ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন | Nobobarta

আজ বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ০২:৩৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
প্রথম রাতে ৩৭শ পরিবার পেলো খাদ্যসামগ্রী : সিসিক বস্তিতে ভরা দুপুরে কন্ঠশিল্পী নয়ন দয়া ও হাজী আরমান ৬৫ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেবে সিসিক ভালুকায় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন সাদিকুর রহমান ঝালকাঠি করোনা প্রতিরোধে রক্ত কণিকা ফাউন্ডেশন জীবাণুনাশক স্প্রে করোনাঃ দুস্থদের খাদ্য দিলো কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগ সিরাজদিখানে দেড় হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রাজাপুরে সাইদুর রহমান এডুকেশন ওয়েল ফেয়ার ট্রাষ্ট’র হতদারিদ্রদের মাঝে ত্রান বিতরণ রাজাপুরে পল্লী বিদ্যুত সমিতির গরীব মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ রাজাপুরে বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করলেন ইউপি সদস্য
ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

Rudra Amin Books

আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে আজ ২৩ মে ২০১৮ তারিখে চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে দুই আদিবাসী ত্রিপুরা কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে সকাল ১০.৩০টায় রাজশাহীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নকুল পাহানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হেমব্রম, নিয়ামতপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক অজিত মুন্ডা, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি বিভূতী ভূষণ মাহাতো, রাজশাহী কলেজ কমিটির সভাপতি সাবিত্রী হেমব্রম, কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক আপেল মুন্ডা, প্রকাশনা সম্পাদক বাসুদেব মাহাতো, প্রচার সম্পাদক পলাশ পাহান, সদস্য অনিল গজার প্রমুখ।

সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট কলামিষ্ট প্রশান্ত কুমার সাহা, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির রাজশাহীর জেলার সভাপতি শাহাজাহান আলী বরজাহান, জনউদ্যোগ রাজশাহীর ফেলো জুলফিকর আহমেদ গোলাপ, নবজাগরণ ছাত্র সমাজের উপদেষ্টা তামিম সিরাজী, এএইচআরডি রাজশাহীর সদস্য রতœা বিশ্বাস প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, গত ১৮ তারিখে দুই ত্রিপুরা কিশোরীকে দিনে দুপুরে ধর্ষণ করে। ধর্ষণকারী পরে দুই কিশোরীকে হত্যা করে দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। এই ঘটনায় বক্তারা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ধর্ষণ ও হত্যার সাথে জড়িত সকলকে বিচারের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবী জানান। এসময় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের আদিবাসী নারীরা প্রতিনিয়ত ধর্ষণ এবং হত্যার শিকার হচ্ছে। অথচ সরকার প্রশাসন আদিবাসীদের যথাযথ বিচার নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হচ্ছে। এছাড়াও বক্তারা বলেন, শুধু আদিবাসী নয়, বাঙালি নারী বা শিশুও প্রতিনিয়ত ধর্ষণ ও হত্যার শিকর হচ্ছে। কিন্তু বিচারহীনতার কারনে এসব ঘটনার অপরাধীরা বারবার ছাড় পেয়ে যাচ্ছে। বক্তারা দাবী করেন, বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে এসে সংঘটিত সকল আদিবাসীসহ বাঙালি নারী ও শিশু ধর্ষণ ও হত্যার সুষ্ঠু বিচার ও শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

উল্লেখ্য, সীতাকুন্ড উপজেলায় গত ১৮ মে শুক্রবার বিকালে সীতাকুন্ড পৌর সদর ৫ নং ওয়ার্ড জঙ্গল মহাদেবপুর পাহাড়ে বসবাসকারী পুনেল কুমার ত্রিপুরার মেয়ে সুখলতি ত্রিপুরা (১৫) ও সুমন ত্রিপুরার মেয়ে ছবিরানী ত্রিপুরা (১২) কে ধর্ষণ ও হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়। পরে স্থানীয়রা লাশ দুুটি ঝুলন্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আবুল হোসেন (২৫) নামে একজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

বার্তা প্রেরক, তরুন মুন্ডা
সাধারণ সম্পাদক
আদিবাসী ছাত্র পরিষদ


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta