আজ শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, ০৮:২৯ অপরাহ্ন

১ হাজারেরও বেশি দোকানে কুকুরের মাংস!

১ হাজারেরও বেশি দোকানে কুকুরের মাংস!

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অন্য প্রাণীর চেয়েও কুকুরের মাংস ভিয়েতনামবাসীর ডিশে অধিক জনপ্রিয়। বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, শুধু দেশটির রাজধানী হ্যানয়েই অন্তত এক হাজারেও বেশি দোকানে কুকুরের মাংস পাওয়া যায়।

তবে নাগরিকদের কুকুরের মাংস খাওয়া থেকে বিরত থাকতে আহ্বান করেছে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয় কর্তৃপক্ষ। বুধবার এক নির্দেশনায় তারা জানায়, এতে শহরের ভাবমূর্তি নষ্ট হয় এবং জলাতঙ্কের মতো গুরুতর রোগ হবার আশঙ্কাও থাকে।

হ্যানয় পিপলস কমিটি জানায়, সভ্য ও আধুনিক রাজধানী হিসেবে হ্যানয়ের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করে তুলতে আমাদের অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে। কুকুরের পাশাপাশি বিড়ালের মাংস খাওয়া থেকেও নগরবাসীকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছে পিপলস কমিটি। কুকুরের চেয়েও বিড়ালের মাংস কম জনপ্রিয় হলেও দোকানে এটি সহজেই মেলে। মূলত নিষ্ঠুরভাবে এসব প্রাণীদের মারা হয় বলে বিড়ালের ব্যাপারেও আপত্তি জানান তারা। এক পরিসংখ্যান মতে, প্রায় ৪ লাখ ৯০ হাজার কুকুর ও বিড়ালের বাস হ্যানয়ে, যার অধিকাংশই পোষা ও গৃহপালিত।

বিবিসির ভিয়েতনাম সার্ভিসের সাংবাদিক লিন এনগুয়েন জানান, সম্প্রতি ভিয়েতনামের মানুষ কুকুরের মাংস খাওয়া থেকে বিরত থাকতে সচেতন হচ্ছে। এরপরেও এ খাদ্যাভ্যাস এতই প্রচলিত যে, চাইলেও মানুষ ছাড়তে পারছে না। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক মানুষ নগর কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। তবে সেখানেও এ নিয়ে তর্ক-বিতর্ক ও সমালোচনায় লিপ্ত হয়েছে অনেকে। এতেই বুঝা যাচ্ছে, ভিয়েতনামের মানুষ চাইলেও সহজে কুকুরের মাংস খাওয়া ছাড়তে পারবে না।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন




Leave a Reply

জনসম্মুখে পুরুষ নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

Nobobarta on Twitter

© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com