বকেয়া নিয়ে রণক্ষেত্র না.গঞ্জ, আহত অর্ধশত

  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    7
    Shares

নারায়ণগঞ্জের আদমজীতে বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষুব্ধ পোশাক শ্রমিকরা ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ মহাসড়ক অবরোধ করে গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আদমজী ইপিজেডের সামনে সুয়াদ গার্মেন্টের শ্রমিকরা তাদের বকেয়া বেতনের দাবিতে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছেন।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তারা আদমজী এলাকায় একটি কাভার্ডভ্যানে অগ্নিসংযোগ করেন। এ সময় সোয়াদ গার্মেন্ট নামে তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকদের সঙ্গে শিল্প পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও শ্রমিকরা জানান, সকালে আদমজী ইপিজেডের গেট দিয়ে সোয়াদ গার্মেন্টের প্রায় সাড়ে তিন হাজার শ্রমিককে ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। এতে বিপুলসংখ্যক শ্রমিক বাইরে বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করে। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের ওপর পুলিশ লাঠিচার্জ করে। বিপুলসংখ্যক শ্রমিক রাস্তায় নেমে এলে এক পর্যায়ে সংঘর্ষ মারাত্মক আকার ধারণ করে। এতে রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় গাড়ি ভাঙচুর ও কয়েকটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় ৪০ জন শ্রমিক আহত হয়েছেন বলে শ্রমিকদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

সোয়াদ গার্মেন্টের শ্রমিকরা জানান, তাদের এক মাসের বকেয়া বেতন আজকে দেওয়ার কথা ছিল। এছাড়া তাদের পাঁচটি দাবি মেনে নেওয়ার কথা ছিল মালিকপক্ষের। তবে তাদের সেই বেতন ও দাবি না মেনে ইপিজেডের গেটেই আটকে দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে যাওয়া সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই ইব্রাহীম পাটোয়ারী জানান, সোমবার সকাল থেকেই বকেয়া বেতনের দাবিতে সুয়াদ গার্মেন্টের শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করেন। এ সময় উত্তেজিত শ্রমিকরা একটি কাভার্ডভ্যানে আগুন ধরিয়ে দেন। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে হাজির হয়। মালিকপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সমাধানের চেষ্টা চলছে বলে জানা গেছে।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Leave a Reply