প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি | Nobobarta

আজ শনিবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৭:২৬মি:

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের (ডিপিই) অধীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। এর মাধ্যমে সাড়ে ৩২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে বলে জানা গেছে। সোমবার (১৯ অক্টোবর) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের নিয়োগ শাখার সহকারী পরিচালক আতিক বিন সাত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে ডিপিই থেকে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রাজস্বখাতভুক্ত ‘সহকারী শিক্ষক’ এর শূন্যপদ এবং জাতীয়করণ করা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পিডিইপি-৪ এর আওতায় প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণির জন্য রাজস্বখাতে সৃষ্ট ‘সহকারী শিক্ষক’ পদে জাতীয় বেতন স্কেল, ২০১৫ এর ১৩তম গ্রেডে অস্থায়ীভাবে নিয়োগ করা হবে। তবে তিন পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবানের প্রার্থীরা এতে আবেদন করতে পারবেন না।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী ২৫ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টা থেকে অনলাইনে আবেদন গ্রহণ শুরু হবে। শেষ হবে ২৪ নভেম্বর রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে। সহকারী শিক্ষকদের বেতন হবে জাতীয় বেতন স্কেল, ২০১৫ এর গ্রেড ১৩ অনুযায়ী ১১০০০-২৬৫৯০ টাকা। বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, প্রার্থীদের বয়স ২০ অক্টোবর পর্যন্ত সর্বনিম্ন ২১ বছর এবং গত ২৫ মার্চ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৩০ বছর। মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে এ বয়সসীমা হবে ২৫ মার্চ পর্যন্ত ৩২ বছর।

শিক্ষাগত যোগ্যতার ক্ষেত্রে যে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দ্বিতীয় শ্রেণি বা সমমানের সিজিপিএ-সহ স্নাতক বা সম্মান বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে। এতদিন এইচএসসি পাসের সনদ থাকা নারীরা প্রাথমিকের শিক্ষক হতে আবেদন করতে পারলেও নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে নারী-পুরুষ উভয় প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা ধরা হয়েছে স্নাতক। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক হতে পুরুষদের পাশাপাশি নারী প্রার্থীদেরও শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক করে গত বছরের এপ্রিলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা, ২০১৯ জারি করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

Rudra Amin Books

প্রাথমিকের ইতিহাসে এটাই হচ্ছে সবচেয়ে বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি। সৃষ্ট পদ এবং শূন্য পদ মিলিয়ে ৩২ হাজার ৫৭৭ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্র জানায়, বর্তমানে দেশে ৬৫ হাজার ৬২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। সর্বশেষ ২০১৮ সালে ১৮ হাজার ১৪৭ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়। নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা পাওয়ার পর প্রতিটি উপজেলা থেকে শূন্য পদের তালিকা নেয়া হয়েছে। সে অনুসারেই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হচ্ছে।

জানা যায়, ২০১৮ সালের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় মৌখিক পরীক্ষা দেন প্রায় ৫৫ হাজার প্রার্থী। তাদের মধ্য থেকে ১৮ হাজার ১৪৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়। চূড়ান্তভাবে উত্তীর্ণ না হওয়া ৩৭ হাজার প্রার্থী প্যানেলের মাধ্যমে তাদের নিয়োগের দাবিতে এখনও রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আন্দোলন করছেন। তবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সাফ জানিয়ে দিয়েছে, প্যানেল করার কোনো সুযোগ নেই। এমনকি ২০১৮ সালের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতেও কোথোয়ও প্যানেলের উল্লেখ ছিল না।

আপনার মতামত লিখুন :


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সংরক্ষণাগার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta