সাংবাদিকের ওপর হামলা হলে কঠোর আন্দোলন | Nobobarta

আজ সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ০৯:১৬ অপরাহ্ন

সাংবাদিকের ওপর হামলা হলে কঠোর আন্দোলন

সাংবাদিকের ওপর হামলা হলে কঠোর আন্দোলন

Rudra Amin Books

স্টাফ রিপোর্টার : সাংবাদিকের ওপর হামলা বা নির্যাতন হলে কঠোর আন্দোলনের পাশাপাশি প্রয়োজনে জেলায় জেলায় মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছে বৃহত্তর মিরপুর সাংবাদিক সোসাইটি। ‘সাংবাদিক নির্যাতন ও নিপীড়ন’ এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর মিরপুর-১০ নম্বর গোল চত্ববে বৃহত্তর মিরপুর সাংবাদিক সোসাইটি আয়োজিত মানববন্ধনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন বক্তারা।

মানববন্ধনে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিউজে) সভাপতি আবু জাফর সূর্য বলেন, সাংবাদিকদের নিয়ে কেউ কোনো কথা বলেন না। অন্য যেকোনো পেশার শ্রমিক-ব্যবসায়ী কারও কোনো কিছু হলে সবার জন্য কথা বলেন সাংবাদিকরা। সাংবাদিকদের চাকরি না হলে, বেতন না পেলে আমাদের জন্য কেউ কথা বলেন না।
তিনি বলেন, দেশে গণতন্ত্রের কথা, সুশাসনের কথা এ সাংবাদিকরাই বলেন। গণতন্ত্র আর গণমাধ্যম একই হাতের এপিঠ আর ওপিঠ। যদি আপনারা গণমাধ্যমের টুটি চেপে ধরেন, তাহলে দেশে গণতন্ত্র ও সুশাসন স্বাভাবিকভাবে চলতে পারে না। সাংবাদিকরা মানবতার পক্ষে, সুশাসনের পক্ষে, গরিবের পক্ষে থাকেন। আপনারা যদি সাংবাদিকদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন করেন তাহলে বাংলাদেশের পক্ষে কথা বলার লোক কমে যাবে। সাংবাদিকদের স্বাভাবিকভাবে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে দিতে হবে।

সাংবাদিক নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সিটি নির্বাচনে পেশাগত দায়িত্ব পালন করার সময় সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান সুমনকে রক্তাক্ত করা হয়েছে। তার অপরাধ কি ছিল? তার চোখের সামনে এমন একটি ঘটনা ঘটেছিল যেটার ছবি সে তুলেছিলেন এটাই কি তার অপরাধ? ঘটনাটি ছিল সমাজবিরোধী, রাষ্ট্রবিরোধী, স্বাধীনতাবিরোধী। কারণ আপনার মত প্রকাশের অর্থ হচ্ছে স্বাধীনতার চেতনা। আপনি কথা বলতে পারবেন সেটাই স্বাধীনতার চেতনা। আপনি ভোট দিতে পারবেন এটাই স্বাধীনতার চেতনা। আমার বন্ধু সুমনকে যে আহত করেছে সে বাংলাদেশের স্বাধীনতার পক্ষের মানুষ হতে পারে না। সে যদি আওয়ামী লীগের পক্ষের ও মানুষ হয় তাহলে আওয়ামী লীগের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা স্বাধীনতাবিরোধী। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী।

সব সরকারের কথা উল্লেখ করে আবু জাফর বলেন, সাংবাদিকরা রাষ্ট্রের কোনো ক্ষমতায় অংশগ্রহণ করেন না, অংশগ্রহণ করতে চায়ও না। আওয়ামী লীগের পক্ষে লেখলে বলে ভালো, বিএনপির পক্ষে লেখলে তারাও বলে ভালো। কারো পক্ষে লেখা কি সাংবাদিকের কাজ? আমরা সাংবাদিকরা হচ্ছি স্বাধীনতার পক্ষে স্বাধীনতার চেতনার পক্ষে বঙ্গবন্ধুর পক্ষে। আমরা দুঃশাসনের বিরুদ্ধে।

মানববন্ধনে বৃহত্তর মিরপুর সাংবাদিক সোসাইটির আহ্বায়ক হেমায়েত হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- বৃহত্তর ফরিদপুর সাংবাদিক ফোরামের যুগ্ন আহবায়ক দৈনিক কালের কণ্ঠের সিনিয়র রিপোর্টার লায়েকুজ্জামান, বাংলাদেশ সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সাবেক সভাপতি আশরাফুল ইসলাম, মিরপুর সাংবাদিক সোসাইটির সদস্য সচিব ইউসুফ আহমেদ তুহিন, ঢাকাস্থ গোপালগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক গণজাগরনের বিশেষ প্রতিনিধি এস.এম বাবুল, সংবাদ প্রতিনিদিনের সিনিয়র রিপোর্টার নজরুল ইসলাম, বৃহত্তর মিরপুর সাংবাদিক সোসাইটির যুগ্ম-আহ্বায়ক এস এম জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta