নোবিপ্রবি’র সালাম হলে তল্লাশি, বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার – Nobobarta

আজ শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আজ উদয় সমাজ কল্যান সংস্থা সিলেটের ১২তম ওয়াজ মাহফিল দলীয় কার্যালয় সম্প্রসারণের লক্ষে আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির প্লট উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর যবিপ্রবিতে ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশের নতুন কমিটি গঠন আটোয়ারীতে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত জবি রোভার দলের হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণের উদ্বোধন মারুফ-তানহার ‘দখল’ লক্ষ্মীপুরে রামগতি পৌরসভায় ৮ কোটি টাকার টেন্ডার জালিয়াতি চেষ্টার অভিযোগ নলছিটিতে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার সভাপতি সরফরাজ, সম্পাদক লিটন রাজাপুরে আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০১৯ অনুষ্ঠিত সহকারী পরিচালক সমিতির নির্বাচন আগামীকাল!!
নোবিপ্রবি’র সালাম হলে তল্লাশি, বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার

নোবিপ্রবি’র সালাম হলে তল্লাশি, বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার

আব্দুর রহিম, নোবিপ্রবি প্রতিনিধি: নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং জেলা পুলিশের উপস্থিতিতে দুপুর ২ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত দীর্ঘ ২ ঘন্টা তল্লাশি করে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

২ সেপ্টেম্বর (সোমবার) এই তল্লাশি চালানো হয়। এই সময় উপস্থিতি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ড. মো.ফারুক উদ্দীন, রেজিস্ট্রার মো.মমিনুল হক,
প্রক্টর ড.নেওয়াজ মো.বাহাদুর, ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট কাওসার হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টরবৃন্দ। এইসময় মদের বোতল, ধারালো অস্ত্র, লোহার রড ও পাইপ, লাঠিসোটাসহ মারামারির বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড.নেওয়াজ মো.বাহাদুর বলেন,শনিবার দিবাগত রাতে ধুমপানকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ১০ জনের মত আহত হয় এবং ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের ১৪/১৫ টি রুম ভাঙ্গচুরেরর ঘটনা ঘটে। পরবর্তীতে পুলিশ মোতায়েন করে ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। রবিবার দিবাগত রাতে আবারও দু’গ্রুপের সংঘর্ষ শুরু হলে বিশ্ববিদ্যালয়েরর প্রক্টরিয়াল টিম এবং ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট কাওসার হোসেন, আব্দুল মালেক উকিল হলের প্রভোস্ট ড.ফিরোজ আহমেদ, জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সহকারী প্রভোস্ট ইকবাল হোসেনসহ আমরা তাদেরকে বুঝানের চেষ্টা করি।

এ সময় দু’পক্ষের উত্তেজনা শুরু হলে ড.ফিরোজ আহমেদ মাথাা যখম হয়।বাকি দুই শিক্ষকসহ ১০ জন অাহত হয়। এই বিষয়ে আমরা ২ টি আহবায়ক কমিটি গঠন করেছি। হলের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট কাওসার হোসেনকে আহবায়ক করে ৪ সদস্যদের একটি টিম গঠন করা হয়েছে। আর এইদিকে শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড.গাজী মো.মহসিনকে আহবায়ক করে উচ্চপর্যায়ের তদন্তের জন্য কারা কারা এই ঘটনার সাথে জড়িত এই নিয়ে ৭ সদস্যদের একটি টিম গঠন করা হয়েছে। আগামী ৫ কার্যদিবসের মধ্যে তাদেরকে রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। এই বিষয়ে ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট কাওসার হোসেন বলেন, এই বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন খুব শীঘ্রই ব্যবস্থা নিবে এবং জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তির আওতায় নিয়ে আসা হবে।


Leave a Reply