জাবির হলে আবাসিক সুবিধার দাবিতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান - Nobobarta

আজ মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আটোয়ারীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়ীকে হত্যা মামলায় ২ আসামীকে আদালতে হাজির, জামিন না মঞ্জুর হামদর্দ এমডির বিরুদ্ধে যুদ্ধোপরাধের অভিযোগ তোলায় বিস্মিত স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা আটোয়ারীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে এক ব্যক্তি সহ দুটি গরুর মৃত্যু দ্রুত জকসু গঠনতন্ত্র প্রণয়ন ও রাতে ক্যাম্পাসে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার দাবি আবির্ভাব: এক নতুন পৃথিবীর স্বপ্ন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন পরিষদের উদ্যোগে মাদার তেরেসার মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গণ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ নেতাদের অভিষেক সম্পূর্ন বিচার নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠ ইউপি সম্মাননা পুরস্কার পেলেন দন্ডপাল ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী সাইফুদ্দীন আহ্মদ কে কেউ মনে রাখেনি!
জাবির হলে আবাসিক সুবিধার দাবিতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

জাবির হলে আবাসিক সুবিধার দাবিতে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

জোবায়ের কামাল, জাবি প্রতিনিধি : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নওয়াব ফয়জুন্নেসা হলের ৪৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা তাদের বরাদ্দকৃত আসন ও হলে আবাসিক সুবিধা নিশ্চিত করার দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল সাড়ে তিনটা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে তারা অবস্থান ধর্মঘট পালন করছেন।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলেন, নওয়াব ফয়জুন্নেসা হলের দুটি গণরুমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৭তম ব্যাচের ৫৪ জন শিক্ষার্থী থাকতেন। ওই দুটি গণরুমের পলেস্তারা খসে পরা ও ছাদ চুঁইয়ে পানি পরায় দুটি কক্ষ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি পরিত্যক্ত কক্ষ সংস্কারের কথা বলে ওই ৫৪ জন ছাত্রীকে হলত্যাগের নির্দেশ দেয় হল প্রশাসন। তাদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা হলে ২৯ জন, জাহানারা ইমাম হলে ২০ জন ও বেগম সুফিয়া কামাল হলে ৫ জন ছাত্রীকে অস্থায়ীভাবে বরাদ্দ দেওয়া হয়। চার মাস ধরে তারা অস্থায়ীভাবে এসব হলেই ছিলেন।

এরপর গত বৃহস্পতিবার ওই দুটি গণরুম সংস্কার করা হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে হল প্রশাসন। এবং ৫৪শিক্ষার্থীকে আবার হলে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, হল ছাড়ার আগে তাদের থাকার স্বাস্থ্যকর পরিবেশ, পড়াশোনার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করাসহ অন্যান্য আবাসিক সুবিধা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় হল প্রশাসন। কিন্তুওই দুটি গণরুমে রং করা ও টাইলস লাগানো ছাড়া আর কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এতে দুই বছর আগে তারা যেভাবে হলের মেঝেতে থাকতেন, এখনো সেভাবেই থাকতে হবে। পড়াশোনা বা থাকার পরিবেশ নিশ্চিত করা হয়নি। তাই আমরা আমাদের দাবি নিয়ে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছি।

পরে বিশ^বিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম এসে শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন। এ সময় তিনি জাহানারা ইমাম ও সুফিয়া কামাল হল থেকে আসা ২৫জন শিক্ষার্থীকে ওই দুই রুমে অবস্থান করার নির্দেশ দেন। এবং শেখ হাসিনা হলে অবস্থান নেওয়া ২৯শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বরাদ্দ দেওয়ার কথা জানালে শিক্ষার্থীরা তাদের অবস্থান কর্মসূচি শেষ করে।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন


Leave a Reply