মঙ্গলবার, ১৭ Jul ২০১৮, ০১:৫৩ অপরাহ্ন

English Version


Uncategorized
চাচার হাতে প্রতিবন্ধি কিশোরী ধর্ষণের শিকার

চাচার হাতে প্রতিবন্ধি কিশোরী ধর্ষণের শিকার



কিশোর কুমার দত্ত, লক্ষ্মীপুর # লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ১৭ বছরের এক মানুষিক প্রতিবন্ধি কিশোরী একই বাড়ীর বখাটে জাহাঙ্গীর হোসেন (২৬) নামের এক দু’সর্ম্পকের চাচার হাতে ধর্ষনের শিকার হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দক্ষিণ কেরোয়া ইউনিয়নের আব্বাস আলী বেপারী বাড়ীতে। ধর্ষক একই এলাকার অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক সদু মিয়ার ছেলে। কিশোরীকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
 
এর আগে গত বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) দিবাগত রাতে সদর উপজেলা উত্তর হামছাদী এলাকায় এক গৃহবধুর বাবার বাড়িতে গণধর্ষনের শিকার হন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকার কয়েক প্রভাবশালীর বাধার কারনে আজ সোমবার (২৩ নভেম্বর) কিশোরীর মা বাদী হয়ে ধর্ষকের বিরুদ্ধে বিচার দাবি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।  

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, দীর্ঘদিন ধরে মানষিক প্রতিবন্ধি ওই কিশোরীকে উত্যক্ত ও শ¬ীলতাহানি করে আসছিল একই বাড়ীর বখাটে চাচা জাহাঙ্গীর। এ ঘটনায় কয়েকবার বখাটের বিচার দাবি জানিয়ে তার অভিভাবকের কাছে অভিযোগ করলেও বিচার পায়নি অভিযুক্ত পরিবার। সবশেষ মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) দুপুরে বাড়ীর পিতা-মাতার অনুপস্থিতিতে লোভ দেখিয়ে ওই  কিশোরীকে জাহাঙ্গীর তার ঘরে নিয়ে হাত-মুখ বেঁধে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ইউপি সদস্য হোসেন আহাম্মদ মাষ্টারসহ কয়েকজনের কাছে বিচার দাবি করেও কোন প্রতিকার পাননি ওই পরিবার। গত ৬ দিন বিচার না পেয়ে আজ সোমবার সকালে ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে বিচারের দাবি জানান। পরে নির্বাহী কর্মকর্তা প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে আশ্বাস দেন।

 
এ ঘটনার পর থেকে ধর্ষক জাহাঙ্গীর পলাতক থাকায় এবং তার পরিবার তাদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করে। তবে এই ঘটনায় গ্রামবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ ও অসস্তোষ বিরাজ করছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য হোসেন আহাম্মদ মাষ্টার বলেন, রোববার বিকেলে মেয়ের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তদের সাথে কথা বললে তারা ঘটনা অস্বীকার করেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আলম বলেন, ভিকটিম প্রতিবন্ধি কিশোরীর মায়ের লিখিত অভিযোগটি গ্রহন করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য থানার ওসিকে বলো হয়েছে। রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ লোকমান হোসেন বলেন, প্রতিবন্ধি কিশোরীর বিষয়টি তদন্ত চলছে।   তদন্ত পূর্বে দোষীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




ফুটবল স্কোর



© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com