বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন

English Version
তাম্মাতের পায়ে হেঁটে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়ায় ভ্রমণ

তাম্মাতের পায়ে হেঁটে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়ায় ভ্রমণ



চট্টগ্রামের ছেলে তাম্মাত। পুরো নাম তাম্মাত বিল খয়ের মুন্না। অধ্যয়ন করছেন চট্টগ্রাম সিটি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষে। যান্ত্রিক এই নগরীতে মানুষকে পায়ে হাঁটতে উদ্বুধ করতে সিদ্ধান্ত নেন পায়ে হেঁটে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়ায় পৌঁছবেন।
ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দিতে গত ১৮ জুন সকাল পৌনে ১০টায় তিনি টেকনাফের শাহ পরীর দ্বীপ থেকে পায়ে হেঁটে যাত্রা শুরু করেন। আজ মঙ্গলবার তার এ যাত্রার সমাপ্তি হয় তেঁতুলিয়ায় পৌঁছনোর পর।
চট্টগ্রামে পড়াশোনা করলেও তাম্মাতের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলায়। জেলার কোটালীপাড়া থানার কাকডাঙ্গা গ্রামের নিয়ামত আলী শিকদারের ছেলে তিনি। পড়াশোনার পাশাপাশি ম্যারাথন আর সাইকেলিং এর শখ আছে তার। ২০১৭ সালে ২৫ দিনে সাইকেলিং এর মাধ্যমে দেশের ৬৪ জেলা ভ্রমণ শেষ করেন তিনি। আর এবারের পরিকল্পনা ছিল টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত ১০০০ কি.মি. রাস্তা পায়ে হেঁটে পাড়ি দেয়ার। তার সেই পরিকল্পনা বাস্তবে রূপ নেয় আজ তেঁতুলিয়ায় পৌঁছনোর পর।
যান্ত্রিকতার যুগে হঠাৎ তার এই ভাবনা কই থেকে এলো এমন প্রশ্নে তাম্মাত বলেন, মা’র কাছে গল্প শুনেছেন তার নানা খলিলুর রহমান খান ১৯৭১ সালে স্বাধীতা যুদ্ধের সময় ঢাকার সদর ঘাট থেকে পায়ে হেঁটে ৫দিনে গোপালগঞ্জে পৌঁছে ছিলেন। মা’র মুখে গল্প শুনেই তার মাথায় ঘুরপাক খেতে থাকে পায়ে হেটে দীর্ঘ পথ পাড়ি দেয়ার এই ভাবনা। আর এই ভাবনা থেকেই গত ১৮ জুন থেকে আজ ১০ জুলাই মাত্র ২৩ দিনে তিনি এই দীর্ঘ পথ পায়ে হেঁটে পাড়ি দেন।
আজ তেঁতুলিয়ায় রাত্রি যাপন শেষে আগামীকাল পায়ে হেঁটে রওনা দিবেন বাংলাবান্ধার উদ্দেশ্যে। সেখানেই শেষ হবে তার রোমাঞ্চকর টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পদযাত্রা।

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com