৭০ দিনের আন্দোলনের ক্ষতির দ্বায়ভার শিক্ষার্থীদের কাঁধেই চাপিয়ে দিল গবি সাধারণ ছাত্র পরিষদ | Nobobarta

আজ শনিবার, ০৪ Jul ২০২০, ০৮:২১ অপরাহ্ন

৭০ দিনের আন্দোলনের ক্ষতির দ্বায়ভার শিক্ষার্থীদের কাঁধেই চাপিয়ে দিল গবি সাধারণ ছাত্র পরিষদ

৭০ দিনের আন্দোলনের ক্ষতির দ্বায়ভার শিক্ষার্থীদের কাঁধেই চাপিয়ে দিল গবি সাধারণ ছাত্র পরিষদ

Rudra Amin Books

গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক বৈধ উপাচার্যের দাবিতে লাগাতার ৬৮ দিনের আন্দোলন করেও শূন্য হাতে ফেরার সংশয়ে সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

নানা গুঞ্জন, উৎকণ্ঠা ও উদ্ধেগের পর (৬ এপ্রিল -১৫ জুন) টানা ৬৮ দিন নানা নাটকিয়তার মধ্য দিয়ে চলতে থাকে শিক্ষার্থীদের উপাচার্যের দাবিতে আন্দোলন। এরই মধ্যে দাবী শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবী আদায়ের প্রতিশ্রুতি নিয়ে আন্দোলনকে ঘিরে (৪ এপ্রিল) জন্ম নেয় গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ ছাত্র পরিষদ নামে নতুন সংগঠনের। যাদের নেতৃত্বেই ক্লাস, পরীক্ষাসহ সকল একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম বন্ধ করে আন্দোলন রূপ নেয় ৬৮ দিনে।

আন্দোলন শুরু হওয়া থেকে শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি, মিটিং, মিছিল, একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম বন্ধের ঘোষণা, (৯ এপ্রিল) ১৪ শিক্ষার্থীর অনশন, (১২ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয় ট্রাষ্টি বোর্ডের সাথে আন্দোলনকারীদের অসফল মিটিং, (৬ মে) উপাচার্যের বাস ভবনের সামনে বিক্ষোভ, (১১ মে) প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিক্ষকদের বেতন বন্ধের নোটিশ, (১২ জুন) শিক্ষার্থীদের সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর ফোনালাপ ফাঁস, (১৫ জুন) আন্দোলন সফল হয়েছে বলে সাধারণ ছাত্র পরিষদের পক্ষ থেকে মিষ্টি বিতরণ হওয়ার মত একের পর এক নাটকীয় ঘটনার মধ্য দিয়ে চলে টানা ৬৮ দিনের এই আন্দোলন।

এর আগে গত ৩ এপ্রিল প্রকাশিত বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্টের পূর্ণাঙ্গ রায়ে ২০১০ সালের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইনের ৩১ ধারা অনুযায়ী গণবিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদে অধ্যাপক লায়লা পারভীন বানুকে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে নিয়োগের নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু জুনের ৩ তারিখে নির্ধারিত ৬০ দিন অতিক্রম হলেও এখনো অবধি উপাচার্য নিয়োগের কোনো গ্রহণযোগ্য অগ্রগতি দেখাতে সক্ষম হয়নি গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

নিয়মিত ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করে প্রায় আড়াই মাসের আন্দোলন শেষে এখনো বৈধ উপাচার্য নিয়োগের বিষয়ে কোনো সুস্পষ্ট সুরাহা না হওয়ায় যেমন হতাশ শিক্ষার্থীরা ঠিক তেমনি বিক্ষুদ্ধ তারা। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কথায় আস্থা রাখতে পারছে না, বলেও জানিয়েছে অনেক অভিভাবক।

তাহলে আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শিক্ষার্থীদের নেতৃত্বদানকারী গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ ছাত্র পরিষদের পক্ষ সাধারণ শিক্ষার্থীদের যে প্রতিশ্রুতি ও দেওয়া হয়েছিল তা কি শুধুই প্রহসন? নাকি নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের কূট কৌশল? এখন এমনটিই প্রশ্ন ভুক্তভোগী হাজারো শিক্ষার্থীর চোখেমুখে।

আন্দোলন ৭০ দিনের আন্দোলনের ফলাফল কি? এমন প্রশ্নের জবাবে, গণ বিশ্ববিদ্যালয় সাধারণ ছাত্র পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহবুবুর রহমান রনি বলেন, “আসলে ফলাফল আশানুরূপ নয়, আমাদের প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল খুব শীঘ্রই সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে, আমরা তাদের কথা বিশ্বাস করে ৬৮ দিনের মাথায় আন্দোলন স্থগিত করি। কিন্তু প্রশাসন এখনো তাদের কথা রাখতে পারেনি।”

