সারাদেশ আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ - Nobobarta

আজ মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ০৩:০৬ অপরাহ্ন

সারাদেশ আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

সারাদেশ আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল সারাদেশে। হত্যার সঙ্গে জড়িতদের বিচার চেয়ে সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করছেন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আট দফা দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন তার সহপাঠীরা। এখন তারা বুয়েট শহীদ মিনারে অবস্থান করছেন।

দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যের সামনে গায়েবানা জানাজা শেষে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বুয়েট ক্যাম্পাসে যান ঢাবির শিক্ষার্থীরা। এসময় আবরারের প্রতীকী কফিন বহন করা হয়। মিছিলে অংশ নেন ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর। আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে মহাসড়কে অবস্থান নিলে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেন। এতে সড়কের দুই পাশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আবরার হত্যার প্রতিবাদে সকাল ১০টায় কুমিল্লা নগরীর টাউন হলে বিক্ষোভ মিছিল করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে এক সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। সমাবেশে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাজহারুল ইসলাম হানিফ বলেন, ‘আবরারসহ যত হত্যাকাণ্ড হয়েছে সবগুলোর সুষ্ঠু বিচার নিশ্চিত করতে হবে। বিশ্বজিৎ হত্যার মতো যেন আসামিরা আইনের ফাঁক দিয়ে বের হয়ে না যায়।’

এছাড়া খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিএম কলেজে, রংপুর শহরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের সামনে, নোয়াখালী ও কুষ্টিয়ায় আবরার হত্যার প্রতিবাদ এবং জড়িতদের বিচার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনের খবর পাওয়া গেছে। বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। রবিবার মধ্যরাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের নিচতলা ও দোতলার মাঝামাঝি সিঁড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গতকাল সোমবার বুয়েট ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। ফাহাদ হত্যাকাণ্ডে ১৯ জনকে আসামি করে গতকাল রাতে চকবাজার থানায় মামলা করেছেন তার বাবা বরকতুল্লাহ। এ ঘটনায় তদন্ত কমিটি ও চকবাজার থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এদিকে ওই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বুয়েট শাখার ১১ জন নেতাকর্মীকে স্থায়ী বহিষ্কার করেছে ছাত্রলীগ। ফাহাদের সহপাঠীদের অভিযোগ, ফেনী নদীর পানি বণ্টন ও বন্দর ব্যবহারসহ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বিভিন্ন চুক্তির সমালোচনা করে ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ায় শিবির সন্দেহে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন


Leave a Reply