কলকাতার চলচ্চিত্র উৎসবে প্রধান জুরী হলেন মনজুরুল ইসলাম মেঘ | Nobobarta

কলকাতার চলচ্চিত্র উৎসবে প্রধান জুরী হলেন মনজুরুল ইসলাম মেঘ

নববার্তা ডেস্ক : ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশের কলকাতায় অনুষ্টিতব্য ৬ষ্ঠ নেজ ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভালের প্রধান জুরী হয়েছেন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ব্যাক্তিত্ব ও পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে বাংলাদেশ সরকারের অনুদানপ্রাপ্ত চিত্রনাট্যকার, চলচ্চিত্র পরিচালক মনজুরুল ইসলাম মেঘ।

উৎসবের প্রতিষ্ঠাতা,ভারতের বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী, লেখক ও ধ্রপদী চলচ্চিত্র নির্মাতা সুদীপ রঞ্জন সরকার আমন্ত্রণপত্রে উল্লেখ করেন, মনজুরুল ইসলাম মেঘ বয়সে তরুণ, হলেও আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তার অবদান অত্যান্ত গুরুত্ব বহন করে। দক্ষিন এশিয়ার ইনডিপেন্ডেন চলচ্চিত্রের উন্নয়নে তিনি যে অবদান রেখে চলেছেন সেই ধারাবাহিকতা কে বেগবান করার জন্যই নেজ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব কর্তৃপক্ষ মনজুরুল ইসলাম মেঘ কে উৎসবের প্রধান জুরী হিসেবে মনোনয়ন করেছেন।

উৎসবের চেয়ারপারসন রিতা ঝাওয়ার জানান,মনজুরুল ইসলাম মেঘ কে ২০২০ সালে উৎসবে প্রধান জুরী মনোনয়ের আগে ২০১৬ সালে বাংলাদেশী জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত গুনী অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচী উৎসবে পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন। এই উৎসবের মধ্যে দিয়ে দুই দেশের চলচ্চিত্রের নানামুখী উন্নয়ন হবে বলে আমরা আশা করছি।

২০২০ সালে নেজ পরিবার উৎসবটিকে অত্যান্ত গুরুত্ব সহকারে দেখছেন। অস্কার নমিনেশ পাওয়া বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্র এই বার নেজ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রতিযোগিতা করবে। জুরী টিমে সদস্য হিসেবে আরো থাকবেন ইউরোপ -এশিয়ার বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা,সমালোচক ও প্রযোজক। নেজ গ্রুপের সিইও সুমিত মোদক এক ইমেইল বার্তায় তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। নেজ আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের প্রধান জুরী হওয়ায় ইতিমধ্যেই দেশ-বিদেশ থেকে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, জুরী প্যানেল, চলচ্চিত্র সমালোচক, প্রযোজক ও বিশিষ্ট নির্মাতদের কাছে থেকে অভিনন্দন পেয়েছেন বলে জানিয়েছে মনজুরুল ইসলাম মেঘ।

Rudra Amin Books

মনজুরুল ইসলাম মেঘ জানান ইতোপূবে ৫টি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে জুরী হিসেবে বিশ্বমঞ্চে আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পূর্ন ব্যাক্তিত্বদের সাথে জুরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও এই বারই প্রথম কোন উৎসবের প্রধান জুরী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবো। প্রধান জুরী হিসেবে আমাকে সিদ্ধান্ত দিতে হবে, বিষয়টি যেমন এক দিক থেকে আনন্দের অপর দিকে অনেকটা চাপেরও। আমার জুরী টিমে যারা থাকছেন তাদের থেকে আমি বয়সে,অভিজ্ঞতায় তরুন, সেই দিক থেকে আমার অনেক অভিজ্ঞতা হবে বলেই আশা করছি।

উল্লেখ্য, মনজুরুল ইসলাম মেঘ এর আগেও একাধিক আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে জুরী, ডেলিগেট ও কিউরেটর হিসাবে অংশগ্রহণ করেছেন। মনজুরুল ইসলাম মেঘ এর চিত্রনাট্য ও পরিচালনায় নির্মিতব্য “বিলডাকিনি” নামে একটি পূর্নদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ২০১৯-২০ অর্থ বছরে সরকারি অনুদান পেয়েছে। মনজুরুল ইসলাম মেঘ বর্তমানে ব্যাস্ত আছেন বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্য গবেষনায় উল্লেখ্যযোগ্য, বেগম রোকেয়ার বায়োপিক নির্মান, রুহিঙ্গা সমস্যা সমাধান ও ঢাকা সিটির উন্নয়নে একটি ডকুমেন্টারি নির্মানে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

570 Shares
Share570
Tweet
Share
Pin