মশাবাহিত রোগের সচেতনতা তৈরিতে তেঁতুলিয়ায় শিশুস্বর্গের কয়েল বিতরণ – Nobobarta

আজ রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৩:৪৬ অপরাহ্ন

মশাবাহিত রোগের সচেতনতা তৈরিতে তেঁতুলিয়ায় শিশুস্বর্গের কয়েল বিতরণ

মশাবাহিত রোগের সচেতনতা তৈরিতে তেঁতুলিয়ায় শিশুস্বর্গের কয়েল বিতরণ

তেঁতুলিয়ায় মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু ফাইলেরিয়া রোগের সচেতনতা তৈরিতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এসিআই কয়েল বিতরণ করতে শুরু করেছে স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন শিশুস্বর্গ।

সামস্ ৯২ এর উদ্যোগে এসিআই লিমিটেড ও এসসি জনসন এর সৌজন্যে ইতিমধ্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ৮ হাজার প্যাকেট কয়েল বিতরণ করেছে।

পর্যায়ক্রমে আরো বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আরো ১২ হাজার প্যাকেট কয়েল বিতরণ করা হবে বলে জানালেন শিশুস্বর্গে প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক কবীর আহম্মেদ আকন্দ।
উত্তরের সীমান্তবর্তী প্রত্যন্ত অঞ্চল তেঁতুলিয়ার সবচেয়ে আলোচিত স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক উন্নয়নমূলক সংগঠন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন শিশুস্বর্গ।

সংগঠনটি ২০১০ সাল হতে জন্মলগ্ন হতে অসহায় গরীব মেধাবী শিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র, ঈদবস্ত্র, শিক্ষা উপকরণ, উপবৃত্তি বিতরণ করে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিয়েছে।

এ প্রতিষ্ঠানের অর্থায়নে বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩৪ জন হতদরিদ্র পরিবারের মেধাবী শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে।
এছাড়া এলাকার স্বল্প শিক্ষিত কিশোর-তরুণদের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে সহযোগিতা করে আসছেন। বাদ যায়নি পিছিয়ে পড়া নারীরাও।

তাদেরকেও প্রতিষ্ঠান কর্তৃক পরিচালিত সমিতির মাধ্যমে নারীদের মাঝে গাভী দিয়ে আত্মনির্ভরশীল স্বাবলম্বী করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে শিশুদের উন্নত শিক্ষার জন্য শিশুস্বর্গ বিদ্যা নিকেতন নামের স্কুল চালু করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের লক্ষ্যে শিশু হাসপাতাল ও নির্মানেরও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। নির্মাণ করা হচ্ছে শিশু আশ্রম। এবার মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু, ফাইলেরিয়া ও ম্যালেরিয়া রোগের সচেতনতা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মশার কয়েল বিতরণের মাধ্যমে এলাকায় বে প্রশংসার পাত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে স্বেচ্ছাসেবী শিশুস্বর্গ প্রতিষ্ঠানটি।

কয়েল বিতরণ বিষয়ে শিশুস্বর্গের পরিচালক আমাদের সময়কে বলেন, মশাবাহিত রোগ ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়া, জিকা, এনসেফেলাইটিস ফাইলেরিয়া হতে জনসচেতনতা তৈরিতে সামস্-৯২’র উদ্যোগে এসিআই লিমিটেড ও এসসি জনসনের উদ্যোগে কয়েল বিতরণ করছি। এজন্য তাঁদেরকে অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।


Leave a Reply