পুঁজিবাজার শক্তিশালী গড়ে তুলতে আপ্রাণ চেষ্টা করছি : প্রধানমন্ত্রী - Nobobarta

আজ মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৪৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আটোয়ারীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়ীকে হত্যা মামলায় ২ আসামীকে আদালতে হাজির, জামিন না মঞ্জুর হামদর্দ এমডির বিরুদ্ধে যুদ্ধোপরাধের অভিযোগ তোলায় বিস্মিত স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা আটোয়ারীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক ব্যক্তি সহ দুটি গরুর মৃত্যু দ্রুত জকসু গঠনতন্ত্র প্রণয়ন ও রাতে ক্যাম্পাসে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার দাবি আবির্ভাব: এক নতুন পৃথিবীর স্বপ্ন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে মাদার তেরেসার মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গণ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নেতাদের অভিষেক সম্পূর্ন বিচার নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠ ইউপি সম্মাননা পুরস্কার পেলেন দন্ডপাল ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সাইফুদ্দীন আহ্মদ কে কেউ মনে রাখেনি!
পুঁজিবাজার শক্তিশালী গড়ে তুলতে আপ্রাণ চেষ্টা করছি : প্রধানমন্ত্রী

পুঁজিবাজার শক্তিশালী গড়ে তুলতে আপ্রাণ চেষ্টা করছি : প্রধানমন্ত্রী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

পুঁজিবাজারে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের কীভাবে বিনিয়োগ করা উচিৎ সে বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। লোভে পড়ে পুঁজিবাজারে আয়ের সব টাকা বিনিয়োগ না করতে পরামর্শও দিয়েছেন তিনি। সোমবার (৮ জুলাই) রাজধানীর একটি হোটেলে বিনিয়োগ শিক্ষা নিয়ে আয়োজিত আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে এ পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী।

কনফারেন্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করেন, তাদের একটা অনুরোধ করব- আপনারা যখন বিনিয়োগ করতে যান বা খরচ করতে যান, যে টাকা উপার্জন করেন তার সবটুকু খরচ করে ফেলবেন না। জেনেবুঝে বিনিয়োগ করবেন। কিছু টাকা জমা রেখে তার পর বিনিয়োগ করবেন।

লোভে পড়ে সব টাকা বিনিয়োগ না করার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, অনেক সময় দেখা যায়, যতটুকু লাভ পাওয়া গেলে, আরও বেশি পাওয়ার লোভে সবটুকু খরচ করে ফেলে শেষে শূন্য হয়ে যেতে হয়। সেটি যেন না হয়। এ জন্য যাই উপার্জন করুন, কিছু হাতে রেখে জমা রাখবেন, কিছু খরচ করবেন। তা হলে আমার মনে হয় আপনাদের আয় স্থিতিশীল থাকবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন সংস্কার করে পুঁজিবাজারে জবাবদিহি নিশ্চিত করা হয়েছে। যতবেশি মানুষ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করবে, ততবেশি শিল্পায়ন ত্বরান্বিত হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দারিদ্র্য বিমোচন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। দারিদ্র্যের হার কমিয়ে মাথাপিছু আয় বাড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। ২০২৩-২৪ সালে জিডিপি দুই অঙ্কে পৌঁছাবে। অল্পদিনের মধ্যে মাথাপিছু আয় ২০০০ ডলার ছাড়িয়ে যাবে। এ দেশে কোনো দরিদ্র মানুষ থাকবে না। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশের জনগণের প্রতিষ্ঠান। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে বাংলাদেশ সব শর্ত পূরণ করেছে। দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। দেশ ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপ নিয়েছে। গ্রামের মানুষ পর্যন্ত আজ অনলাইনে কেনাকাটা করছে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে। অঞ্চলভিত্তিক বৈষম্য কমে আসছে। শেখ হাসিনা বলেন, আগামী ৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে এশিয়ার বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ।

পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এবং এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক (এডিবি) যৌথভাবে এ আন্তর্জাতিক কনফারেন্সের আয়োজন করেছে। ৮-১১ জুলাই চার দিনব্যাপী এ কনফারেন্সে জাপান, নেপাল, ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইনসহ ৯ দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নিচ্ছেন।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন


Leave a Reply