গ্রন্থমেলা ২০২০-এ আসছে মোহনা সেতু’র উপন্যাস ‘আওয়াজ’ – Nobobarta

আজ বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
কাউখালীতে ৪০ যাত্রীসহ খেয়া ট্রলার ডুবি, পিএসসি পরীক্ষার্থী নিখোঁজ পাকিস্তান থেকে এলো ৮২ টন পেঁয়াজ রহমতপুর ইউনিয়নে ওয়ার্ড আ’লীগের সম্মেলন, সভাপতি সুলতান, সম্পাদক স্বপন তারেক রহমানের জন্মদিনে জাবি ছাত্রদলের দোয়া ও মিলাদ আগৈলঝাড়ায় পেঁয়াজ, চাউল ও লবণ নিয়ে গুজব, ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাসের অভিযান অব্যাহত কাউখালীতে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ পিইসি পরীক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার কবি সুফিয়া কামালের নামানুসারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবি ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দীনের জাবির হল খুলে দেওয়াসহ ৭দফা দাবি শিক্ষার্থীদের নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে শুরু হল বুড়ি তিস্তা খনন নলছিটিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ভবন নির্মাণের অভিযোগ
গ্রন্থমেলা ২০২০-এ আসছে মোহনা সেতু’র উপন্যাস ‘আওয়াজ’

গ্রন্থমেলা ২০২০-এ আসছে মোহনা সেতু’র উপন্যাস ‘আওয়াজ’

মোহনা সেতু'র উপন্যাস ‘আওয়াজ’

অমর একুশে গ্রন্থমেলাকে কেন্দ্র করে লেখক, পাঠক এবং প্রকাশকদের মাঝে এক ধরনের তোড়জোড় এখন থেকেই শুরু হয়ে গেছে। এই তোড়জোড় ভিতরেই কথাসাহিত্যিক মোহনা সেতু তার দ্বিতীয় উপন্যাস ‘আওয়াজ’ নিয়ে খুব শীঘ্রই পাঠকদের সামনে উপস্থিত হচ্ছে।

‘আওয়াজ’ উপন্যাসটির মূল চরিত্র ধ্রুব। সে নেকরোফিলিয়া নামক একটি ভয়ংকর মানসিক রোগে আক্রান্ত। যা একটি বিকৃত যৌনাচার। ছেলেটি প্রথমে মেয়েদের খুন করে পরে মৃত দেহের সঙ্গে সম্পর্কে লিপ্ত হয়। তার যাপিত জীবন স্বাভাবিক ছিল না। উপন্যাসের আরেকটি চরিত্র আছে ধ্রুবর মা। যাকে নিয়ে না বললেই নয়। পুরোপুরি ছিলেন সমাজের কাছে জিম্মি। মেয়ে চরিত্রে অনেকেই আছে। অনেকের মাঝেও ‘সন্ধ্যা’ মনে দাগ কাটে ধ্রুবর। তাকে ভালোবাসে ছিল ধ্রুব। তবে জীবদ্দশায় নয়।

সন্ধ্যা ধ্রুবর হাত বুকের বা পাশে চেপে ধরে বলেছিল, দেখো তুমি কাছে এলে হৃৎপিণ্ডের গতি কেমন বেড়ে যায়! ধ্রুব হাত এক ঝটকায় সরিয়ে বলেছিল, ‘এই শব্দতে যে তোমাকে আমার ভালোবাসতে ইচ্ছে করে না। এটা বন্ধ হলেই তোমাকে আমার বুকে চেপে ধরে রাখব, ভালোবাসবো!’ এমই এক সাইকোলজিকাল ডিজঅর্ডার নিয়ে উপন্যাসটি তৈরি হয়েছে। যা বইয়ের শুরু থেকে এমন এক ঘোর তৈরি করবে পাঠকদের মনে, সেই ঘোর থাকবে উপন্যাসের শেষ অব্দি। ‘আওয়াজ’ উপন্যাসটি প্রকাশিত হচ্ছে ঘাসফুল প্রকাশন থেকে। মোহনা সেতু প্রথম উপন্যাস ‘ঐশী’ প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালে অমর একুশে গ্রন্থমেলায়।


Leave a Reply