ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলো দুইদিন ব্যাপী ১ম বাংলা আদি সংস্কৃতি উৎসব ২০২০ | Nobobarta

ঢাকা   আজ মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০, ১০:১৭ অপরাহ্ন

ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলো দুইদিন ব্যাপী ১ম বাংলা আদি সংস্কৃতি উৎসব ২০২০

ঢাকায় অনুষ্ঠিত হলো দুইদিন ব্যাপী ১ম বাংলা আদি সংস্কৃতি উৎসব ২০২০

Rudra Amin Books

ঢাকা ফেস্টিভ্যাল এর আয়োজনে, দিশারী (ভারত) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের “থিয়েটার এবং পারর্ফমেন্স স্টাডিজ” বিভাগের পৃষ্ঠপোষকতায় ১২ হতে ১৩ জানুয়ারী দুই দিন ব্যাপী বাংলার আদি সংস্কৃতি উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট-মন্ডল অডিটরিয়ামে।উৎসবের প্রথম দিন, ১২ জানুয়ারী, রবিবার, বিকাল ৪ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটমন্ডল অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানের শুরুতেই ‍‍”মুজিব বর্ষ ২০২০-২১” কে উৎসবটি উৎসর্গ করা হয়। উৎসবের মূল আকর্ষন ছিলো মধ্যযুগের (১৩ শতকের) কাশ্মীরি বাউল সাধক লালেশ্বরী ( লালী ডেড) কে নিয়ে বাংলায় প্রথম পরিবেশনা।প্রথম অধিবেশনে, দুই দেশের জাতীয় সংগীত এর মধ্য দিয়ে উৎসবের সূচনা হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সূচনা বক্তব্য দেন উৎসবটির প্রধান সমন্বয়ক মাকসুদা সুলতানা ঐক্য। ভারতের পক্ষ থেকে “দিশারী” প্রতিষ্ঠাতা ও কর্ণধার শ্রীমতি মানসী দাস বক্তব্য দেন এবং ভিডিও প্রদর্শনে মাধ্যমে দিশারীর শিল্প ও শিল্পী চর্চার বিষয়গুলী তুলে ধরেন। উৎসবে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন, উৎসবের বিশেষ অতিথি কথা সাহিত্যিক, গীতিকার এবং অবসর প্রাপ্ত ডেপুটি সেক্রেটারি এস এম শওকত ওসমান।দ্বিতীয় অধিবেশনে, কাশ্মীরি বাউল সাধক লালেশ্বরী ( লালী ডেড) কে গবেষণা পত্র তুলে ধরেন এবং আলোচনা করেন কলকাতার জাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, গবেষক শমীক ঘোষ। বাংলার অরিজিনাল পারফর্মেন্স আর্টস বিষয়ে গবেষনাপত্র তুলে ধরেন গবেষক মনজুরুল ইসলাম মেঘ।তৃতীয় অধিবেশনে, সম্মাননা প্রদান করা হয় অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথিবৃন্দকে। সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের “থিয়েটার এবং পারফমেন্স আর্টস” বিভাগীয় প্রধান ড. আহমেদুল কবীর, কথাসাহিত্যিক, গীতিকার, অবসর প্রাপ্ত ডেপুটি সেক্রেটারি এস এম শওকত ওসমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ইসরাফীল শাহিন, ভারতের আসামে নিযুক্ত এ্যসিস্টান্ট হাই কমিশন অব বাংলাদেশ ড. শাহ্ মোহাম্মদ তানভীর মনসুর, বিশিষ্ট অভিনেতা টুটুল চৌধুরী, ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিটি কমিশন, বাংলাদেশ এর অ্যাম্বাসেডর দেওয়ান বেদারুল ইসলাম, মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মের চেয়ারম্যান ও মুক্তিযুদ্ধ সংসদ সন্তান কমান্ড এর সভাপতি মেহেদী হাসান, ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিটি কমিশন, বাংলাদেশ এর পরিচালক মোঃ খোরশেদ আলম। সম্মাননা প্রাপ্ত বিশেষ অতিথিরা সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করেন।চতুর্থ অধিবেশনে, ছিলো প্যানেল ডিসকাশন। উপস্থাপিত কী-নোটের উপর আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব, কথাসাহিত্যিক নূরুদ্দিন জাহাঙ্গীর। বিশিষ্ট সাংবাদিক, কবি মাকসুদা সুলতানা ঐক্য’র সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের সহকারি অধ্যাপক ড. সাঈম রানা এবং লালন গবেষক ড. আবু ইসাহাক হোসেন ।পঞ্চম সেশনে, ভারত সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা শ্রীমতি মানসী দাস এর পরিচালনায় পরিবেশিত হয় লালন, লালী ও রবীন্দ্র সংগীতের উপরে শাস্ত্রীয় নৃত্য। মানসী দাসের সাথে নৃত্য পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের “থিয়েটার এন্ড পারফর্মেন্স স্টাডিজ” বিভাগরে শিক্ষার্থীরা। হলভর্তি দর্শকের কানায় কানায় পরিপূর্ণ উৎসবে একের পর এক পরিবেশনা চলতে থাকে। বাংলার পিঠা পরিবেশনার মধ্য দিয়ে উৎসবের বিরতী করা হয়।ষষ্ঠ সেশনে, চর্যাপদ থেকে আবৃতি করেন বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী মাহনুর জারীন শর্মি। এই সেশনে ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিটি কমিশনের পক্ষ থেকে আয়োজকদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। ক্রেস্ট তুলে দেন ওয়ার্ল্ড হিউম্যানিটি কমিশন, বাংলাদেশ এর অ্যাম্বাসেডর দেওয়ান বেদারুল ইসলাম । ভারতের দিশারীও শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করেন অতিথিদের, স্মারক তুলে দেন মানসী দাস ও অধ্যাপক শমীক ঘোষ।সপ্তম ও দিনের শেষ সেশনে, লালন ও লালী সংগীত পরিবেশন করে সুরের মুর্চনায় দর্শক শ্রোতাদের মুগ্ধ করে তুলেন বাউল শিল্পী প্রদীপ অধিকারী, বাউল শিল্পী মৌসুমী বালা, লালী সংগীত শিল্পী ঐক্য জিৎ রায়, বাউল শিল্পী লামিয়া ঐশ্বর্য, লালন সংগীত শিল্পী নাজমুল হাসান প্রভাত, শিল্পী ব্রজেন্দ্র রায় । উৎসব পরিচালক মনজুরুল ইসলাম মেঘ সবাইকে ধন্যবাদ দিয়ে প্রথম দিনের অধিবেশন সমাপ্ত করেন এবং এই উৎসব প্রতিবছর অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান।উৎসবের দ্বিতীয় দিন ছিলো বঙ্গবন্ধুকে নিবেদন। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে বিদেশী অতিথিদের নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয় এবং বঙ্গবন্ধু জাদুঘর পরিদর্শন করা হয়। সেখানে গনমাধ্যমে লালী সংগীত তুলে ধরা হয়। এই সময় উপস্থিত ছিলেন ভারত থেকে আগত লালী সংগীত গবেষক অধ্যাপক শমীক ঘোস ও মানসী দাস। ১ম বাংলা আদি সংস্কৃতি উৎসবের প্রধান সমন্বয়ক মাকসুদা সুলতান ঐক্য, সমন্বয়ক মেহেদী হাসান, সমন্বয়ক রাশেদ শিকদার ও উৎসব পরিচালক মনজুরুল ইসলাম মেঘ।সন্ধ্যায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে উৎসবের সমাপনী করা হয় এবং ঘোষনা করা হয় আগামি ২০২১ সালের ১২ থেকে ১৫ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হবে ২য় বাংলা আদি সংস্কৃতি উৎসব ২০২১।


