ত্রিশালে লকডাউন কার্যকরে প্রশাসন সর্বোচ্চ শতর্কতায় যৌথ বাহিনীর টহল | Nobobarta

আজ বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
প্রথম রাতে ৩৭শ পরিবার পেলো খাদ্যসামগ্রী : সিসিক বস্তিতে ভরা দুপুরে কন্ঠশিল্পী নয়ন দয়া ও হাজী আরমান ৬৫ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সিসিক ভালুকায় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন সাদিকুর রহমান ঝালকাঠি করোনা প্রতিরোধে রক্ত কণিকা ফাউন্ডেশন জীবাণুনাশক স্প্রে করোনাঃ দুস্থদের খাদ্য দিলো কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগ সিরাজদিখানে দেড় হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রাজাপুরে সাইদুর রহমান এডুকেশন ওয়েল ফেয়ার ট্রাষ্ট’র হতদারিদ্রদের মাঝে ত্রান বিতরণ রাজাপুরে পল্লী বিদ্যুত সমিতির গরীব মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ রাজাপুরে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করলেন ইউপি সদস্য
ত্রিশালে লকডাউন কার্যকরে প্রশাসন সর্বোচ্চ শতর্কতায় যৌথ বাহিনীর টহল

ত্রিশালে লকডাউন কার্যকরে প্রশাসন সর্বোচ্চ শতর্কতায় যৌথ বাহিনীর টহল

Rudra Amin Books

হুমায়ুন কবির, ত্রিশাল : ময়মনসিংহের ত্রিশালে ভয়াবহ কোরোনা ভাইরাস সংক্রামন প্রতিরোধে জনসচেতনতায় সরকারের নেওয়া ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পযর্ন্ত লকডাউন সারা দেশের ন্যায় ত্রিশালেও সর্বোচ্চ শর্তকতায় কাজ করছে প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকে মাঠে তৎপর রয়েছে উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও পুলিশ।

ত্রিশালে বৃহস্পতিবার সাপ্তাহিক বড় হাট বাজার থাকলেও প্রশাসন তৎপর থাকায় পৌর শহর এলাকায় জনশুন্য রয়েছে। ত্রিশাল পৌর এলাকার প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে দেখা যায় উপজেলা প্রশাসন সেনাবাহিনী ও পুলিশ টহল দেওয়া দোকান পাট বন্ধ রয়েছে। ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে দূরপাল্লার যানবাহন নজরে পরেনি। জন সাধারনের সমাগমও চোখে পরেনি।

ঢাকা ময়মনসিংহ মহা সড়কের দরিরামপুর বাসষ্টেন্ড এলাকায় সেনাবাহিনী কোরোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতার জন্য মাইকিং করে শতর্ক করেন অযথা কেও বাহিরে ঘোরা ফেরা করবেন না, একের অধিক সমাগম করবেন না। মাস্ক ছাড়া কেও প্রয়োজন ছাড়া কেও বাহিরে বের হবেন না।

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি হাফেজ মাওলানা রুহুল আমীন মাদানী এমপি বলেন নিজে সচেতন হোন অপরকে সচেতনতন করুন। নিজে ঘরে থেকে নিজে বাচুন অন্যকে বাচান।বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া কেও বাহিরে ঘোরা ফেরা করবেন না। সরকারী নীতিমালা অনুসরন করার জন্য সাধারন জনগনকে মেনে চলার অনুরোধ করেন।

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষে আমরা মাঠে কাজ করে যাচ্ছি।জন সচেতনতার জন্য আমরা মাইকিং লিফলেট হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিনা মূল্যে বিতরন করছি।এএসপি ত্রিশাল সার্কেল স্বাগতা ভট্রাচার্য্য মৌ বলেন মানবিক পুলিশের চোখে জনতার আকাংখা লেখা থাকে। ত্রিশাল ও ফুলবাড়ীয়া এ সংকল্প বাস্তবায়নে কাজ করছি। বর্তমান কোরোনা ভাইরাস ভয়াবহ সংক্রামন তথা জাতীর চরম ক্লান্তিকালে সংকল্প বাস্তবায়নে তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। আমরা সরকারের নির্দেশ পালনে মাঠে কাজ করছি। কোরোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আতংকিত না হয়ে জন সাধারনকে সচেতনা ও বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন করছি।


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta