শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় লুইভিলে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলিকে শেষ বিদায় | Nobobarta

আজ শনিবার, ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৭:৩২মি:

শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় লুইভিলে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলিকে শেষ বিদায়

শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় লুইভিলে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলিকে শেষ বিদায়

শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় লুইভিলে কিংবদন্তি মুষ্টিযোদ্ধা মুহাম্মদ আলিকে শেষ বিদায় জানিয়েছেন চৌদ্দ হাজারের বেশি মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকির লুইভিলে ওই অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের মানুষ অংশ নেন।  এর আগে পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে তাকে দাফন করা হয়। কোরান পাঠ দিয়ে শুরু হয় মুহাম্মদ আলিকে শ্রদ্ধা আর স্মরণের অনুষ্ঠান। এরপর মুসলিম, খৃস্টান, ইহুদিসহ বিভিন্ন ধর্ম ও বর্ণের মানুষ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।
 
তারা বক্তব্যে মুহাম্মদ আলির খেলা, সামাজিক আর রাজনৈতিক অর্জন, শান্তি আর মানবাধিকার অর্জনে তার ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। সবসময় ন্যায় ও নীতির পক্ষে তার শক্ত অবস্থান নেয়ার কথাও সেখানে উঠে আসে।  পঞ্চাশটির বেশি দেশ থেকে মানুষ এই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। মেয়ের স্কুলে এক অনুষ্ঠান থাকায় আলির শেষ বিদায়ে উপস্থিত থাকতে না পারলেও, এক বিবৃতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আলিকে বিশাল, উজ্জ্বল আর তার যুগের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি বলে বর্ণনা করেছেন।
 
এর আগে লুইভিলের রাস্তাগুলোর দুই পাশে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ আলিকে শেষবারের মতো দেখে নেন।  সকাল থেকেই লুইভিলের রাস্তার দুপাশে ছিল ভক্তদের ভিড়। এই শহরেই জন্মগ্রহণ করেন তিনি, বেড়ে উঠেছেন এখানেই। যে বাড়িতে তার জন্ম হয়েছে, যে স্কুলে তিনি পড়েছেন, যেসব এলাকায় তিনি বড় হয়ে উঠেছেন, এসব রাস্তা সামনে দিয়ে তার ফুলে সাজানো কফিন নিয়ে একটি গাড়ি শহরের প্রায় উনিশ কিলোমিটার রাস্তা প্রদক্ষিণ করে।  শুধুমাত্র তার পরিবার আর ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতে কেভ হিলের কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। গত ৩ জুন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ৭৪ বছর বয়সী মুহাম্মদ আলি।

আপনার মতামত লিখুন :


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সংরক্ষণাগার

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  
Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta