

আগৈলঝাড়ায় প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে নৌকায় বসে বাল্যবিয়ে

Agailhara Map-Nobobarta



বরিশালের আগৈলঝাড়ায় বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে প্রশাসনের নজরদারির কারণে শেষপর্যন্ত নৌকায় বসে বর-কণের বিয়ে পরিয়েছে পুরোহিত। এনিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় একাধিকসূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বড় বাশাইল গ্রামের যতীন্দ্র নাথ দাসের মেয়ে বাশাইল বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী মুক্তা রানী দাস (বৈশাখী)-র সাথে একই উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামের পূর্ণচন্দ্র গাইনের ছেলে প্রশান্ত গাইনের সাথে পারিবারিকভাবে অনেক দিন থেকেই বিয়ের কথা চলে আসছিল।

অতি সম্প্রতি কণের বাড়িতে বাল্যবিয়ের আয়োজন শুনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল স্থানীয় ইউপি সদস্যকে ডেকে বাল্যবিয়ে বন্ধ করান। গতকাল শুক্রবার বরের বাড়িতে বসে পুরোহিত দিয়ে সামাজিকভাবে বিয়ের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল ওই এলাকার ইউপি সদস্য সুভাষ ভক্তকে ফোন করে বাল্যবিয়ে বন্ধ করার নির্দেশ দেন। ইউপি সদস্য সুভাষ ভক্ত বরের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের আয়োজন দেখতে পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করেন। ঘটনা জানাজানি হলে দুই পরিবারের ঘনিষ্ট লোকজন বর এবং কনেকে নৌকায় উঠিয়ে বিলের মধ্যে নিয়ে শুক্রবার গোধূলী লগ্নে পুরোহিত দিয়ে বিয়ে পড়ানো হয়।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল বলেন, বাল্যবিয়ের খবরে পেয়ে তিনি ওই এলাকায় ইউপি সদস্য পাঠিয়েছেন। বাল্যবিয়ের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com