তিন দশকে পা রাখলো এনডিপি – Nobobarta

আজ রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:০৬ অপরাহ্ন

তিন দশকে পা রাখলো এনডিপি

তিন দশকে পা রাখলো এনডিপি

মঞ্জুর হোসেন ঈসা : রাজনীতির কঠিন সমীকরণে চলছে দেশ। দেশের রাজনীতিতে নীতি নৈতিকতা ও দেশপ্রেম ক্রমান্বয়ে হারিয়ে যাচ্ছে। নেতাকর্মীর ভালবাসা আর সমন্বয় এখন রাজনীতিতে চোখে পড়ে না। যান্ত্রিক যুগে সবকিছুই যেন যন্ত্র দ্বারাই নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে। ইন্টারনেটের দুনিয়ায় আসল মানুষগুলো হারিয়ে গিয়ে অন্য রূপে মানুষরা নিজেদেরকে প্রচার করছে। ঠিক এমনই এক সন্ধিক্ষণে বাংলাদেশের অন্যতম গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি- এনডিপি আগামীকাল ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ইং তারিখে ৩০ বছরে পা রাখছে। ১৯৮৯ সালের এইদিনে প্রখ্যাত সাংবাদিক ও সাবেক মন্ত্রী গণমানুষের নেতা জননেতা আনোয়ার জাহিদ দেশের বিজ্ঞ ও প্রজ্ঞাবান ব্যক্তিদেরকে নিয়ে গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য এনডিপি গঠন করেছিলেন। দেখতে দেখতে বহু সময় পার করে এনডিপি এখন নিজস্ব স্বকীয়তায় পথ চলতে শুরু করেছে।

১৯৮৯ সালের ১০ই সেপ্টেম্বর গণতন্ত্রের আকাশে এক নতুন রাজনৈতিক অধ্যায়ের শুরু হয়েছিল। যে রাজনৈতিক দলের নাম ছিল এনডিপি। আর প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন প্রখ্যাত সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদ আনোয়ার জাহিদ। সময়ের চাকা ঘুরে সেই দলের দায়িত্বে এখন রয়েছেন সাবেক তুখোর ছাত্রনেতা, এনডিপি’র প্রতিষ্ঠাতা সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা ও মহাসচিবের দায়িত্বে রয়েছেন সাবেক ছাত্রনেতা মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা।এনডিপি একটি রাজনৈতিক পরিবার যে পরিবারের সকল সদস্যের প্রতি সকলের অকৃত্রিম ভালোবাসা ও আস্থা রয়েছে।

গণতন্ত্র পুনঃরুদ্ধারের জন্য একসাথে পথ চলাই যেন সকলের শপথ। কি পেলাম আর কি পাবো এই প্রত্যাশা না রেখে সমাজ ও রাষ্ট্রকে কতটুকু দিতে পারবো এই প্রত্যয় নিয়ে ছুঁটে চলেছে এনডিপি। জাতীয় স্বাধীনতা ও রাষ্ট্রীয় সার্বভৌমত্ব; ইতিহাস, জনগণের ধর্মবিশ্বাস ও সংস্কৃতির ভিত্তিতে জাতীয় স্বাতন্ত্র গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থা; আত্মনির্ভরশীল জাতীয় অর্থনীতি ও শক্তিশালী জাতীয় প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সম্বলিত পাঁচটি মূলনীতির প্রতি অবিচল আস্থা এবং সৎ, যোগ্য, নির্ভীক ও দেশপ্রেমিক শক্তির নেতৃত্বে সন্ত্রাস, দুর্নীতি, কালো টাকা ও পেশিশক্তি বিমুখ সুখী-সমৃদ্ধশালী স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলা গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত এনডিপি বর্তমানে স্বাধীনভাবে পথ চলতে শুরু করেছে।

এদিকে, ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করেছে এনডিপি।ওইদিন সকাল ১১ টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে এনডিপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও কেক কাটা কর্মসূচি পালিত হবে। আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করবেন এনডিপি’র চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। এছাড়া একইদিন দেশব্যাপী এনডিপির প্রবাসে, বিভাগীয় শহরে, জেলা ও উপজেলা কার্যালয়েও পৃথক কর্মসূচি পালিত হবে। এনডিপির বর্তমান চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন।মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৭২ সালে ঢাকা নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হন তিনি। দেশের রাজনীতিতে তখন সমাজতান্ত্রিক চিন্তাধারার ব্যাপক জনপ্রিয়তা। সেই প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বৈজ্ঞানিক সমাজতন্ত্র ও চিন্তাধারায় বিভক্ত হয়।জাতীয় রাজনীতিতে জন্ম হয় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ। খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা জাসদ সমর্থিত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাথে জড়িয়ে পড়েন।

এরপর ১৯৭৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মহসিন হল শাখা জাসদ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত হন।পরবর্তীতে আন্দোলন-সংগ্রামের কারণে পাঁচবার কারাবরণ করেন তিনি।’৮০ দশকে মীর্জা সুলতান রাজার নেতৃত্বে পুনর্গঠিত জাসদে সক্রিয়ভাবে জাতীয় রাজনীতি শুরু করেন খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তজা। তিনি পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার সাগরকন্দি ইউনিয়নের নুরারীপুর গ্রামে সম্ভান্ত্র মুসলিম পরিবারে ১৯৫৩ সালের ১০ অক্টোবর। তার মরহুম পিতা খোন্দকার মোরশিদুল হোসেন ও মরহুম মাতা খোন্দকার সালেহা মুরশিদীর ২য় পুত্র তিনি। এনডিপি’র বর্তমান মহাসচিব মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা খুলনা খালিশপুরের হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজে ছাত্ররাজনীতির মধ্য দিয়ে ছাত্র রাজনীতি শুরু করেন।পরবর্তীতে ঢাকায় বিএনপি’র রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন এনডিপি’র কঠিন দুঃসময়ে এনডিপিতে যুগ্ম মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।পরবর্তীতে দলের সর্বসম্মতিক্রমে মহাসচিবের দায়িত্ব গ্রহণ করে বর্তমানে কাজ করে যাচ্ছেন।

সাবেক এই ছাত্রনেতা মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা আগামী দ্বাদশ নির্বাচনে খুলনা-০৩ আসন থেকে নির্বাচন করার আগ্রহ রয়েছে। এনডিপির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ প্রিন্স, নাজমুন্নাহার মিনতি, মো. মনিরুজ্জামান মনির, ভাইস চেয়ারম্যান জামিল আহমেদ, রাজু আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব হায়াত মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক আর কে রিপন-সহ একঝাক তরুণ নেতৃত্ব এনডিপিকে এগিয়ে নেয়ার জন্য নিরলসভাবে দাঁয়িত্ব পালন করছেন।


Leave a Reply