সবার আগে আমি তুহিন হত্যার বিচার চাই : লাবু সরকার – Nobobarta

আজ বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কাউখালীতে ৪০ যাত্রীসহ খেয়া ট্রলার ডুবি, পিএসসি পরীক্ষার্থী নিখোঁজ পাকিস্তান থেকে এলো ৮২ টন পেঁয়াজ রহমতপুর ইউনিয়নে ওয়ার্ড আ’লীগের সম্মেলন, সভাপতি সুলতান, সম্পাদক স্বপন তারেক রহমানের জন্মদিনে জাবি ছাত্রদলের দোয়া ও মিলাদ আগৈলঝাড়ায় পেঁয়াজ, চাউল ও লবণ নিয়ে গুজব, ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাসের অভিযান অব্যাহত কাউখালীতে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ পিইসি পরীক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার কবি সুফিয়া কামালের নামানুসারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দীনের জাবির হল খুলে দেওয়াসহ ৭দফা দাবি শিক্ষার্থীদের নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে শুরু হল বুড়ি তিস্তা খনন নলছিটিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মাণের অভিযোগ
সবার আগে আমি তুহিন হত্যার বিচার চাই : লাবু সরকার

সবার আগে আমি তুহিন হত্যার বিচার চাই : লাবু সরকার

তুহিন বুয়েটে পড়েনা, মেধাবী না, ছোট্ট একটা বাচ্চা, একটা ছোট্ট পাখি মাত্র। যে কিনা মায়ের কোল ছেড়ে ধুলোবালি মাড়িয়ে সবেমাত্র হাঁটতে শিখেছে। যার সাথে রাজনৈতিক কোন সম্পর্ক নেই, সম্পর্ক নেই দুনিয়ার তাবৎ কোন কিছুর।

তুহিনকে ছাত্রলীগ বা কোন রাজনৈতিক দলের নেতা মারেনি, তুহিন কোন চুক্তি নিয়ে পোস্টও দেয়নি। সে কারো সমালোচনাও করেনি। সরকার বা বিরোধী দলের পক্ষে বিপক্ষে কোন আন্দোলনও করেনি। তার ছিলোনা কোন রাজনৈতিক পরিচয়। কিন্তু তবুও তাকে মরতেই হলো। প্রশ্ন থেকে যায়, কেন? হয়তোবা এসব কারণেই আমাদের মিডিয়া, সুশীল সমাজ, বিরোধী দল ও ভিন্ন মতের মানুষের মধ্যেও প্রতিবাদের ঝড় উঠেনি। কারো টামলাইনে ধুয়ে দেওয়া হচ্ছেনা তুহিনের খুনিদের ব্যপারে। কিন্তু কেন? তুহিন কী মানুষ নয়?

অথচ তুহিনকে হত্যার কৌশল এযাবৎ সকল বর্বরতাকে হার মানাবে, ফেরাউন সমতুল্য। কিংবা তার থেকেও ভয়ংকর। তবুও আমরা চুপ। কারণ এখানে কোন রাজনীতি নেই, তাই আন্দোলন করেও কোন ফায়দা নেই। যেখানে রাজনীতি নেই, রাজনৈতিক কোন দলকে বা সরকারকে গালি দেওয়ার কোন ইস্যু নেই, তাই এখানে ভিপি নুরের জ্বালাময়ী ভাষণও নেই। এ বিষয়ে নুরুর প্রতিবাদটাও তেমন একটা নেই বললেই চলে। নুরু সাহেব আমরা সবার আগে মানুষ, তারপর রাজনৈতিক পরিচয়। আবরারের মায়ের মতো তুহিনের মায়ের বুকটাও খালি হয়েছে। এখানে ভিন্নতা দেখার কোন অবকাশ নেই। কিন্তু আপনি এ বিষয়ে একদম চুপ কেন? শুধু রাজনৈতিক গন্ধ নেই বলে?

শরীরের অংশগুলো কেটে কেটে হত্যা করা হয়েছে তুহিনকে। এতটুকুন একটা বাচ্চা কিভাবে সহ্য করেছে তা ভাবতেই আমার বুক কেঁপে উঠছে। অথচ এদেশে চেতনাবাজদের এ নিয়ে টু শব্দটি পর্যন্ত নেই। হায়রে রাজনীতি। সব আন্দোলন শুধুই ক্ষমতার জন্য। আবরার বুয়েটে পড়ে বলে আমাদের সুশীল সমাজ ঘুম থেকে জেগে উঠেছিল। হত্যাকারী কোন রাজনৈতিক দলের ছিলো বলে রাস্তা গরম করে ফেলেছিলো। কিন্তু তুহিন হত্যার ব্যপারে সুশীলদের প্রতিবাদের সময় কই? আন্দোলন করতে হলে রাজনীতি লাগবে রাজনীতি।

কেন আমরা কোন রাজনৈতিক ইস্যু ছাড়া আন্দোলন করতে পারিনা? আমরা মানুষ হিসেবে কেন আগে ভাবতে পারিনা সব অন্যায়ের চরিত্র এক, সেটা অপরাধ। কেন একটা ইস্যু লাগবে আন্দোলনের জন্য? বিচার চাওয়ার জন্য? সব অপরাধকে কেন সমান করে ভাবতে পারিনা? শুধু সরকারকে উৎখাত করতে হবে বলে? সরকারের আগে আপনাদের উৎখাত উচিত।

সরকারের ভুল নেই তা বলছিনা। অবশ্যই তাদের ব্যর্থতা আছে। যেমন ব্যর্থতা আছে আমাদের। আমাদের ব্যর্থতা হলো আমরা মানুষ হতে পারছিনা। আমাদের মনুষ্যত্ব পঁচে গেছে। আমরা নর্দমার কীট হয়ে গেছি। প্রতিটা ব্যর্থতায় সরকারের যেমন দায় থেকে যায়, অনুরূপ আমাদেরও দায় থেকে যায়। সরকারের উপর সব দোষ চাপিয়ে দিয়ে নিজেকে সাধু ভাবার চিন্তাচেতনা পরিবর্তন করতে হবে। এদেশে বাস করলে এদেশের প্রতি দায়িত্ব আপনারও সরকার থেকে কোন অংশেই কমনা। অপরাধ অপরাধই। তার ভিন্ন কোন পরিচয় নেই। অপরাধ সব অবস্থাতেই অপরাধ। একটা প্রাণের অবক্ষয় যখানেই হবে, যার হাতেই হবে, তার সর্বোচ্চ শাস্তি দাবী করি, সব হত্যার বিচার চাই।


Leave a Reply