তিন দফা দাবিতে শনিবার শাহবাগে সমাবেশ – Nobobarta

আজ শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
১০ ডিসেম্বর উপাচার্যের দুর্নীতির ক্ষতিয়ান প্রকাশ করবে আন্দোলনকারীরা মার্শাল আর্ট ‘বিচ্ছু’ নিয়ে আসছেন সাঞ্জু জন আজ উদয় সমাজ কল্যান সংস্থা সিলেটের ১২তম ওয়াজ মাহফিল দলীয় কার্যালয় সম্প্রসারণের লক্ষে আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির প্লট উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর যবিপ্রবিতে ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশের নতুন কমিটি গঠন আটোয়ারীতে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত জবি রোভার দলের হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণের উদ্বোধন মারুফ-তানহার ‘দখল’ লক্ষ্মীপুরে রামগতি পৌরসভায় ৮ কোটি টাকার টেন্ডার জালিয়াতি চেষ্টার অভিযোগ নলছিটিতে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার
তিন দফা দাবিতে শনিবার শাহবাগে সমাবেশ

তিন দফা দাবিতে শনিবার শাহবাগে সমাবেশ

জোবায়ের কামাল, জাবি সংবাদদাতা : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণের দাবিতে চলামান আন্দোলনে হামলার পর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে প্রশাসন। এর প্রেক্ষিতে হল খুলে দিয়ে শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনাসহ তিন দফা দাবিতে শনিবার শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে সমাবেশের ঘোষণা দেন আন্দোলনকারীরা।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন কলা ভবনের শিক্ষক লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচী ঘোষণা দেন ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারের সমন্বয়ক দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রায়হান রাইন। এ সময় তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান পরিস্থিতিতে অনতিবিলম্বে হল ভ্যাকেন্টের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারসহ তিনদফা দাবিতে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে আগামীকাল শনিবার বিকেল তিনটায় বর্তমান শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং অভিভাবক, সাবেক শিক্ষার্থী ও গুণীজনদের নিয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

তাদের তিনদফা দাবি হলো- উপাচার্যের প্রত্যক্ষ মদদে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলার বিচার ও মামলাবাজ উপাচার্যের অপসারণ, হল ভ্যাকেন্টের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে এবং উপাচার্যের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের দেশীয় আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ এবং তদন্ত প্রতিবেদন জনসম্মুখে প্রকাশ করতে হবে। প্রসঙ্গত, গত ৫ নভেম্বর আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার পর জরুরি এক সিন্ডিকেট সভায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে প্রশাসন। এ বন্ধের মধ্যেই উপাচার্যের অপসারণ ও ছাত্রলীগের হামলার প্রতিবাদে আন্দোলন চালিয়ে যান আন্দোলনকারীরা। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবিতে আগামী ২১ নভেম্বর পর্যন্ত আল্টিমেটাম দেয় আন্দোলনকারীরা।


Leave a Reply