তাহলে ৬৮ দিনের আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের যে ক্ষতি হয়েছে তার দ্বায়ভার কে নিবে? উত্তরে মাহবুবুর রহমান রনি বলেন, “আমরা সাধারণ ছাত্র পরিষদ এই আন্দোলনের দ্বায়ভার নিব না, শিক্ষার্থীরা বুঝেই নিজে থেকে আন্দোলনে অংশ গ্রহন করেছিল, তাই এর দ্বায়ভার তাদেরই নিতে হবে। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রথমে আমাদের আশ্বস্ত করা হলেও তারা যেহেতু আগেও কথা দিয়ে কথা রাখতে পারেনি তাই আমরা তাদের কথা মানিনি। কিন্তু যখন প্রশাসনের পক্ষ থেকে আমাদের কাছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মনিরুল হাসান মাসুম, সহকারী রেজিষ্ট্রার আবু মোহাম্মদ মোকাম্মেল ও প্রধান হিসাব রক্ষক জাহাঙ্গীরকে পাঠিয়েছিল, তখন আমরা তাদের কথা বিশ্বাস করে ক্লাসে ফিরে যাই। তাই আন্দোলনের দ্বায়ভার এই তিনজনকেও নিতে হবে।”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী বলেন, “দাবিটা আমাদের সবার ছিল, তাই আন্দোলনে অংশগ্রহন করছিলাম। কিন্তু ৭০ দিন শেষে যখন দেখি ফলাফল শূন্য আবার সেই সাথে ক্ষতির দ্বায়ভার সাধারন শিক্ষার্থীদের কাঁধেই চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে তখন নিজেকে খুব বোকা মনে হচ্ছে। এখন আমরাও নিজেরাই সন্দ্বিহান যে, এমন দায়িত্বহীন মানুষের নেতৃত্বে কি আমাদের আন্দোলনে যাওয়া আসলেও ঠিক হয়েছিল কিনা? ”

তবে আন্দোলনের ফলাফল যাই হোক না কেন, এখন উপাচার্য সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান যেন খুব দ্রুত হয়ে যায় এমনটাই দাবি সাধারণ শিক্ষার্থীদের।


Leave a Reply

নববার্তা ফেসবুক পেজে আলোচিত সংবাদ

১৪ দলের নতুন মুখপাত্র প্রত্যাশা ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর১৪ দলের নতুন মুখপাত্র প্রত্যাশা ড.মহীউদ্দীন খান আলমগীর3K Total Shares
রেড জোনের আওতায় মানিকগঞ্জ জেলারেড জোনের আওতায় মানিকগঞ্জ জেলা2K Total Shares
ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তারসহ  করোনায় আক্রান্ত ১০ঘিওর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইরিন আক্তারসহ করোনায় আক্রান্ত ১০2K Total Shares
ঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন অধ্যক্ষ হাবিবঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন অধ্যক্ষ হাবিব2K Total Shares
ঘিওরের ইউএনও আইরিন আক্তারের করোনা জয়ের গল্পঘিওরের ইউএনও আইরিন আক্তারের করোনা জয়ের গল্প1K Total Shares
মানিকগঞ্জে বিএনপির অসহায় নেতাকর্মীদের মাঝে তারেক রহমানের ঈদ উপহার তুলে দিলেন – এস এ জিন্নাহ কবিরমানিকগঞ্জে বিএনপির অসহায় নেতাকর্মীদের মাঝে তারেক রহমানের ঈদ উপহার তুলে দিলেন – এস এ জিন্নাহ কবির1K Total Shares
ব্রীজ ভেঙে ভোগান্তিতে হিজুলিয়া গ্রামবাসীব্রীজ ভেঙে ভোগান্তিতে হিজুলিয়া গ্রামবাসী1K Total Shares
মানিকগঞ্জে পৌর বিএনপির নেতাদের হাতে ঈদ উপহার শাড়ি লুঙ্গি তুলে দিলেন এ্যাডঃ জামিল ও এস এ জিন্নাহমানিকগঞ্জে পৌর বিএনপির নেতাদের হাতে ঈদ উপহার শাড়ি লুঙ্গি তুলে দিলেন এ্যাডঃ জামিল ও এস এ জিন্নাহ1K Total Shares
বেসরকারি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের করোনা প্রটোকলের বাইরে রাখা হটকারি সিদ্ধান্তবেসরকারি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের করোনা প্রটোকলের বাইরে রাখা হটকারি সিদ্ধান্ত899 Total Shares
ঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন মোঃ রবিউল আলম প্রধানঘিওর উপজেলাবাসীকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানালেন মোঃ রবিউল আলম প্রধান840 Total Shares



Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta