রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন

English Version
একটি শিরোপা জিততে চাই : মেসি

একটি শিরোপা জিততে চাই : মেসি



  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চার বছর আগে ব্রাজিল বিশ্বকাপে শিরোপার খুব কাছাকাছি গিয়েছিল আর্জেন্টিনা। ফাইনালে জার্মানির কাছে হেরে না গেলে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখাতে পারতেন বিশ্ব ফুটবরের মহাতারকা লিওনেল মেসি। কিন্তু মেসি পারেননি দলকে জেতাতে। তাই শিরোপার ক্ষুধা রয়েই গেছে বিশ্বসেরা এ ফুটবলারের। সেই আক্ষেপ ঘুচাতে চান ক্লাব ক্যারিয়ারে বার্সেলোনার হয়ে ৩২টি শিরোপা জেতা এ কিংবদন্তী।

এমনটিই জানিয়েছেন ৩১ বছর বয়সী কিংবদন্তী। রাশিয়ার উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগে বুয়েনাস আয়ার্সে অনুশীলনের এক ফাকে স্থানীয় এল ট্রিসের সঙ্গে দেশের হয়ে বিশ্বকাপ চ্যালেঞ্জ এবং নিজের ব্যক্তিগত ভাবনা নিয়ে কথা বলেছেন মেসি । সাক্ষাৎকারের কিছু অংশ তুলে ধরা হলো-

প্রশ্ন: গ্রুপ পর্বের প্রতিপক্ষরা যেমন…
মেসি: আমাদের গ্রুপটা সত্যিই জটিল। আইসল্যান্ড এমন একটা দল, যারা সর্বশেষ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে প্রমাণ করেছে তাদের হারানো কঠিন, যে কারও সঙ্গে তারা লড়াই করতে পারে। অন্যদিকে ক্রোয়েশিয়ার মিডফিল্ড শক্তিশালী। ওদের খেলা অনেকটা স্পেনের স্টাইলের মতো। আর নাইজেরিয়া তো আমাদের জন্য সবসময়ই চ্যালেঞ্জিং।

প্রশ্ন: আর্জেন্টিনার সম্ভাবনা এবং অন্য ফেভারিট সম্পর্কে আপনার ভাবনা?
মেসি : আমাদের এই দলটার ওপর আমার ভরসা আছে। আমাদের প্রস্তুতিও ভালো চলছে। আমাদের দলে দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতাসম্পন্ন বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় আছে। তবে আমাদের এখন ধীরে ধীরে এগোতে হবে। আমরা এই বার্তা দিতে চাই না যে আমরাই সেরা, আমরাই চ্যাম্পিয়ন হবো। কিন্তু বাস্তবতা বলছে ভিন্ন কথা। আমরা এখন সেরা নই। এই মুহূর্তে অনেক দল ফেভারিট। একটি দল ব্রাজিল। স্পেন আছে, জার্মানি আছে… এরা এই মুহূর্তের বিশ্বসেরা দলের কয়েকটি।

প্রশ্ন: শিরোপা জয় নিয়ে প্রত্যাশা…
মেসি: বিশ্বকাপ জেতাটা আমার জন্য বিশাল বড় ব্যক্তিগত চ্যালেঞ্জ। চ্যালেঞ্জ শিরোপার স্বপ্ন দেখা দল আর দেশের জন্যও। বিশ্বকাপে পুরো দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারাটা দারুণ এক দায়িত্ব। আমি বার্সেলোনায় পাওয়া একটা শিরোপার বদলে হলেও জাতীয় দলের হয়ে শিরোপা জিততে চাই। আমি জানি, আর্জেন্টিনার হয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মাহাত্ম্য কী। এটা বাকি সব কিছু থেকেই ভিন্ন। বিশেষভাবে বিশেষ কিছু।

প্রশ্ন: আর্জেন্টিনার হয়ে খেলার অনুভূতি কি?
মেসি: আমার কাছে মাঠে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টিনার জাতীয় সঙ্গীত শোনার মুহূর্তটা খুবই স্পেশাল। একদিন কথায় কথায় আমার এক বন্ধু বলছিল, তুমি যদি স্পেনের হয়ে খেলতে, তাহলে এখন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন থাকতে। কিন্তু এটা আসলে হওয়ার ছিল না। স্পেনের হয়ে খেলার কথা কখনোই আমার মাথায় আসেনি। আর্জেন্টিনার হয়ে চ্যাম্পিয়ন হলে সেটাই হবে বিশেষ কিছু।

প্রশ্ন: ক্লাব ফুটবলে ভবিষ্যৎ ভাবনা…
মেসি: একটা বিষয় আমি বারবার পরিস্কার করেছি, ইউরোপে আমার একটাই বাড়ি, সেটা হচ্ছে বার্সেলোনা। আমি সবসময়ই বলে এসেছি কিছুদিনের জন্য হলেও আমি আর্জেন্টিনার মাটিতে খেলতে চাই। আমি জানি না এটা কখনও ঘটবে কি-না। কিন্তু এটা আমার মাথায় আছে। তবে ক্লাবটা অবশ্যই নিওয়েলস (শৈশবের ক্লাব), অন্য কোথাও না। আমি অন্তত ছয় মাসের জন্য হলেও খেলতে চাই। তবে কেউই তো জানে না ভবিষ্যতে কী ঘটবে। ছোটবেলায় আমি নিওয়েলসের হয়ে খেলার স্বপ্ন দেখতাম। বাবা, ভাই বা বন্ধুদের সঙ্গে ক্লাবে যেতামও। পরবর্তী সময়ে জীবন আমাকে অন্য জায়গায় নিয়ে গেছে। কিন্তু স্বপ্নটা আমার মাথায় এখনও রয়ে গেছে।

প্রশ্ন: খ্যাতি নিয়ে কোনো বিড়ম্বনা পোহাতে হচ্ছে কি না ?
মেসি: মানুষ আমাকে যে ভালোবাসা, সম্মান দিয়েছে, দিচ্ছে- তাতে আমি কৃতজ্ঞ। কিন্তু সত্যি কথা হচ্ছে, আমার মাঝেমধ্যে নিজেকে আড়াল করতে ইচ্ছে করে। বিশেষ করে আমি যখন পরিবারের সঙ্গে থাকি, তখন আমি চাই স্বাভাবিকভাবে তাদের নিয়ে কোথায়ও বাইরে যেতে। আমি জামা-কাপড় কিনতে পছন্দ করি। তবে দোকানে যেতে ভালো লাগে না। অনলাইনেই কিনি। কোনো শপিংমল বা বাইরে কোথাও হাঁটতে বেরোলে আমি খুব দ্রুত হাঁটি, যাতে থামতে না হয়। গিয়ে কাজটা সেরেই বেরিয়ে পড়ি। আর যখন আন্তেনেল্লা (স্ত্রী) বা বাচ্চাদের সঙ্গে যাই, তখন থামা লাগে না। কিন্তু যখন থামতে শুরু করি, তখন আর সহজে বেরোতে পারি না।

সূত্র: গোলডটকম

লাইক দিন

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com