দুমকিতে ইউনিয়ন ভূমি অফিস ঘুষ-দূর্ণীতির আখড়া | Nobobarta

ঢাকা   আজ বুধবার, ৮ জুলাই ২০২০, ৯:৩০ পূর্বাহ্ন

দুমকিতে ইউনিয়ন ভূমি অফিস ঘুষ-দূর্ণীতির আখড়া

দুমকিতে ইউনিয়ন ভূমি অফিস ঘুষ-দূর্ণীতির আখড়া

Rudra Amin Books

জসিম উদ্দিন, দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর দুমকিতে ইউনিয়ন ভূমি অফিস যেন দূর্ণীরি আখড়ায় পরিনত হয়েছে। প্রকাশ্যে চলছে ঘুষের দেন-দরবার। টাকা ছাড়া সৌজন্য আলোচনাও করতে নারাজ অফিসের কর্মকর্তারা। খাজনা পরিশোধসহ জমিজমা সংক্রান্ত জরুরী প্রয়োজনে ভূমি অফিসে আগত সেবা প্রত্যাশীরা হরহামেশাই হচ্ছেন হয়রানীর শিকার। সম্প্রতি লেবুখালী ইউনিয়ন ভূমি (তহশিল) অফিসে জমির খাজনা পরিশোধ করতে আসা ভুক্তভোগীরা ওই অভিযোগ করেছেন।

লেবুখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা মো: সহিদুল ইসলাম, জাকির হোসেন মোল্লা, শ্রী অজিত কুমার দাস অভিযোগ করে বলেন, লেবুখালী মৌজায় তাদের স্ব স্ব রেকর্ডিও সম্পত্তির খাজনা পরিশোধের জন্য তারা গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় তহশিল অফিসে আসেন। সহকারী তহশিলদার শান্তা আক্তারের কাছে খাজনা পরিশোধের জন্য গেলে তিনি অন্তত: দেড় ঘন্টা বসিয়ে রেখে দাখিলা দেওয়া যাবেনা বলে সাফ জানিয়ে দেন।

পরিচিত জনদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা চাওয়ার বিপত্তি এড়াতেই তিনি দাখিলা না দিয়ে বরং অযথা দেড়-দুঘন্টা বসিয়ে রাখেন এবং আকার ইঙ্গিতে বাড়তি টাকা দাবি করেন। বিষয়টি তহশিলদার মো: সেলিম মিয়াকে জানানো হলেও তিনি কোন সুরাহা দেন নি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তহশিল অফিসে আগত কয়েকজন ব্যক্তি বলেন, প্রতিটি দাখিলায় বাড়তি টাকা না দিলে দাখিলা পাওয়া যায় না। এর কয়েকদিন আগে মুরাদিয়া গ্রামের মৃত-আ: রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে মোহাম্মদ নুরুল আমিন অভিযোগ করে জানান, সহকারী তহশিলদার শান্তা আক্তার তার কাছে ১০ টাকার দাখিলায় ১হাজার ৫শ’ টাকা দাবি করেন। বাড়তি টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। বাড়তি টাকার (ঘুষ) দরকষাকষির সময় হাতের মোবাইলে রেকর্ড করার সন্দেহে মোবাইল ফোনটিও ছিনিয়ে নেন। নুরুল আমিন আরও অভিযোগ করে জানান, তার মতো অন্যান্য সেবা প্রত্যাশীরাও কম বেশী হয়রানির শিকার হচ্ছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারী তহশিলদার শান্তা আক্তার অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করে বলেন, অভিযোগকারীদের কাউকে আমি চিনি না বা দেখাও হয়নি। ঘুষ দাবির প্রশ্ন অবান্তর। তিনি আরও বলেন, আজকে (বুধবার) সকালে আমি অফিসে ছিলাম না, ডিসি অফিস হয়ে ১১টায় এসেছি। অফিসে আরও মহিলা কর্মকর্তা ছিল, কার সাথে কথা হয়েছে তা জানি না। যেখানে আমি উপস্থিত নেই সেখানে বাড়তি টাকা বা ঘুষ চাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। নুরুল আমিন নামের এক ব্যক্তির মোবাইল ফোন ছিনিয়ে রাখার প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ওটা একটা ভুল বোজাবুঝি ছিল, ইউএনও স্যার ওই ব্যক্তিকে ডেকে এনে ঘটনাটি মিটমাট করে দিয়েছেন।

দুমকি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শঙ্কর কুমার বিশ্বাস বলেন, মোবাইল রেখে দেয়ার ঘটনাটি মিমাংসা করে দেয়া হয়েছে। বাড়তি টাকা আদায়ের সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পেলে সংশ্ল্ষ্টি কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে কঠর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি ।


Leave a Reply

নববার্তা ফেসবুক পেজে আলোচিত সংবাদ

১৪ দলের নতুন মুখপাত্র প্রত্যাশা ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর১৪ দলের নতুন মুখপাত্র প্রত্যাশা ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর3K Total Shares
রেড জোনের আওতায় মানিকগঞ্জ জেলারেড জোনের আওতায় মানিকগঞ্জ জেলা2K Total Shares
ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তারসহ  করোনায় আক্রান্ত ১০ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তারসহ করোনায় আক্রান্ত ১০2K Total Shares
ঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন অধ্যক্ষ হাবিবঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন অধ্যক্ষ হাবিব2K Total Shares
ঘিওরের ইউএনও আইরিন আক্তারের করোনা জয়ের গল্পঘিওরের ইউএনও আইরিন আক্তারের করোনা জয়ের গল্প1K Total Shares
মানিকগঞ্জে বিএনপির অসহায় নেতাকর্মীদের মাঝে তারেক রহমানের ঈদ উপহার তুলে দিলেন – এস এ জিন্নাহ কবিরমানিকগঞ্জে বিএনপির অসহায় নেতাকর্মীদের মাঝে তারেক রহমানের ঈদ উপহার তুলে দিলেন – এস এ জিন্নাহ কবির1K Total Shares
ব্রীজ ভেঙে ভোগান্তিতে হিজুলিয়া গ্রামবাসীব্রীজ ভেঙে ভোগান্তিতে হিজুলিয়া গ্রামবাসী1K Total Shares
মানিকগঞ্জে পৌর বিএনপির নেতাদের হাতে ঈদ উপহার শাড়ি লুঙ্গি তুলে দিলেন এ্যাডঃ জামিল ও এস এ জিন্নাহমানিকগঞ্জে পৌর বিএনপির নেতাদের হাতে ঈদ উপহার শাড়ি লুঙ্গি তুলে দিলেন এ্যাডঃ জামিল ও এস এ জিন্নাহ1K Total Shares



Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta