বদলে যাচ্ছে একুশে বইমেলায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ভেতরের বিন্যাস – Nobobarta

আজ বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০২:০১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কাউখালীতে ৪০ যাত্রীসহ খেয়া ট্রলার ডুবি, পিএসসি পরীক্ষার্থী নিখোঁজ পাকিস্তান থেকে এলো ৮২ টন পেঁয়াজ রহমতপুর ইউনিয়নে ওয়ার্ড আ’লীগের সম্মেলন, সভাপতি সুলতান, সম্পাদক স্বপন তারেক রহমানের জন্মদিনে জাবি ছাত্রদলের দোয়া ও মিলাদ আগৈলঝাড়ায় পেঁয়াজ, চাউল ও লবণ নিয়ে গুজব, ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাসের অভিযান অব্যাহত কাউখালীতে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ পিইসি পরীক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার কবি সুফিয়া কামালের নামানুসারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দীনের জাবির হল খুলে দেওয়াসহ ৭দফা দাবি শিক্ষার্থীদের নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে শুরু হল বুড়ি তিস্তা খনন নলছিটিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মাণের অভিযোগ
বদলে যাচ্ছে একুশে বইমেলায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ভেতরের বিন্যাস

বদলে যাচ্ছে একুশে বইমেলায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ভেতরের বিন্যাস

আসছে একুশে বইমেলায় বদলে যাচ্ছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ভেতরের বিন্যাস। কিছুটা পশ্চিম পার্শ্বে সরে গিয়ে, ছবির হাট থেকে শুরু করে তিন নেতার মাজার পর্যন্ত বিস্তৃত থাকছে মেলা। আর পূর্ব পার্শ্বে থাকছে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানমালার আয়োজন। তবে বাংলা একাডেমির ভেতরের অবস্থান আগের মতোই থাকছে।

জানা গেছে, সরকার ঘোষিত মুজিববর্ষ উপলক্ষে ২০২০ সালের গ্রন্থমেলা উৎসর্গ করা হচ্ছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। যার ছোঁয়া থাকবে মেলার সজ্জায়, বইয়ের পাতা। ইতোমধ্যেই প্রণীত মেলার নীতিমালায় এ বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করেছে মেলা পরিচালনা কমিটি। এসব তথ্য নিশ্চিত করে মেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও মেলা আয়োজক প্রতিষ্ঠান বাংলা একাডেমির পরিচালক ড. জালাল আহমেদ বলেন, এবার শাহবাগ থেকে দোয়েল চত্বরমুখী সড়ক ঘেঁষে ছবির হাট থেকে শুরু করে তিন নেতার মাজার পর্যন্ত এলাকা এবারের মেলার জন্য বাছাই করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সাধারণত রমনার কালী মন্দির, মুক্তমঞ্চ ও স্বাধীনতা স্তম্ভের জলাধারের মাঝখানের জায়গাটিতেই উদ্যানের মেলা বসতো। এবার সেই জায়গায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষ উদযাপনের প্রস্তুতি চলবে। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ছবির হাট থেকে শুরু করে তিন নেতার মাজার পর্যন্ত রাস্তার ধার দিয়ে এবারের মেলার আয়োজন করব। তবে বাংলা একাডেমির পরিসর আগের মতোই থাকছে, শুধু উদ্যানের জায়গাটা পরিবর্তন হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এবারও গ্রন্থমেলার নকশা ও সাজসজ্জার দায়িত্বে আছেন স্থপতি এনামুল করিম নির্ঝর। প্রাথমিক নকশা করা হয়েছে। শিগগিরই চূড়ান্ত নকশা পাওয়া যাবে। তার উপর ভিত্তি করে কাজ শুরু হবে। এবিষয়ে জানতে চাইলে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবিবুল্লাহ সিরাজী বলেন, বইমেলার উদ্যানের অংশের প্রাঙ্গণ পরিবর্তনের বিষয়ে ৪ নভেম্বর বিস্তারিত জানানো হবে।


Leave a Reply