আজ রবিবার, ১৬ Jun ২০১৯, ০৪:২৯ অপরাহ্ন

কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী লঞ্চ চলাচল বন্ধ, দুর্ভোগে হাজারো মানুষ

কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী লঞ্চ চলাচল বন্ধ, দুর্ভোগে হাজারো মানুষ

  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    2
    Shares

এইচ আর মুক্তা, কলাপাড়া : পটুয়াখালীর কলাপাড়া -রাঙ্গাবালী নৌ-রুটের লঞ্চ চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।অভ্যন্তরীন নৌ-পরিবহন ও মালিকদের দন্ধের কারনে ।যাএী ও পন্য পরিবহনকারী ব্যবসায়ীদের ভোগান্তির যেন শেষ নেই।বি আই ডব্লিটির কর্তৃপক্ষ ও লঞ্চ মালিকরা জানাতে পারেনি কবে নাগাত লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হবে ।

বিআইডব্লিউটিএ ও লঞ্চ মালিকদের সূত্রে জানা যায়, রাঙ্গাবালী উপজেলার চারদিকে নদী বেষ্টিত, পাঁচটি দ্বীপের সাথে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে লঞ্চ চলাচল। দীর্ঘ ৪ বছর ধরে কলাপাড়া-নিজকাটা রুটে আল-সাইফান নামের একটি লঞ্চ চলাচল করে। পরবর্তীতে যাত্রী ও পন্য পরিবহন চাহিদা বেশি থাকার কারনে আরও দুইটি লঞ্চ এম এল মিলন এক্সপ্রেস ও এমএল রাহাত এক্সপ্রেস ওই রুটে চলাচল শুরু করে।

প্রতিদিন কলাপাড়া থেকে আল- সাইফান সকাল সাড়ে সাতটায়, এম.এল মিলন এক্সপ্রেস সকাল সাড়ে আটটায় ও এম.এল রাহাত এক্সপ্রেস বেলা একটায় রাঙ্গাবালীর নিজকাটা উদ্দেশ্যে ছেড়ে যেত। কিন্তু গত শুক্রবার(১২ এপ্রিল) সকালে বিআইডব্লিউটির নির্ধারিত সময়ও নির্দিষ্ট নিময়-কানুন নিয়ে দন্ধ হয় মালিকপক্ষের মধ্যে তাই অনির্দিষ্ট কালের জন্য এই রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এই অচলাবস্থা নিরসন না হলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে স্পীড বোড অথবা মাছ ধরা ট্রলারে যাতায়াত করতে হচ্ছে কয়েক হাজার মানুষকে।

লঞ্চের জন্য ঘাটে অপেক্ষামান যাত্রী আয়শা বেগম বলেন,বরিশাল থেকে স্ব-পরিবারে এসে দেখি লঞ্চ চলাচল বন্ধ। এখন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উত্তাল রামনাবাদ নদী পারি দিয়ে ট্রলার যোগে রাঙ্গাবালী যেতে হচ্ছে। কলাপাড়ার ব্যবসায়ী আবদুর রহিম বলেন, চরম ঝুঁকি নিয়ে ছোট নৌযানে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে পন্য পরিবহন করতে বাধ্য হচ্ছি। আল-সাইফানের মালিক মাহাফুজুল হক তানভীর মুন্সী বলেন, এ রুট চালু করতে গিয়ে গত ৪ বছর ধরে কয়েক লক্ষ টাকা লোকসান গুনেছি। রুটটি জমজমাট হয়ে ওঠার পরে অন্য দুটির মালিক সাবু গাজী ও এমাদুল মিয়া আমার লঞ্চটির রুট পারমিট বাতিলের জন্য উঠে পরে লেগেছে।

এম.এল মিলন এক্সপ্রেসের মালিক সাবু গাজী বলেন,আল- সাইফান নামের লঞ্চটি গত ৪ বছর ধরে কোন রুট পারমিট ছাড়াই এ রুটে চলাচল করছে। পটুয়াখালী বিআউডব্লিউটিএ’র সহকারী পরিচালক(বন্দর ও পরিবহন) খাজা সাদিকুর রহমান বলেন, বর্তমানে অশান্ত মৌসুম থাকায় ছোট আকারের লঞ্চ বন্ধ রয়েছে। বিদ্যমান এ সমস্যার সমাধান কবে নাগাদ হবে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

কে এই যুবক? টিস্যু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছে



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com