এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশ | Nobobarta

আজ বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন

এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশ

এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশ

Rudra Amin Books

আসন্ন উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন প্রকাশিত হয়েছে। সংশোধিত রুটিন অনুযায়ী এবারের এইচএসসি পরীক্ষা আগামী ১ এপ্রিল থেকে শুরু হবে। এদিন বাংলা (আবশ্যিক) প্রথম পত্র পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবারের এইচএসসি পরীক্ষা আগামী ৪ মে পর্যন্ত চলবে।

এছাড়া ব্যবহারিক পরীক্ষা আগামী ৫ মে শুরু হয়ে ১৩ মে পর্যন্ত চলবে বলে সংশোধিত রুটিনে জানানো হয়েছে। বুধবার (৪ মার্চ) ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক এসএম আমিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত এই রুটিন প্রকাশ করা হয়। এতে দেখা গেছে, আগামী ১ এপ্রিল (বুধবার) বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষার মাধ্যমে এবারের এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। তত্ত্বীয় পরীক্ষা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ও দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে।

এছাড়া ৫ মে থেকে ১৩ মে পর্যন্ত চলবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। ১৮ মে এরমধ্যেই ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অথবা তার প্রতিনিধিকে ব্যবহারিক উত্তরপত্র, স্বাক্ষরলিপি ও অন্য কাগজপত্র রোল নম্বরের ক্রমানুসারে সাজিয়ে জমা দিতে বলা হয়েছে। রুটিন অনুযায়ী, প্রতিটি তত্ত্বীয় পরীক্ষার ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীকে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। প্রথমে বহুনির্বাচনী ও পরে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বহুনির্বাচনী প্রশ্নের ৩০ নম্বরের জন্য ৩০ মিনিট ও লিখিত ৭০ নম্বরের জন্য ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে।

রুটিনে আরও বলা হয়েছে, পরীক্ষার প্রবেশপত্র পরীক্ষার্থীকে নিজ নিজ কলেজ থেকে সংগ্রহ করতে হবে। পরীক্ষার্থীরা সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে, তবে কোনো প্রোগ্রামিং ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে না। পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। এইচএসসি পরীক্ষার সংশোধিত রুটিন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। উল্লেখ্য, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র আগামী ১৬ মার্চ (সোমবার) থেকে বিতরণ শুরু হবে।


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta