আজ রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন

রামগঞ্জে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে যুবক আটক

রামগঞ্জে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে যুবক আটক

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে ৫ম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের অভিযোগে শোহরাব হোসেন (১৯) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার সন্ধায় উপজেলার নোয়াপাড়া বাজারের একটি দোকান থেকে তাকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনাটি বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার ২নম্বর নোয়াগাঁও ইউনিয়নের নোয়াপাড়া গ্রামের পুরান বাড়ীতে ঘটেছে। আটককৃত শোহরাব হোসেন নোয়াপাড়া গ্রামের পুরানবাড়ীর ইমাম হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর মা লুৎফা বেগম শুক্রবার রাত ১০টায় থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে ও ধর্ষিত স্কুল ছাত্রীর মা লুৎফা বেগম জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে বৃষ্টির সময় নোয়াপাড়া পুরান বাড়ীর লোকজন বাড়ীর পাশ্ববর্তি নালায় মাছ ধরতে চলে যায়। এ সময় একই বাড়ির ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী মাছ ধরা দেখতে যাওয়ার সময় পথরোধ করে একই বাড়ীর চাচাতো ভাই ধর্ষক শোহরাব হোসেন। পরে স্কুল ছাত্রীর মুখ ছেপে ধরে তাকে ধর্ষন করে। এসময় মেয়েটি কান্নাকাটি করলে শোহরাব হোসেন তার হাতের মুঠোয় ৫০টাকা দিয়ে কাউকে বলতে নিষেধ করে।

সন্ধার কিছুক্ষণ আগে স্কুল ছাত্রীর মা লুৎফা বেগম ঘরে ফিরে আসলে ধর্ষিত স্কুল ছাত্রী তার মাকে ঘটনাটি খুলে বলে। ঘটনাটি এলাকার কয়েকজন গণ্যমান্য লোককে বিষয়টি জানালে তারা ঘটনাটি প্রকাশ না করে স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করতে চাপ প্রয়োগ করে। শুক্রবার বিকেলে মেয়ের বাবা জাহাঙ্গীর আলম রামগঞ্জ থানা পুলিশে ঘটনাটি জানালে রামগঞ্জ থানা পুলিশের এস আই কাউসারুজ্জামান স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় ধর্ষক শোহরাব হোসেনকে নোয়াপাড়া বাজারের একটি দোকান থেকে আটক করে।

রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, আমরা অভিযোগের ভিত্তিতে এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষক শোহরাব হোসেন আটক করেছি। এ ব্যপারে রাত ১০টায় স্কুল ছাত্রীর মা লুৎফা বেগম রামগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। ধর্ষনের আলামত সংগ্রহে স্কুলছাত্রীকে লক্ষ্মীপুর সদর হসপিটালে প্রেরন করা হবে বলেও তিনি জানান।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন


Leave a Reply

Nobobarta.com
Design & Developed BY Nobobarta.com