আজ শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন

নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহর

নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহর

  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    3
    Shares

সরকার নির্ধারিত কাঠামোয় বেতন দেওয়াসহ ১১ দফা দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে সারাদেশে নৌ ধর্মঘট প্রত্যাহার করেছে বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) মধ্য রাতে শ্রম অধিদফতরের সভাকক্ষে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানের সঙ্গে আন্দোলনরত মালিক-শ্রমিকদের বৈঠক শেষে এ ঘোষণা আসে।

বৈঠকে নৌপথে পুলিশের চাঁদাবাজি এবং নৌপথে ডাকাতি রোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করা হবে বলেও জানানো হয়। এ ছাড়া নৌযান শ্রমিকদের ১১ দফা দাবির মধ্যে অন্যান্য দাবিগুলো সমাধানের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে শ্রম মন্ত্রণালয় থেকে লিখিতভাবে জানানোর আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ১১ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে শ্রম প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানের সঙ্গে বৈঠকে বসেন নৌযান শ্রমিক নেতারা। শ্রম ভবনে এ বৈঠক হয়। সোমবার রাতের বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মঙ্গলবার সকাল থেকে ধর্মঘট প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেও সেটা বাস্তবায়িত হয়নি। নৌযান শ্রমিক নেতাদের মধ্যে বিভেদের কারণেই এমন পরিস্থিতির উদ্ভব হয়। ফলে শ্রম প্রতিমন্ত্রী আবারও নৌযান ফেডারেশন নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

নৌযান শ্রমিকদের ১১ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে, নৌপথে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি,শ্রমিক নির্যাতন বন্ধ, সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার এবং নৌযান শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। দুর্ঘটনায় কর্মস্থলে কোনও শ্রমিকের মৃত্যু হলে তার পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। সেই সঙ্গে সমুদ্র ভাতা ও রাত্রিকালীন ভাতা নির্ধারণ করতে হবে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত তুলে ধরে শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০১৬ সালের ১৭ নভেম্বর গেজেটে উল্লেখিত যেসব বিষয় বাস্তবায়িত হচ্ছে না, সেগুলো লিখিতভাবে শ্রম মন্ত্রণালয় বা শ্রম অধিদফতরকে জানালে সমাধানের উদ্যোগ নেবে সরকার।

তিনি বলেন, তবে শ্রমিকদের সুষ্ঠু জীবনমানের সঙ্গে সম্পৃক্ত এমন মানবিক বিষয়াদি যা গেজেটে উল্লেখ নেই কিন্তু আগে থেকে কোনো কোনো শ্রেণির নৌযান শ্রমিক পেয়ে আসছে, তা অব্যাহত রাখার বিষয়টি ত্রিপক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে মীমাংসা হবে বলেও সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রতিমন্ত্রী বলেন, দাবি নামার ১ থেকে ৭ নম্বর দফা ৪৫ দিনের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে মীমাংসা করা হবে। ৮ থেকে ১১ নম্বর দফা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে অনুরোধ জানানো হবে। এ বৈঠকে শ্রম প্রতিমন্ত্রী ছাড়াও চৌধুরী আশিকুল আলম, শাহ আলমসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

কে এই যুবক? টিস্যু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছে



Nobobarta on Twitter

© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com