ঝালকাঠি ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি হতে অনুপ্রবেশকারীর তোড়জোড় – Nobobarta

আজ শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:৫৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আজ উদয় সমাজ কল্যান সংস্থা সিলেটের ১২তম ওয়াজ মাহফিল দলীয় কার্যালয় সম্প্রসারণের লক্ষে আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির প্লট উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর যবিপ্রবিতে ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশের নতুন কমিটি গঠন আটোয়ারীতে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত জবি রোভার দলের হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণের উদ্বোধন মারুফ-তানহার ‘দখল’ লক্ষ্মীপুরে রামগতি পৌরসভায় ৮ কোটি টাকার টেন্ডার জালিয়াতি চেষ্টার অভিযোগ নলছিটিতে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার সভাপতি সরফরাজ, সম্পাদক লিটন রাজাপুরে আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০১৯ অনুষ্ঠিত সহকারী পরিচালক সমিতির নির্বাচন আগামীকাল!!
ঝালকাঠি ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি হতে অনুপ্রবেশকারীর তোড়জোড়

ঝালকাঠি ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি হতে অনুপ্রবেশকারীর তোড়জোড়

ঝালকাঠি সংবাদদাতাঃ মনে প্রাণে আওয়ামী লীগ করেন এমন অনেকে কতিপয় নেতার চক্ষুশুল হয়ে দলের সাংগঠনিক কার্যক্রম থেকে দূরে রয়েছেন। নেতাকে খুশী করতে পারেননি কিংবা তেল মর্দনের পরিমাণ কম হওয়ায় ছিটকে পড়েছেন কেউ কেউ। পক্ষান্তরে ভিন্ন দলের মতালম্বি হয়েও আওয়ামী লীগের নেতা ও জনপ্রতিনিধির কাছের মানুষ হয়েছেন, সুবিধা নিচ্ছেন। কেউ কেউ সুযোগ বুঝে ঢুকে পড়েছেন ক্ষমতাসীন দলে।

এ অবস্থা মূল দলে যেমন রয়েছে তেমনি অঙ্গ সংগঠন এমনকি পেশাজীবী সংগঠনেও আছে। তবে দলীয় প্রধানের সাম্প্রতিক শুদ্ধি অভিযানে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মনে ফের আশা জেগেছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কাউন্সিলকে সামনে রেখে এ নিয়ে ঝালকাঠির সদর উপজেলার সর্বত্র চলছে আলোচনা। যারা অভিমানে দূরে ছিলেন তারা নতুন করে স্বপ্ন দেখছেন প্রিয় দল নিয়ে। বিশেষ করে দলের কাউন্সিল নিয়ে আশাবাদি হয়ে উঠছেন তারা। স্থানীয় আওয়ামী লীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দদের অভিযোগ, বিএনপি জামাত জোট সরকারের আমলে যারা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম করেছেন প্রভাবশালী মহল তাদের মধ্যে অনেককে অবজ্ঞা এবং অবমূল্যায়ন করেছে। ত্যাগীদের বিপরীতে প্রভাবশালীদের ঘনিষ্টজন ও পছন্দের নেতাকর্মীদের বিভিন্ন পদে রেখে ঘোষণা করা হয় কমিটি। এমনকি ভিন্ন দল করা সুযোগ সন্ধানীরাও দলে প্রবেশ করে পদও পেয়ে যায় বলে অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, জেলার গাবখান ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আহসানকে ২০০১ সালের জাতীয সংসদ নির্বাচনে বিএনপি জয়ী হলে তৎকালীন জাতীয় পার্টির সদস্য নুর হোসেন আকনের নির্দেশে প্রকাশ্যে মারধর আপমান অপদস্থ করা হয়। এমনকি আ’লীগের আফিস ভাঙ্গচুর করে তারা । আ’লীগের উন্নায়ন কর্মকান্ডের ভিত্তিফলক ভাঙ্গচুর করা হয় সেসময়। ইউনিয়নের ত্যাগী পুরাতন অওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা এসব ঘটনার আজও নিবর স্বাক্ষী। এই বিষয়টি তৎকালনি সময়ে বর্তমান ঝালকাঠি নলছিটি ২ আসনের আলহাজ্ব আমীর হোসেন আমু (এমপি) অবগত হন। কিন্তু দু:খের বিষয় সেই নুর হোসেন আকন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের মতো একটি গুরুত্বপুর্ন পদে পেয়ে দায়িত্ব পালন করেন।

অভিযোগে আরও জানাগেছে, নুর হোসেন সেক্রেটারী পদ পাওয়ার পরই তিনি ঘোষনা দিয়েছিলেন ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি প্রায়ত নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব ইউসুফকে মারার জন্যই আমি পদ পেয়েছি। ক্ষমতা পাওয়ার পর পরই আর্থিক সচ্ছলতা ফিরতে শুরু হয় । তারপর ক্ষমতার অপ-ব্যাবহার। জাতীয় পার্টি থেকে উঠে আশা হাইব্রিট নেতার এক ভাই জামাত নেতা এক বিএনপির সক্রিয় নেতা ও বড় ভাই ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি এবং একি সাথে তিনটি ওয়ার্ডের সরকারের ১০টাকা মুল্যের দুস্থদের চালের ডিলার। ইউনিয়নের ত্যাগীদের কোনঠাসা করে চলে তার রাম রাজত্ব। উদাহরণ হিসেবে আকলিমা খাতুন দুস্থ মহিলা কল্যান সংস্থার নামে লখ টাকার বানিজ্যে ঘটনা রয়েছে। যার কার্যক্রম মাসিক ৫০ জমা নেয়া হতো এর বিনিময় গ্রাহকরা পেত ঈদ ও কোরবানী উপলক্ষে দলের দেয়া লুঙ্গি শাড়ি।

বর্তমানে তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হতে তোড়জোর শুরু করেছেন। ঐতিহ্যবাহী ৮নং গাবখান ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের সকল পুরাতন নেতাকর্মীদের প্রানের দাবী আসছে, ইউনিয়ন আ’লীগের সম্মেলনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার দিকে চেয়ে দক্ষিনাঞ্চলের রাজনৈতিক আভিবাবক ঝালকাঠি নলছিটি ২ আসনের সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু (এমপির) কছে কমিটির ত্যাগী নেতাকর্মীদের যাতে বিবেচনা করা হয় এজন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ জানিয়েছে। আ’লীগের বর্ষিয়ান নেতা, দেশের সফল সাবেক মন্ত্রী আমির হোসেন আমু এই বিতর্কিত অনুপ্রবেশকারী এই নুর হোসেন আকনকে কোন ভাবেই সমর্থন দেবেনা বলেই স্থানীয় ত্যাগী নেতাদের বিশ্বাস ও আশা প্রকাশ করেছেন।


Leave a Reply