দুর্নীতি মুক্ত দেশ গড়তে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে : মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু – Nobobarta

আজ বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কাউখালীতে ৪০ যাত্রীসহ খেয়া ট্রলার ডুবি, পিএসসি পরীক্ষার্থী নিখোঁজ পাকিস্তান থেকে এলো ৮২ টন পেঁয়াজ রহমতপুর ইউনিয়নে ওয়ার্ড আ’লীগের সম্মেলন, সভাপতি সুলতান, সম্পাদক স্বপন তারেক রহমানের জন্মদিনে জাবি ছাত্রদলের দোয়া ও মিলাদ আগৈলঝাড়ায় পেঁয়াজ, চাউল ও লবণ নিয়ে গুজব, ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাসের অভিযান অব্যাহত কাউখালীতে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ পিইসি পরীক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার কবি সুফিয়া কামালের নামানুসারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দীনের জাবির হল খুলে দেওয়াসহ ৭দফা দাবি শিক্ষার্থীদের নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে শুরু হল বুড়ি তিস্তা খনন নলছিটিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মাণের অভিযোগ
দুর্নীতি মুক্ত দেশ গড়তে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে : মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু

দুর্নীতি মুক্ত দেশ গড়তে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে : মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু

দুর্নীতি, ঘুষ, জুয়া ও মাদক মুক্ত দেশ গড়তে হলে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ৭০ ও ৭১ সনে যে ভাবে ঐকবদ্ধ হয়েছিল যেভাবে বাঙালি জাতি সেই একইভাবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আবার ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু।

তিনি বলেন, পাকিস্তানের শোষন শাসন নির্যাতন থেকে বাঙালিদের মুক্তির জন্য এবং মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বঙ্গবন্ধু যখন বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নের জন্য কাজ করেছিলেন সেই মূহুর্তে ৭১ ও ৭৫ সালের ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে ও জেল খানায় জাতীয় চার নেতাদেরকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এই হত্যার প্রতিবাদে ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সোনার বাংলা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আখাংকিত বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার জন্য জিয়া ও এরশাদের স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রাম করে জেল খেটেছেন আখতারুজ্জামান বাবু।

আজ তোপখানার বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর অন্যতম সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আক্তারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আখতারুজ্জামান বাবুদের মত কয়েকজন নেতাদের সাহসী ভূমিকার জন্যই আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি পথে চলতে অনুুপ্রেরণা পেয়েছি। আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার বঙ্গবন্ধু আদর্শের সোনর বাংলা বিনির্মাণে এগিয়ে চলছে। আমরা বাঙালিরা আবার ৭০ ও ৭১ সালের মতো শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশ পরিচালনা করলে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা পাবে তবেই স্বার্থক হবে আজকের আলোচনা সভা। সাথে সাথে তিনি আরো বলেন দুর্নীতি, ঘুষ, জুয়া ও মাদক মুক্ত দেশ গড়তে পারবো।

জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ সভাপতি এম.এ. জলিলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা আইনজীবী পরিষদ সভাপতি এ্যাডভোকেট খন্দকার শামসুল আলম দুদু, সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক নিম চন্দ্র ভৌমিক, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, বাংলাদেশের ডেপুটি এ্যাটর্নি জেনারেল এ্যাড. মোঃ আবুল হাসেম ও এ্যাড. নজরুল ইসলাম, ন্যাপ ভাসানীর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মতিন মাষ্টার, এনডিপি’র মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ নেতা আ স ম মোস্তফা কামাল, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আউয়াল ও মুক্তিযোদ্ধা মো. আমিনুল হক ভূইয়া, বরিশাল বিভাগ সমিতির অন্যতম নেতা শহীদুন্নবী ডাবলু, জয়বাংলা মঞ্চের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফেয়ই, জাসদ নেতা হুমায়ুন কবির, নারী নেত্রী লিজা রহমান, সংগঠনের সহ সভাপতি জাহানারা বেগম, সাধারণ সম্পাদক সমীর রঞ্জন দাস ও দপ্তর সম্পাদক কামাল হোসেন প্রমুখ।

বিশেষ অথিরি বক্তব্যে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের অন্যতম জাতীয় ঐতিহ্য, অহংকার এবং গর্ব। কিন্তু দুঃখের সঙ্গে বলতে হয়, যে চেতনা নিয়ে জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধ হয়েেীছল সেই চেতনা আজ প্রায় বিলুপ্তির পথে। দুর্নীতিবাজরা সেই চেতনাকে পদদলীত করছে। আর এই দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী লড়াইয়ে সফলতার কোন বিকল্প নাই। তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী বাংলাদেশ গঠনে আকআতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর অবদান জাতি শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। বাবু ভাই তার রাজনীতি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনােকে ধারন করতেন। আমৃত্যু তিনি দেশ-জাতি ও জনগনের জন্য কাজ করে গেছেন।

সভাপতির ভাষণে এম এ জলিল , বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু প্রবাসী মুজিব নগর সরকারের ত্রাণ কমিটিতে বিশেষ ভূমিকা রেখেছেন এবং বঙ্গবন্ধু হত্যার পর আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করার জন্য যে ভূমিকা রেখেছেন তা অতুলনীয়। এইজন্য আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু’র নামানুসারে ঢাকা শহরের যে কোন একটি সড়কের নামকরণের দাবীতে উত্তর ও দক্ষিণে দুই মেয়রের কাছে জোর আবেদন জানাচ্ছি।


Leave a Reply