আজ সোমবার, ১৭ Jun ২০১৯, ১১:০০ অপরাহ্ন

বাংলাদেশ পুলিশে বিশাল নিয়োগ

বাংলাদেশ পুলিশে বিশাল নিয়োগ

Bangladesh Police

  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    9
    Shares

বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। এতে প্রায় দশ হাজার কনস্টেবল নিয়োগ দেওয়া হবে। এ–সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি পুলিশের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬ হাজার ৮০০ জন পুরুষ ও ২ হাজার ৮৮০ জন নারীকে কনস্টেবল মিলে মোট ৯৬৮০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

শিক্ষাগত যোগ্যতা : এসএসসি বা সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীদের ন্যূনতম জিপিএ থাকতে হবে ২ দশমিক ৫ অথবা সমমান।

শারীরিক যোগ্যতা : পুরুষ প্রার্থীদের জন্য উচ্চতা ৫ ফুট ৬ ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩১ ইঞ্চি ও স্ফীত অবস্থায় ৩৩ ইঞ্চি হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুরুষ প্রার্থীদের জন্য উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি ও স্ফীত অবস্থায় ৩১ ইঞ্চি হতে হবে। এ ছাড়া ক্ষুদ্র জাতিসত্তার কোটায় পুরুষ প্রার্থীদের জন্য উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি এবং বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩১ ইঞ্চি ও স্ফীত অবস্থায় ৩৩ ইঞ্চি হতে হবে। নারী প্রার্থীদের জন্য সব কোটায় উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চি হতে হবে। প্রার্থীদের ওজন উচ্চতা ও বয়স অনুযায়ী নির্ধারণ করা হবে।

বয়স : আবেদনের জন্য প্রার্থীদের বয়স ১ জুন ২০১৯ তারিখে ১৮ থেকে ২০ বছর (জন্মতারিখ সর্বনিম্ন ২ জুন ২০০১ হতে সর্বোচ্চ ২ জুন ১৯৯৯) হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা/শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ক্ষেত্রে ১ জুন ২০১৯ তারিখে বয়স ১৮ হতে ৩২ বছর(জন্মতারিখ সর্বনিম্ন ২ জুন ২০০১ হতে সর্বোচ্চ ২ জুন ১৯৮৭) পর্যন্ত হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানের সন্তানদের ক্ষেত্রে ১ জুন ২০১৯ তারিখে বয়স ১৮ হতে ২০ বছর (জন্মতারিখ সর্বনিম্ন ২ জুন ২০০১ হতে সর্বোচ্চ ২ জুন ১৯৯৯ পর্যন্ত হতে হবে। বয়স গণনার ক্ষেত্রে শুধু এসএসসি/সমমানের সার্টিফিকেটে উল্লেখিত জন্মতারিখই চূড়ান্ত বলে গণ্য হবে। শুধু অবিবাহিত নারী ও পুরুষেরা আবেদন করতে পারবেন।

কোটাপদ্ধতি : প্রার্থী নির্বাচনে সরকার কর্তৃক জারিকৃত বিদ্যমান কোটাপদ্ধতি (সাধারণ, মুক্তিযোদ্ধা, আনসার ও ভিডিপি, এতিম, পোষ্য এবং ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ইত্যাদি কোটা) অনুসরণ করা হবে।

নির্বাচনপদ্ধতি : (ক) প্রতিটি জেলায় নিয়োগযোগ্য প্রকৃত শূন্য পদে কোটার অনুকূলে লিখিত, মনস্তাত্ত্বিক ও মৌখিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম অনুযায়ী প্রার্থীদের প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত করা হবে।

(খ) পুলিশ ভেরিফিকেশন সন্তোষজনক ও স্বাস্থ্য পরীক্ষায় যোগ্য বিবেচিত হলে প্রার্থীকে প্রশিক্ষণের জন্য প্রাথমিকভাবে মনোনীত করা হবে। উল্লেখ্য, পুলিশ ভেরিফিকেশন ফরমে কোন তথ্য গোপন অথবা মিথ্যা তথ্য প্রদান করা হলে চূড়ান্ত প্রশিক্ষণের জন্য মনোনয়ন প্রদান করা হবে না।

বেতন ও ভাতা : প্রশিক্ষণ সাফল্যের সঙ্গে সমাপ্তির পর ২০১৫ সালের জাতীয় বেতন স্কেলের ১৭তম গ্রেড অনুযায়ী নিয়োগপ্রাপ্তদের বেতন দেওয়া হবে সর্বসাকল্যে ৯ হাজার থেকে ২১ হাজার ৮০০ টাকা। এ ছাড়া ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা দেওয়া হবে।

আবেদন প্রক্রিয়া : আগ্রহী প্রার্থীদের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত তারিখে সংশ্লিষ্ট জেলার পুলিশ লাইনস মাঠে হাজির থাকতে হবে। আবেদনের সময় বিজ্ঞাপনে উল্লেখিত কাগজপত্র সঙ্গে আনতে হবে।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

কে এই যুবক? টিস্যু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছে



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com