সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

English Version
সংবাদ শিরোনাম :
মুক্তি পেল ‘চরিত্রহীন’র ট্রেলার (ভিডিও) সড়ক দুর্ঘটনার ভয়াবহতা : আইনের বাস্তবায়ন জরুরি! মোস্তাফিজের অবিশ্বাস্য বোলিংয়ে বাংলাদেশের জয় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ বাছাইপর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের মেয়েরা জাবি উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের একাংশের ইমরুল-মাহমুদউল্লাহ নৈপুণ্যে টাইগারদের চ্যালেঞ্জিং স্কোর শ্রীনগরে হেরোইনসহ নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার রাজাপুরে কবর জিয়ারত এর মধ্য দিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় কেন্দ্রীয় নেতা মনিরুজ্জামান। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ পিবিআই’র তদন্ত প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাইলেন রিনা
শিল্পী আব্দুল জব্বারের আজ প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী

শিল্পী আব্দুল জব্বারের আজ প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী



‘সালাম সালাম হাজার সালাম’, ওরে নীল দরিয়া, পিচঢালা এই পথটারে ভালো বেসেছি এমন অসংখ্য জনপ্রিয় গানের শিল্পী ছিলেন আব্দুল জব্বার। কিংবদন্তি এই শিল্পীর আজ প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০১৭ সালের ৩০ আগস্ট শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন স্বাধীন বাংলার বেতার কেন্দ্রের এ শিল্পী।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত ও নৃত্যকলা মিলনায়তনে শিল্পী আবদুল জব্বারকে নিয়ে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ম্যাজিশিয়ান’স ফেডারেশন অব বাংলাদেশ। আলোচনায় অংশ নেন শিল্পী আবদুল জব্বারের স্ত্রী হালিমা জব্বার, তার কন্যা জেসমিন জব্বার, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, কবি কাজী রোজী, শিল্পী খুরশিদ আলম প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম এ রব। স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এ এইচ রানা।

১৯৩৮ সালে ৭ নভেম্বর বৃহত্তর কুষ্টিয়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন আবদুল জব্বার। শৈশব থেকে সঙ্গীতের চর্চা শুরু করেন। তিনি মূলত আধুনিক গানের শিল্পী। সঙ্গীতকে ভালোবেসেই তিনি জীবনের পথ চলছেন। ষাট দশকে তিনি বিভিন্ন সঙ্গীতানুষ্ঠানে গান পরিবেশন করে খ্যাতি অর্জন করেন। শিল্পী আব্দুল জব্বার ১৯৫৮ সাল থেকে বেতারে গান গাওয়া শুরু করেন। চলচ্চিত্র প্লে-ব্যাক শুরু করেন ১৯৬২ সালে। ১৯৬৪ সালে বিটিভির নিয়মিত শিল্পীতে পরিণত হন। ১৯৬৮ সালে ‘এতটুকু আশা’ ছবিতে তার গাওয়া ‘তুমি কি দেখছ কভু, জীবনের পরাজয়’ গানটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেন।

পরবর্তী সময় বাঙালির মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে এই শিল্পীর গাওয়া বিভিন্ন গান, আপামর মুক্তিপাগল ও মুক্তিযোদ্ধাদের প্রেরণা ও মনোবল বাড়িয়েছে। স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে আব্দুল জব্বার পেয়েছেন অসংখ্য পুরষ্কার। যার মধ্যে রয়েছে ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধু স্বর্ণপদক, ১৯৮০ সালে একুশে পদক, ১৯৯৬ সালে স্বাধীনতা পদক। আরও পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার, জহির রায়হান চলচ্চিত্র পুরষ্কার ও সিটিসেল চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস আজীবন সম্মাননাসহ অনেক পুরস্কার-সম্মাননা।

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com