প্রেমিকের কাছে স্ত্রীকে ফিরিয়ে দিলেন স্বামী! – Nobobarta

আজ শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৭:৫০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মহিউদ্দিন সভাপতি, আবু বকর সম্পাদক উদয় সমাজ কল্যান সংস্থার ১২ তম ওয়াজ মাহফিল সম্পন্ন ১০ ডিসেম্বর উপাচার্যের দুর্নীতির ক্ষতিয়ান প্রকাশ করবে আন্দোলনকারীরা মার্শাল আর্ট ‘বিচ্ছু’ নিয়ে আসছেন সাঞ্জু জন আজ উদয় সমাজ কল্যান সংস্থা সিলেটের ১২তম ওয়াজ মাহফিল দলীয় কার্যালয় সম্প্রসারণের লক্ষে আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির প্লট উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর যবিপ্রবিতে ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশের নতুন কমিটি গঠন আটোয়ারীতে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত জবি রোভার দলের হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণের উদ্বোধন মারুফ-তানহার ‘দখল’
প্রেমিকের কাছে স্ত্রীকে ফিরিয়ে দিলেন স্বামী!

প্রেমিকের কাছে স্ত্রীকে ফিরিয়ে দিলেন স্বামী!

গল্পটা সিনেমার মতোই। যেন ব্লকবাস্টার হিন্দি সিনেমা ‘হাম দিল দে চুকে সানাম’ এর প্রায় হুবহু পুরাবৃত্তি। সালমান খান, ঐশ্বরিয়া রাই ও অজয় দেবগন অভিনীত ছবির মতো সত্যি কাহিনী ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপালে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে’র এক খবরে বলা হয়, দীর্ঘ সাত বছর ধরে সংসার করছিলেন মহেশ ও সঙ্গীতা (ছদ্মনাম)। সংসার জীবনে দুই সন্তানের মা হয়েছেন সঙ্গীতা। এভাবে সবকিছু ঠিকঠাকই চলছিল। হঠাৎ করে সঙ্গীতার সঙ্গে তার পুরোনো প্রেমিকের দেখা হয়ে যায়। এরপর থেকেই ধীরে ধীরে তাদের পরিবারে অশান্তি নেমে আসে। পুরোনো প্রেমিকের সঙ্গে নতুন করে দেখা হওয়ার পর থেকেই মনমরা হয়ে থাকেন সঙ্গীতা। মহেশ স্ত্রীর এমন দশা দেখে কারণ খুঁজতে গিয়ে জানতে পারেন- বিয়ের আগে স্ত্রীর প্রেমিককে তার শ্বশুর মেনে নিতে পারেননি। পরে পরিবারের চাপে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার মহেশকে বিয়ে করতে বাধ্য হন ফ্যাশন ডিজাইনার সঙ্গীতা।

মহেশ মন খারাপ করে থাকা স্ত্রীর সঙ্গে আর বাকি জীবনটা কাটাতে চাইলেন না। স্থির করলেন, তিনি তার স্ত্রীকে তার পুরোনো প্রেমিকের কাছে ফিরিয়ে দেবেন। তিনি চাইলেন সঙ্গীতা যদি তার পুরোনো প্রেমিকের সঙ্গে ভালো থাকে, তবে তাই হোক। এছাড়া বিষয়টি নিয়ে তাদের পরিবারে অশান্তিও লেগে থাকতো। মহেশ-সঙ্গীতা যখন পারিবারিক আদালতে যান তখন তাদের কাউন্সিলিংয়ের পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। কাউন্সিলিংয়ের সময় মহেশ জানান, তিনি বারবার তার স্ত্রীকে বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। সঙ্গীতাও পুরোনো প্রেমিকের কাছে ফিরতে চান। তিনিও আদালতের কাছে একই কথা বলেন।

মহেশ আদালতকে জানান, তিনি চান না তার আর সঙ্গীতার সম্পর্কের প্রভাব তাদের সন্তানদের ওপর পড়ুক। তাই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ডিভোর্সের পর মহেশ সন্তানদের তার কাছে রাখার আবেদন জানিয়েছেন। সঙ্গীতাও মহেশের এ আবেদনের বিরোধিতা করেননি।


Leave a Reply