সুনামগঞ্জের হাওরে নৌকাডুবি, ৮ মরদেহ উদ্ধার | Nobobarta

আজ বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জের হাওরে নৌকাডুবি, ৮ মরদেহ উদ্ধার

সুনামগঞ্জের হাওরে নৌকাডুবি, ৮ মরদেহ উদ্ধার

Rudra Amin Books

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রফি নগর ইউনিয়নের কালিয়া কুঠা হাওরে নৌকাডুবির ঘটনায় আরও চার জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো আটজন। বুধবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল আরও চারজনের মরদেহ উদ্ধার করে।

নতুন করে উদ্ধার করা চার জনের মধ্যে দুই জন শিশু ও দুই জন পুরুষ। তারা হলেন, দিরাই উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের রইতনু নেছা (৩৫), একই গ্রামের শান্তা বেগম (৪), চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের করিমা বেগম (৬২) ও নোয়ার চর গ্রামের আসাদ মিয়া (৬)। এর আগে, মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) এ ঘটনায় ৪ শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ২০ জন নিখোঁজ ছিল। মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার কালিয়াগুটা হাওরে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

গতকাল মঙ্গলবার এ ঘটনায় উদ্ধারকৃত নিহত চার শিশুর মধ্যে দুজনের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেছে। তারা হলো উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের বদরুল ইসলামের ছেলে আবীর (৭) ও বাবুল মিয়ার ছেলে শামীম (৪)। বাকি দুজনের পরিচয় এখনো জানা যায়নি। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে দিরাই থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম নজরুল ইসলাম জানান, উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রাম থেকে ইঞ্জিনচালিত একটি নৌকা ৩১ জন যাত্রী নিয়ে চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামে যাচ্ছিল। এ সময় কালিয়াগুটা হাওরের আইনুল বিলে ঝড়ের কবলে পড়ে নৌকাটি ডুবে যায়।

পরে স্থানীয়রা চেষ্টা চালিয়ে গত রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত চার শিশুর লাশ উদ্ধার করে। যাত্রীদের মধ্যে ৭ জন সাঁতরে তীরে উঠেতে সক্ষম হয়। আজ সকালে উদ্ধারকৃত ৪ জনকে দিয়ে এখন পর্যন্ত ৮ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta