আমার ছোট্ট পূজা মা ধর্ষিত হয়নি, ধর্ষিত হলো আমার সমগ্র বাংলাদেশ – Nobobarta

আজ শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
আজ উদয় সমাজ কল্যান সংস্থা সিলেটের ১২তম ওয়াজ মাহফিল দলীয় কার্যালয় সম্প্রসারণের লক্ষে আগৈলঝাড়া রিপোর্টার্স ইউনিটির প্লট উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের কাছে হস্তান্তর যবিপ্রবিতে ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশের নতুন কমিটি গঠন আটোয়ারীতে পরিবার কল্যাণ সেবা ও প্রচার সপ্তাহ উপলক্ষে এ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত জবি রোভার দলের হেঁটে ১৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণের উদ্বোধন মারুফ-তানহার ‘দখল’ লক্ষ্মীপুরে রামগতি পৌরসভায় ৮ কোটি টাকার টেন্ডার জালিয়াতি চেষ্টার অভিযোগ নলছিটিতে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার সভাপতি সরফরাজ, সম্পাদক লিটন রাজাপুরে আ.লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন-২০১৯ অনুষ্ঠিত সহকারী পরিচালক সমিতির নির্বাচন আগামীকাল!!
আমার ছোট্ট পূজা মা ধর্ষিত হয়নি, ধর্ষিত হলো আমার সমগ্র বাংলাদেশ

আমার ছোট্ট পূজা মা ধর্ষিত হয়নি, ধর্ষিত হলো আমার সমগ্র বাংলাদেশ

ডিকে সৈকত # আজ আমরা ধর্ষিত জাতি। প্রথমেই ধিক্কার জানাই এই মানুষ নামের আজব প্রাণীকে, ধিক্কার জানাই আমাদের বিবেক আর মনুষ্যত্বকে। আমরা আজ বেঁচে থেকেও মৃত। আমার ছোট্ট মা ধর্ষিত হলো আর আমরা নির্বাক! আমাদের কিছুই করার নেই। তনু আর খাদিজার উপর অত্যাচারে আমরা আকাশ প্রকম্পিত করেছিলাম, ফেসবুকে উত্তাল প্রতিবাদের ঝড় বইয়ে ছিলাম, প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন, পক্ষে বা বিপক্ষে তুমুল লড়াই চলেছিল যার ফলশ্রুতিতে রাষ্ট্রযন্ত্র একপ্রকার বাধ্য হয়েই প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল বিচারে, তবে সে বিচার আলোর মুখ দেখবে কিনা তা অজানা। তনু বা খাদিজাকে নিয়ে নানা মতবাদ শুনেছি, কেউ বলেছে তনুর চলেফেরা, জীবন যাপন প্রনালী ভালো ছিল না, খাদিজা সম্পর্কের বেড়াজালে আবদ্ধ ছিল, এহেন সত্য মিথ্যার মুখরোচক গল্পের পরও আমরা প্রতিবাদে ফেঁটে পড়েছি, কাউকে ছাড়িনি যারা এই অত্যাচারের পক্ষ নিয়েছে।

আমার ছোট্ট ৫ বছরের পূজা মা আজ দিনের পর দিন এক নরপশুর হাতে ধর্ষিত হয়ে মৃত্যু যন্ত্রনায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে পড়ে আছে, যে মা প্রতিদিন তার মায়ের বুকে ভালোবাসা আর আদর পাওয়ার জন্য লুটোপুটি করে, সেই পূজা মায়ের আজ এই অবস্থা? অথচ আমরা আমাদের নৈতিকতা, বিবেকবোধ, প্রতিবাদের ভাষা সব কিছুই মেরে ফেলে চুপ করে বসে আছি, কিন্তু কেন??? পূজা মা সংখ্যালুঘু, বিধর্মী তাই বলে? নাকি অন্যকিছু? কোথায় গেল মানবাধিকারের তকমা গায়ে জড়িয়ে যারা বড়বড় বুলি ছাড়ে? আসলে ওরাও মানুষ নয়, যা করে সব লোক দেখানো। কোথায় গেল ফেসবুকের সেই সব প্রতিবাদ করা ভাই, বোনেরা? কয়েক জনের প্রতিবাদ চোখে পড়েছে, তবে তা গননার মধ্যে পড়ে না। পূজা মার বাবা, চাচার সাথে কথা হয়েছিল, যে কাহিনী শুনলাম তাতে শুধু মনে হলো, আমি ঐ জানোয়ারটাকে যদি কাছে পেতাম তবে পৃথিবীর সেরা হত্যাকান্ডটি আমি নিজ হাতে করতাম।

ইতিমধ্যে ধর্ষক সাইফুলকে রাষ্টযন্ত্র তার হেফাজতে রেখে জামাই আদর করে লালন পালন করছে। সামান্য অপরাধে ভ্রাম্যমান আদলতে তাৎক্ষনিক বিচার হয় অথচ এহেন ক্ষমার অযোগ্য অপরাধে বিচার নামের প্রহসন চলে। প্রথমে থানায় নাকি মামলাটা নিতে চাইনি পরে গ্রামবাসীর চাপে নিতে বাধ্য হয়। আসলে গরীবের জ্বালা সর্বত্র, ওদের দুঃখ ওরা ছাড়া আর কেউ বোঝে না। তবুও,,,,মা পূজা আমরা তোর পাশে আছি, তুই ফিরে আয় মায়ের বুকে। পৃথিবী নামক আদলতে জালিমের বিচার না হোক, সৃষ্টিকর্তার আদলতে ঠিকই হবে। মন খারাপ করিসনারে মা, আমরা মানুষেরা এমনই, মনুষ্যত্বহীন। ভালো থাকিস আমার ছোট্ট পূজা মা।


Leave a Reply