Leave a Reply

নববার্তা ফেসবুক পেজে আলোচিত সংবাদ

১৪ দলের নতুন মুখপাত্র প্রত্যাশা ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর১৪ দলের নতুন মুখপাত্র প্রত্যাশা ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর3K Total Shares
রেড জোনের আওতায় মানিকগঞ্জ জেলারেড জোনের আওতায় মানিকগঞ্জ জেলা2K Total Shares
ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তারসহ  করোনায় আক্রান্ত ১০ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তারসহ করোনায় আক্রান্ত ১০2K Total Shares
ঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন অধ্যক্ষ হাবিবঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন অধ্যক্ষ হাবিব2K Total Shares
ঘিওরের ইউএনও আইরিন আক্তারের করোনা জয়ের গল্পঘিওরের ইউএনও আইরিন আক্তারের করোনা জয়ের গল্প1K Total Shares
মানিকগঞ্জে বিএনপির অসহায় নেতাকর্মীদের মাঝে তারেক রহমানের ঈদ উপহার তুলে দিলেন – এস এ জিন্নাহ কবিরমানিকগঞ্জে বিএনপির অসহায় নেতাকর্মীদের মাঝে তারেক রহমানের ঈদ উপহার তুলে দিলেন – এস এ জিন্নাহ কবির1K Total Shares
ব্রীজ ভেঙে ভোগান্তিতে হিজুলিয়া গ্রামবাসীব্রীজ ভেঙে ভোগান্তিতে হিজুলিয়া গ্রামবাসী1K Total Shares
মানিকগঞ্জে পৌর বিএনপির নেতাদের হাতে ঈদ উপহার শাড়ি লুঙ্গি তুলে দিলেন এ্যাডঃ জামিল ও এস এ জিন্নাহমানিকগঞ্জে পৌর বিএনপির নেতাদের হাতে ঈদ উপহার শাড়ি লুঙ্গি তুলে দিলেন এ্যাডঃ জামিল ও এস এ জিন্নাহ1K Total Shares
বেসরকারি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের করোনা প্রটোকলের বাইরে রাখা হটকারি সিদ্ধান্তবেসরকারি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের করোনা প্রটোকলের বাইরে রাখা হটকারি সিদ্ধান্ত899 Total Shares
ঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন মোঃ রবিউল আলম প্রধানঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন মোঃ রবিউল আলম প্রধান840 Total Shares



Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta