কুল বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ পেল নোবিপ্রবির নাজমুন নাহার বিউটি | Nobobarta

আজ রবিবার, ৩১ মে ২০২০, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

কুল বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ পেল নোবিপ্রবির নাজমুন নাহার বিউটি

কুল বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ পেল নোবিপ্রবির নাজমুন নাহার বিউটি

নাজমুন নাহার বিউটি
নাজমুন নাহার বিউটি

Rudra Amin Books

আব্দুর রহিম নোবিপ্রবি প্রতিনিধি : নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর ও বাংলাদেশের সাবেক দ্রুত মানবী নাজমুন নাহার বিউটিকে কুল বিএসপিএ স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ সম্মাননা পুরষ্কারে ভূষিত করা হয়।

৬ এপ্রিল (শনিবার) রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে বিজয়ীদের হাতে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক,বিশেষ অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল,স্কয়ার টয়লেট্রিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও অাবাহনী লিমমিটেডের পরিচালক অঞ্জন চৌধুরী।

প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও ঘোষণা করা হয় কুল-বিএসপিএ অ্যাওয়ার্ড ২০১৮ বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ, সংগঠক, পৃষ্ঠপোষক, কোচদের তালিকা। তালিকায় ছিলেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) শরীরচর্চা শিক্ষা বিভাগের ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর ও বাংলাদেশের সাবেক দ্রুততম মানবী নাজমুন নাহার বিউটি।
নাজমুল নাহার বিউটি অ্যাথলেটিকস ট্র্যাকের এক বিশাল ঝড়, কোন প্রতিদ্বন্দ্বীই থামাতে পারতো না তাকে। ২০০৫ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত টানা ৯ বছর দেশের দ্রুততম মানবী ছিলেন। জাতীয় মিট, সামার মিট ও বাংলাদেশ গেমস মিলিয়ে ১০০ মিটারে ২২ টি স্বর্ণপদক জিতেছেন। সব মিলি ঘরোয়া দেশের বিভিন্ন আসরে তার স্বর্ণ পদকের সংখ্যা ৭৪ টি। আন্তর্জাতিক আসরগুলোর মধ্যে তার সর্বোচ্চ সাফল্য ২০০৪ সালে ইসলামাবাদ সাফ গেমসে ৪০০ মিটার ও রিলেতে ব্রোঞ্জ পদক।

ঘরোয়া অ্যাথলেটিকসে ‘রানী’ খেতাব পাওয়া স্প্রিন্টার বিউটি অ্যাথলেটিকস-এর ট্র্যাক দাপানোর পাশাপাশি নোয়াখালীর মাইজদি বালিকা বিদ্যানিকেতন থেকে এসএসসি, নোয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। ডিগ্রি সম্পন্ন করেন সোনাপুর ডিগ্রি কলেজ থেকে। নোয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে মাস্টার্স শেষ করে বিপি-এড ডিগ্রি নেন চট্টগ্রাম শারীরিক শিক্ষা কলেজ থেকে। পরবর্তিতে উত্তরা ইউনিভার্সিটি থেকে এমপি-এড করেন। ১৯৬৪ সাল থেকে বিএসপি ক্রীড়াঙ্গনে অবদান রাখা ক্রীড়াবিদ, সংগঠক, পৃষ্ঠপোষক, কোচদের সম্মানিত করতে এ পুরস্কারের আয়োজন করে আসছে। এই বছর ঘোষণা করা হয়েছে মোট ১২ বিভাগে ১৪ জন বিজয়ীর নাম।

বিভিন্ন বিভাগের অন্যান্যরা হলেন মুশফিকুর রহিম (বর্ষসেরা ক্রিকেটার), তপু বর্মণ (বর্ষসেরা ফুটবলার), আব্দুল্লাহ হিল বাকী (বর্ষসেরা শুটার), শাপলা আক্তার (বর্ষসেরা ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়), গোলাম রব্বানী ছোটন (বর্ষসেরা কোচ), নাজমুল হাসান পাপন (বর্ষসেরা সংগঠক), মাহাদী হাসান আলভী ও সিরাত জাহান স্বপ্না (উদীয়মান ক্রীড়াবিদ), ফজলুল ইসলাম ও মনসুর আলী (তৃণমূলের ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব) এবং বসুন্ধরা গ্রুপ (বর্ষসেরা পৃষ্ঠপোষক)।


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta