আজ মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন

সাংবাদিক কাজল কায়েসের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারির অভিযোগ (অডিওসহ)

সাংবাদিক কাজল কায়েসের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারির অভিযোগ (অডিওসহ)

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

একটি জাতীয় পত্রিকার সাংবাদিক কাজল কায়েস। তিনি লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করছেন একটি দৈনিকের এবং একটি ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার। রায়পুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের দেনায়েতপুর গ্রামের মিস্ত্রি বাড়ী (নানার বাড়ী)তে থাকেন তিনি। তাঁর পিতা মৃত লাল মিয়া। কিন্তু ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারী কেলেংকারির অভিযোগ তুলেছেন এক সরকারি কর্মচারি। এ নিয়ে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ।

জানা গেছে, ২০০৩ সালে রায়পুর মার্চেন্ট একাডেমি থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় যার রোল নং- ৫৬৪২০০। ওই বছরে পরীক্ষায় গনিত ও ইংরেজি বিষয়ে ফেল করে আর কলেজে ভর্তি হতে পারেন নি। কিন্তু ডিগ্রি পাশ দাবী করে দৈনিক কালেরকন্ঠ ও চ্যানেল নাইনে প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন তিনি।

এ দিকে শনিবার ওই নির্যাতিত নারী লক্ষ্মীপুর ও রায়পুরে কর্মরত কয়েকজন সাংবাদিক’কে জানান, গত ৪ বছর আগে কাজল কায়েসের সাথে তার পরিচয় প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তাকে বিয়ে করছে বলে একটি কাবিনও সৃষ্টি করে সে। এ সম্পর্কের জের ধরে কাজল কায়েস তাকে নিয়ে কক্সবাজার’সহ বিভিন্ন স্থানে ঘূরতে যায়। মাঝে মধ্যে একসাথে রাত্রি যাপন করে। এরমধ্যে তিনি দুই মাসের অন্তঃস্বতা হয়ে পড়েন তিনি। গত ডিসেম্বরে তিনি জানতে পারেন ওই বিয়ের কাবিনটি ছিল ভূয়া। সে বিয়ের নামে প্রতারণা করেছে। আমি এর বিচার চাই।

তিনি আরও বলেন, ঘটনা জানার পর থেকে তার সাথে আমার সম্পর্কের অবনতি ঘটতে থাকে। গত ডিসেম্বর মাসে তার সাথে আমাদের দুইবার বৈঠক হয়েছে। তাঁর সনদ ভূয়া এজন্য তাঁর সঙ্গে আমি বিয়ে বসিনি। বিষয়টা কালেরকন্ঠের আরিফ’কে জানিয়েছি। গত বৃহস্পতিবারও কাজল কায়েস অতিতের ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়েছে। একটা মেয়ের ইজ্জ্বত নষ্ট করেছে, বিভিন্ন সময়ে বিকাশের মাধ্যমে দেড় লক্ষ টাকা নিয়েছে আমার কাছ থেকে। এ বিষয়ে আমরা অনেক সাংবাদিকের সাথে কথা বলেছি সবাই তাকে ভয় পায়। সে বর্তমানে আমাদেরকে হুমকি ধমকি দিচ্ছে। এ বিষয়ে কাউকে জানালে সে আমাকে চাকুরিচ্যুত করার হুমকি দেয়। কাজল কায়েস আমার মত আরো অনেক মেয়ের ইজ্জ্বত মেরেছে। আমাদের কাছে সব কিছুর ডকুমেন্ট আছে।
এদিকে সাংবাদিক কাজল কায়েসের বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারির ঘটনায় সাংবাদিকদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের কার্যকরী কমিটির কয়েকজন সদস্য এ ঘটনার ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এছাড়া প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।
অভিযোগের বিষয়ে কাজল কায়েসের সাথে কথা বললে তিনি জানান, তার বিরুদ্ধে ওই নারী যে অভিযোগ করেছে তা সত্য নয়। তিনি ওই অভিযোগ কারীকে চেনেন না।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

Nobobarta on Twitter

© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com