ইরানের হামলার পর যা বললেন ট্রাম্প | Nobobarta
Manobata

আজ বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২০, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন

ইরানের হামলার পর যা বললেন ট্রাম্প

ইরানের হামলার পর যা বললেন ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি:গুগল

ইরাকে মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের হামলার বিষয়ে মুখ খুলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার ভোরে হামলার কিছুক্ষণ পরই ট্রাম্প সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে একটি টুইট করেন।

টুইটে তিনি লেখেন, সব ঠিক আছে! ইরাকে দুটি সেনাঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ইরান। এখন হতাহত এবং ক্ষয়ক্ষতির হিসাব করা হবে। এখন পর্যন্ত সবকিছু ভালোই চলছে। আমাদের আছে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী এবং সেরা অস্ত্রে সজ্জিত সেনাবাহিনী। বুধবার সকালে আমি একটি বিবৃতি দেব। এর আগে বুধবার ভোরে এক ঘণ্টার ব্যবধানে ইরাকে দুটি মার্কিন ঘাঁটিতে অন্তত এক ডজন ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। ইরানের ভূমি থেকে ইসলামি রেভল্যুশনারি গার্ডের (আইআরজিসি) সদস্যরা ক্ষেপণাস্ত্রগুলো ছোড়ে বলে পার্সটুডের খবরে বলা হয়েছে।

প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপাত্র জোনাথন হফম্যান বলেছেন, এটি স্পষ্ট যে এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলি ইরান থেকে চালানো হয়েছিল। হামলার পরপরই ইরান এবং যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বিবৃতি দেয়া হয়। পেন্টাগন জানায়, ইরবিল ও আল-আসাদ বিমান ঘাঁটিতে মিসাইল হামলা হয়েছে। ইরান থেকেই মিসাইলগুলো নিক্ষেপ করা হয়েছে। ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, দেশটির শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে ড্রোন হামলায় হত্যার জবাব হিসাবে এই হামলা করা হয়েছে।

আইআরজিসি এক বিবৃতিতে বলেছে, লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানির ওপর আগ্রাসী মার্কিন সেনাদের সন্ত্রাসী ও অপরাধমূলক হামলার কঠোর জবাব দিতে এইন আল-আসাদ ঘাঁটিকে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেয়া হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার কাপুরুষোচিত পদক্ষেপের ‘কঠোর প্রতিশোধ’ নেয়ার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে। আজ (বুধবার) ভোরে ইরাকে অবস্থিত মার্কিন বিমানঘাঁটি ‘এইন আল-আসাদ’র ওপর ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য অসংখ্য ক্ষেপণাস্ত্র বর্ষণ করে ঘাঁটিটিতে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। তারা অভিযানটির নাম দিয়েছে ‘শহীদ সোলাইমানি’।


Leave a Reply



Nobobarta © 2020। about Contact PolicyAdvertisingOur Family DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com