বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ০৫:৫৪ অপরাহ্ন

English Version
বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ শাবি শাখার কর্মীদের বিরুদ্ধে শিবির সম্পৃক্ততার অভিযোগ

বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ শাবি শাখার কর্মীদের বিরুদ্ধে শিবির সম্পৃক্ততার অভিযোগ



  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গত ১৪ই অক্টোবর “বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ”-শাবি শাখার আগামী এক বছরের জন্য কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে সভাপতি পদে শিহাব উদ্দিন আহমেদ ও সুজন খানকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করে ছাপ্পান্ন সদস্য বিশিষ্ঠ কমিটি ঘোষণা দেয় কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ।

এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে কমিটিতে পদধারী কর্মীদের বিরুদ্ধে শিবির সম্পৃক্ততার অভিযোগ এনেছে শাবি শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ-নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিযুক্তদের ছবি সহ প্রকাশ করছে অনেকেই। শাবি শাখা ছাত্রলীগের কর্মীদের দাবী, “বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ শাবি শাখায় যারা পদভুক্ত এদের বিরদ্ধে বিভিন্নভাবে শিবিরের সাথে সম্পৃক্ততার অভিযোগ দিয়েছে।”

এছারাও এই কমিটি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে ছাত্রলীগ কর্মীদের দাবী করেন-
০১) বিশ্ববিদ্যালয়ে যাদের মুখে যাদের মুখে কখনোই জয় বাংলা ধ্বনি শোনা যায় নি তারাই আজ বঙ্গবন্ধু যহাত্র পরিষদ, শাবি শাখার গুরুত্বপূর্ণ পদধারী।
০২) বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ কোনভাবেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উর্ধ্বে নয়। সুতরাং শাবি ছাত্রলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও সিনিয়র নেতৃবৃন্দের সাথে কোন আলাপ আলোচনা ছাড়াই কিভাবে এই কমিটি এখানে আসে?
০৩) বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদ কোনভাবেই এলাকাভিত্তিক এলাকা ভিত্তিক কোন কমিটি মেনে নেয়া যায়না আর এটা শাবিপ্রবি ছাত্রলীগ কোন ভাবেই ছাড় দিবেনা।
০৪) এই কমিটির সাধারণ সম্পাদক এর সাথে শিবিরের সম্পৃক্ততা রয়েছে এবং সাধারণ সম্পাদক সুজন খান শাবিপ্রবির বহিষ্কৃত বঙ্গবন্ধু হল শাখা শিবিরের আপন ছোট ভাই।

বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ শাবি শাখা কমিটির ব্যাপারে শাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি(ভারপ্রাপ্ত) রুহুল আমিন বলেন, “বঙ্গবন্ধুর প্রতি আমার শ্রদ্ধা আজীবন। তবে বঙ্গবন্ধুর নামে যেকোন সংগঠনের কমিটি দেয়ার আগে কেন্দ্রীয় কমিটির অবশ্যই উচিত যথাসম্ভব যাচাই-বাছাই করে কমিটিতে কর্মী অন্তর্ভূক্ত করা।”

শাবি শাখা ছাত্রলীগের সম্পাদক ইমরান খান বলেন, “বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ নিয়ে আমার কোন ধারণা নেই। আমার পলিটিক্যাল ক্যারিয়ারে এ ধরণের কোন পরিষদ আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে দেখিনি। বঙ্গবন্ধুর নামে কেউ যদি কোন সংগঠন চালু করতে চায় তবে শীর্ষ নেতৃত্ব বাছাইয়ের ক্ষেত্রে অবশ্যই দূর দৃষ্টি সম্পন্ন হওয়া উচিত। তাছাড়া ছাত্রলীগে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে আমাদের কাছে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে তাদেরকে অবশ্যই পরিহার করা নৈতিক দায়িত্ব হওয়া উচিত বলে মনে করি।”

বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুজন খান বহিষ্কৃত শিবির কর্মী আমিনুল ইসলামের আপন ছোট ভাই। ২০১৪ সালের ০৬ই ফেব্রুয়ারি শাবির সাবেক উপাচার্য আমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া ও সাবেক প্রক্টর হিমাদ্রী শেখর রায় স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে সমাজ কর্ম বিভাগের ছাত্র আমিনুল ইসলাম যার রেজিস্ট্রেশন ২০১২২২৩০৩৮ সহ আরো ১৩জন শিবিরকর্মীকে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা বোর্ড।

সুজনের কাছে তার ভাই আমিনুল ইসলাম সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি শাবি ছাত্রলীগের পদবীধারী কর্মী আর আমার পরিবারের সবাই আওয়ামীলীগ। আমার ভাই আমিনুল ইসলাম শিবির করলে সেটা তো আমার অপরাধ নয়।”

লাইক দিন

Please Share This Post in Your Social Media




Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com