হতাশা হোক অনুপ্রেরণা – Nobobarta

আজ বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:৪৮ অপরাহ্ন

হতাশা হোক অনুপ্রেরণা

হতাশা হোক অনুপ্রেরণা

হতাশা এমন একটি জিনিস যা একটি মানুষকে ভিতর থেকে নিস্তেজ করে দেয়, তার কাজের প্রতি আগ্রহ,ঘুম ক্ষুধা কমে যায়, মন খারাপ করে থাকে এবং স্বাস্থের পরিবর্তন ঘটে যায়, হতাশা একবার গভীর ভাবে ভেতরে প্রবেশ করলে তা থেকে বেরিয়ে আসা কঠিন হয়ে পড়ে, হতাশা কে কখনো প্রশ্রয় না দিয়ে বরং তা থেকে কিভাবে বেরিয়ে আসবে সেই উপায় খুঁজে বের করা জরুরী।

কেন এই হতাশা?
হতাশার সৃষ্টি হয় মূলত কিছু না পাওয়া থেকে, একজন মানুষ যখন তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়, তার চাওয়া পাওয়া পূরণ না করতে পারে তখন ভিতরে প্রবেশ করে হতাশা,
পারিবারিক সমস্যা, স্বামী- স্ত্রীর মধ্যে পারস্পরিক বোঝাপড়া ,বন্ধু বা সহপাঠীদের সাথে খারাপ সম্পর্ক, প্রিয় মানুষের চলে যাওয়া, পড়াশুনায় ভালো না করা, চাকুরী না পাওয়া, বন্ধুদের কাছে নিজেকে গুরুত্বহীন মনে হওয়া ইত্যাদি কারনে একজন মানুষের মধ্য হতাশা প্রবেশ করতে পারে, যা থেকে বের হয়ে আসতে হলে প্রয়োজন নিজের প্রবল প্রচেষ্টার।
মানুষ তখন নিজেকে গুরুত্বহীন ভাবে উপস্থাপন করে, এ থেকে বের হয়ে আসতে কিছু কাজ তার মেনে চলা জরুরী,

প্রতিটি দিনই নিজের কাছে নতুন একটি চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করুন, ধরুন আজকে একটু নতুন সকাল হলো, এবং আপনি নিজেকে পরবর্তী কাজের জন্য প্রস্তুত করছেন, এমনটি ভাবুন যে আপনার নিকট প্রতিটি দিন একটি নতুন চ্যালেঞ্জ, আজকের দিনটি শুরু থেকে শেষ অবধি আপনার কাজ গুলো যথাযথ ভাবে সম্পন্ন করতে হবে,এবং দিন শেষে যদি আপনি সফল হোন তাহলে আপনি চ্যালেঞ্জ জয়ী, আর এভাবেই নতুন একটি দিন শুরু করুন, এবং নতুন ভাবে নিজেকে প্রস্তুত করে তুলুন।
আপনার সফলতা আপনাকেই নিয়ে আসতে হবে, তার জন্য দরকার কঠোর পরিশ্রম এবং দৃঢ় মনোবল।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ যা আপনাকে হতাশার সময় শক্তি যোগাবে।

বন্ধুদের সময় দিন
প্রিয় কাজে ব্যস্ত থাকুন
ঘুরতে যান কোথাও
ঠিক ভাবে খাবার গ্রহণ করুন
পরিবারকে সময় দিন
খেলা-ধুলা করুন
ব্যায়াম করুন
অলস সময় পার করবেন না
নিজেকে গুছিয়ে চলুন
গান শুনুন

এসব কাজ আপনাকে নিজের মধ্যে থাকতে সাহায্যে করবে, নিজেকে নতুন করতে ভাবতে সাহায্য করবে, মনে রাখবেন যা চলে গিয়েছে বা যা হারিয়েছেন তা মনে করে আফসোস করাটা বোকামি, নিজেকে গড়ে তুলতে হবে নিজের মতো করেই, একটি কথা মনে রাখতে হবে যে চলে গেছে বা যা চলে গেছে তার চেয়ে ভালো কিছু আমাদের অর্জন করতেই হবে। নিজের মনের কথা শুনতে হবে এবং এগিয়ে যেতে হবে।
একটি কথা প্রচলিত আছে,
”আবেগ আপনাকে হয় সাফল্যের তীর্থ স্থানে নিয়ে যাবে,
নাহলে আপনাকে মাটিতে মিশিয়ে দিবে”

কোন কিছু হারানো থেকে শিক্ষা নিয়ে তারচেয়েও ভালো কিছু পাওয়ার জন্য ছুটে যেতে হবে
হারিয়ে যাওয়াটা একটি শক্তি হিসেবে নিতে হবে, ” করতে হবেই ” এই ধরনের মনোবল নিজের মধ্যে ধারণ করতে হবে, দেখিয়ে দিতে হবে আপনিও পারেন সফল হতে।
কিন্তু হতাশায় ডুবে নিজের সব বিলীন করে দিয়ে, নিজেকে আরো নিস্তেজ করে দিয়ে, ”আমাকে দিয়ে আর হবেনা ” এই ধরনের ধারণা ত্যাগ না করতে পারলে নিজেকে হারিয়ে ফেলতে হবে, ঘুরে দাঁড়ানো কখনো সম্ভব হবেনা। নিজের ভিতরের স্বত্ব টাকে বের করে আনতে না পারলে সফলতা অধরাই থেকে যাবে। তাই হতাশা ভুলে নিজেকে নিজের জন্য পরিবারের জন্য হলেও গড়ে তুলতে হবে সঠিক ভাবে।

হতাশা সফলতার পথে প্রথম এবং প্রধান বাধা, এই বাধা জয় করে উঠতে না পারলে কখনো সফলতা পাওয়া সম্ভব নয়। পিছনের সকল না পাওয়া, হারিয়ে ফেলা, তিক্ততা ভরা অতীত ভুলে নিজেকে নতুন করে শুরু করেই কেবল মাত্র সফলতা এবং অতীতের না পাওয়ার ব্যথার প্রতি সুবিচার করা হবে।


কাওছার আহমেদ রোহান
শিক্ষার্থী, ইউল্যাব


Leave a Reply