আজ সোমবার, ১৭ Jun ২০১৯, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন

মাশরাফির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন জেলা প্রশাসক

মাশরাফির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন জেলা প্রশাসক

  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    5
    Shares

নড়াইলের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আনজুমান আরা বলেন, ‘মাননীয় সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা আমাদের অভিবাবক। তিনি আমাকে ফোন করে বলেছেন- কৃষক যাতে হয়রানির শিকার না হয় সেই লক্ষে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করতে। আমরা সংসদ সদস্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এবং উৎসাহিত হয়েছি যে তিনি আমাদের পাশে আছেন। এজন্য ধান সংগ্রহ করতে সহজ হবে। আমরা জেলায় নড়াইল সদর, লোহাগড়া, নলদী, কালিয়া ও বড়দিয়া এই ৫ স্পটে ধান ক্রয় করবো।’

২১ মে (মঙ্গলবার) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ধান সংগ্রহ কার্যক্রম নিয়ে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানালেন জেলা প্রশাসক।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, ‘কৃষকদের উৎসাহিত করার জন্য আমি নিজে সদরের মাইজপাড়া বাজারে কৃষকদের কাছ থেকে ন্যায্য মূল্যে ধান সংগ্রহ করতে যাব। এ বছর নড়াইল জেলা থেকে এক হাজার ৪৫৯ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহ করা হবে।’ মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(সার্বিক) মো. ইয়ারুল ইসলাম ও জেলা খাদ্য কর্মকর্তা মনুতোষ কুমার মজুমদার।

উল্লেখ্য, ত্রিদেশীয় সিরিজ জিতে তিনদিনের ছুটিতে গত রোববার দেশে ফিরেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সফল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দেশে ফিরে তিনি জানতে পারেন কৃষকরা ধানের ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাদের উৎপাদন খরচও উঠছে না। যেখানে এক মণ ধান সরকার ক্রয় করছেন এক হাজার ৪০ টাকা সেখানে নড়াইলের হাট-বাজারে কৃষকদের ধান বিক্রি করতে হচ্ছে সাড়ে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায়।

বিষয়টি জানার পর রবিবার রাত ১০টার দিকে সংসদ সদস্য মাশরাফি জেলা প্রশাসক আনজুমান আরাকে ফোন করে সরাসরি যাতে কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয় করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। মাশরাফি বলেন, ‘কোনো সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ধান ক্রয় করা হচ্ছে- এমন প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

কে এই যুবক? টিস্যু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছে



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com