আজ মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০১৯, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

বিকেলে মুখোমুখি আফগানিস্তান-বাংলাদেশ

বিকেলে মুখোমুখি আফগানিস্তান-বাংলাদেশ

  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
    3
    Shares

এশিয়া কাপে সুপার ফোর পর্বের নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলতে নামবে বাংলাদেশ। আজ রবিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেলে সাড়ে ৫টায়। সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি এবং জিটিভি।

এশিয়া কাপের সুপার ফোরের শুরুটা ভালো হয়নি মাশরাফিদের। প্রথম ম্যাচেই ভারতের কাছে হেরে সুপার ফোর শুরু করে টাইগাররা। আজ বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে মাঠে নামছে। প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান। এই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই বাংলাদেশের সামনে। হারলেই ফাইনালে উঠার স্বপ্ন প্রায় শেষ হয়ে যাবে বাংলাদেশের।

একই অবস্থা আফগানিস্তানেরও। সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে হেরে শুরু করে দলটি। বাংলাদেশের বিপক্ষে হারলেই ফাইনালে উঠার পথ প্রায় বন্ধ হয়ে যাবে আফগানদের। টিকে থাকতে হলে এই ম্যাচে জয় দরকার দু’টি দলেরই। এবারের এশিয়া কাপে একই গ্রুপে ছিল বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। ইতোমধ্যে নিজেদের সামর্থ্যের পরিচয় দিয়ে দু’টি দলই সুপার ফোরে উঠেছে। অবশ্য গ্রুপ পর্বের ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে পরাজিত হয় টাইগাররা। গ্রুপ পর্বের ঐ ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট হাতে নেমে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৫৫ রান করে আফগানিস্তান।

২৫৬ রানের টার্গেটে ব্যাট হাতে নেমে যাওয়া ব্যর্থতার ষোলোকলা পূর্ণ করে বাংলাদেশ। মাত্র ১১৯ রানেই গুটিয়ে যায় তারা। আর আফগান জয় পায় ১৩৬ রানে। তাই আফগানদের কাছে তৃতীয়বারের মত হারের লজ্জা পায় বাংলাদেশ। ফলে ওয়ানডে ক্রিকেটে ছয়বার মুখোমুখিতে তিনবার করে জয় পেয়েছে দু’দল। শ্রীলংকাকে ১৩৭ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে এবারের আসরে যাত্রা শুরু করেছিল টাইগাররা। এরপর গ্রুপ পর্বে আফগানিস্তানের কাছে ও সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে হারে টাইগাররা। তাই শুরুর গৌরব ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ।

পাকিস্তানের কাছে সুপার ফোর ম্যাচে হেরেছে আফগানিস্তান। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচ তাদের আত্মবিশ্বাসের দিকে কিছুটা এগিয়ে রাখতে পারে। কারণ শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ দু’দলকে হারিয়ে তারা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আসে সুপার ফোরে। বিশেষ করে শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে তা এই ম্যাচেও কাজে লাগাতে চাইবে আফগানরা।

প্রথম পাওয়ার প্লে-তে মোহাম্মদ শাহজাদ ও ইহসানুল্লাহ ভালো খেলেন। সেই সুযোগ তারা কাজে লাগাতে চাইবেন। তাদের মিডল অর্ডারই মূল কাজটি করে দেয়। আর শেষ ১০ ওভারে স্কোর যতোটা বাড়ানো যায় সেই চেষ্টা তারা করবেন। শেষ দুই ম্যাচে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ১০ ওভারে যথাক্রমে ৯৭ ও ৮৭ রান করে দলটি। বোলিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখছে তাদের তিন স্পিনার মুজিব উর রহমান, রাশিদ খান ও মোহাম্মদ নবী। এই ম্যাচেও তারা থাকবেন বোলারদের জন্য আতঙ্ক হিসেবে।

বাংলাদেশের জন্য এই ম্যাচও চ্যালেঞ্জিং। কারণ ইনজুরির কারণে দলের বাইরে আছেন দেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ওপেনার তামিম ইকবাল। তাই ওপেনিংয়ে খেলছেন লিটন দাস ও নাজমুল হাসান শান্ত। গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থাকছে মোসাদ্দেক হোসেনের কাঁধে। নির্বাচকদের তালিকায় আছেন সৌম্য সরকার ও ইমরুল কায়েস। তবে মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ থাকায় কিছুটা স্বস্তি থাকছে।

এই ম্যাচ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা বলেছেন, আমরা পরপর দু’টি ম্যাচে ব্যর্থ হয়েছি। দ্রুত উইকেট পতনে সবাই উদ্বিগ্ন। আমরা সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে ওই অবস্থা থেকে উত্তোরণের চেষ্টা করেছি, কিন্তু সম্ভব হয়নি। আমাদের অবশ্য আফগানিস্তান এবং ভারতের বিপক্ষে বিশ্বমানের বোলারদের বিপক্ষে খেলতে হয়েছে। আমাদেরকে অবশ্যই ভালো কিছু পার্টনারশিপ গড়ে তুলতে হবে। কেননা আমরা প্রথম ৩০ ওভারে সেভাবে লড়তে পারিনি।

বাংলাদেশ দল :
মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, মোহাম্মদ মিথুন, লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন/ আবু হায়দার রনি, মুস্তাফিজুর রহমান, নাজমুল হোসেন শান্ত/সৌম্য সরকার ও মোমিনুল হক।

আফগানিস্তান দল :
আসগর আফগান (অধিনায়ক), মোহাম্মদ শাহজাদ, ইহসানুল্লাহ জানাত, জাবেদ আহমাদি, রহমত শাহ, হাশমত শহিদি, মোহাম্মদ নবী, রাশিদ খান, নজিবুল্লাহ জাদরান, মুজিব উর রহমান, আফতাব আলম, সামিউল্লাহ সিনওয়ারি, মুনির আহমেদ কাকার, সৈয়দ আহমদ শেরজাদ, শরাফুদিন আশরাফ ও ওয়াফাদার।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

কে এই যুবক? টিস্যু দিয়ে বঙ্গবন্ধুর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছে



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com