জাককানইবি'তে শিক্ষক সমিতির টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ | Nobobarta

আজ বৃহস্পতিবার, ০৪ Jun ২০২০, ০৮:০১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
২০০০ শয্যার বসুন্ধারা করোনা হাসপাতালে সেবা প্রদান শুরু করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে ফের সাধারণ ছুটি আলোকদিয়ায় ৫শত অসহায় পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিলেন এমপি দুর্জয় দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন : একইসঙ্গে আম্পান-করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশ নওগাঁয় করোনা পরিক্ষার যন্ত্র স্থাপনের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান কমলগঞ্জে খাসিয়া সম্প্রদায়ের মধ্যে ফলজ ও সবজি বীজ বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মুরাদনগরে ১১’শ ৪৮টি মসজিদে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের নগদ অর্থ বিতরণ আটপাড়া উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক বাজার মনিটরিং অব্যাহত নড়াইলে ভূমিহীনদের উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার ‘মূল ঘাতক’ নিহত
জাককানইবি’তে শিক্ষক সমিতির টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ

জাককানইবি’তে শিক্ষক সমিতির টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ

Rudra Amin Books

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির আয়োজনে আন্ত:বিশ্ববিদ্যালয় অনুষদ ভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ। ১১ই মার্চ বুধবার সকাল ১০ টায় শেখ রাসেল কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে টসে জিতে ব্যাটিং এর সিদ্ধান্ত নেয় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের অধিনায়ক বাকিবিল্লাহ (সাকার মোস্তফা) প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ১০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৮১ রান সংগ্রহ করে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষকরা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুর দিকে ভালোই রান সংগ্রহ করতে থাকে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে চাপে পড়তে থাকেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের খেলোয়াড়েরা, শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেট হারিয়ে ৬৬ রান তুলতে সক্ষম হন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের খেলোয়াড়েরা। ১৫ রানের জয় পায় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ। সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের খেলোয়াড় ইকরামুল হক আশিক ব্যক্তিগত ২০ রান এবং ২ উইকেট নিয়ে হন ম্যাচ সেরা।

পুরো টুর্নামেন্ট একক অধিপত্যে জিতে নেন টুর্নামেন্ট সেরা পুরস্কারও। পরে বিকাল সাড়ে তিন টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফারেন্স রুমে বিজয়ীদের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন এবং রানার-আপ ট্রফি তুলে দেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান ও কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. জালাল উদ্দীন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ব্যবসায় প্রশাসনের ডীন প্রফেসর ড. সুব্রত কুমার দে, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম, প্রক্টর জনাব উজ্জ্বল কুমার প্রধান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো: নজরুল ইসলাম। বঙ্গবন্ধু নীল দলের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল রহমানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষিকাবৃন্দ।

উপাচার্য তার বক্তব্যে সকল শিক্ষক (খেলোয়াড়দের) উদ্দেশ্যে বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় শুধু পড়াশোনায় নয় সকল ইভেন্টে সেরা। বিজয়ী ও রানারআপ দুইদলের অভিনন্দন জানিয়ে এ জয় উৎসর্গ করেন জাতির পিতা স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। আন্তবিশ্ববিদ্যালয় অনুষদ ভিত্তিক টুর্নামেন্টের আয়োজন আহবায়ক ড. মোঃ সেলিম আল মামুন, সদস্য সচিব জনাব বিজয় দাস। শিক্ষক সমিতির এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আয়োজন ছিলো দুটি ভাগে একটি আউটডোর অন্যটি ইনডোর। আউটডোর বিভাগে ক্রিকেটে ৪ টি অনুষদ সংগ্রহন করে ১০ মার্চ নকআউট পর্বে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ, বিজ্ঞান অনুষদকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে। পরের দিকে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ, কলা অনুষদকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে। সেই টানটান উত্তেজনা পূর্ণ ম্যাচে ব্যবসায় প্রশাসনকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ।

অন্যদিকে ইনডোরে চলে ৪ অনুষদের শিক্ষিকাদের প্রতিযোগিতা, দাবাতেঃ- চ্যাম্পিয়ন সহযোগী অধ্যাপক সোমা রানী সূত্রধর(অর্থনীতি বিভাগ)
রানার্স আপ : প্রভাষক রাফিয়া রহমান (নৃবিজ্ঞান বিভাগ), লুডুঃ- যৌথ ভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়
সহযোগী অধ্যাপক মাহবুবুন নাহার (কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং বিভাগ)
সহযোগী অধ্যাপক হাবিবা সুলতানা( কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং বিভাগ)
রানার্সআপঃ প্রভাষক রাফিয়া রহমান (নৃবিজ্ঞান বিভাগ)
এবং অধ্যাপক তাওয়াবুন্নাহার( পরিসংখ্যান বিভাগ)

ক্যারাম বোর্ডঃ মাহবুবুন নাহার এবং হাবিবা সুলতানা, সহযোগিতা অধ্যাপক (কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং বিভাগ)। রানার্সআপ হয় প্রভাষক জান্নাতুন মাওয়া
(ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইন্জিনিয়ারিং বিভাগ) এবং প্রভাষক জান্নাতুল নাঈম( নৃবিজ্ঞান বিভাগ)। উল্লেখ্য শিক্ষক সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম সবার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ধন্যবাদ জানিয়েছেন অত্যন্ত সুশৃঙ্খল ভাবে এই আয়োজন সম্পন্ন করার জন্য। ভবিষ্যতে এরকম আয়োজন যেন চালিয়ে যেতে পারি সেজন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

এদিকে এই জয় কে স্বরণীয় করে রাখতে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ আয়োজন করে বিশাল এক ভোজনের। যেখানে ছিলো ৭ টি খাসি। অংশগ্রহণ করে ৮ বিভাগের বহুসংখ্যক শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দ।


Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.






Nobobarta © 2020 । About Contact Privacy-PolicyAdsFamily
Developed By Nobobarta