অবাধ ও শুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমরা বদ্ধ পরিকর’ জেলা প্রশাসক - Nobobarta

আজ বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

অবাধ ও শুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমরা বদ্ধ পরিকর’ জেলা প্রশাসক

অবাধ ও শুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমরা বদ্ধ পরিকর’ জেলা প্রশাসক

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  

রাজাপুর প্রতিনিধিঃ রাজাপুর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ের আয়োজনে পাবলিক লাইব্ররী মিলনায়তনে মিলনায়তনে শুক্রবার নির্বাচন প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের সাথে ব্রিফিং কালে জেলা প্রশাসক মো, হামিদুল হক বলেছেন — – ২৪ মার্চ রাজাপুরে উপজেলা নির্বাচন অনুস্ঠিত হবে। কোন ভয় নেই, আমরা অবাধ, শুষ্ঠু, ও শান্তিপূন ভাবে ভোট গ্রহনে বদ্ধ পরিকর। আপনাদের সকলকে সমান চোখে দেখতে হবে ,ভোট হবে অবাধ, শুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন।
জেলা প্রশাসক আর ও বলেন–, “কেউ যদি ব্যালট বা বাক্স ছিনতাই করে, আপনারা লাঠি দিয়ে ঠেকানোর জন্য চেষ্টা করবেন। যদি ঠেকাতে না পারেন গুলি করবেন।পরিস্থিতিতি স্বাভাবিক না হলে নির্বাচন বন্ধ করে দিবেন।
প্রিজাইডিং অফিসার ও কেন্দ্রের দ্বায়িত্বে নিয়োজিত পুলিশ অফিসার মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন।ভোটাররা ও ভোট কক্ষে মোবাইল নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না।
“যদি নির্বাচন চলার সময় কেউ জোর করে সিল মারার চেষ্টা করে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহযোগীতায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা গ্রহন করবেন।প্রয়োজনে গুলি চালানোর নির্দেশ দিবেন। তার পরও যদি না পারেন তাহলে ভোট বন্ধ করে দেবেন।পরে আমরা ভোট গ্রহন করব।।”
তিনি বলেন, “গ্রহণযোগ্য আইনানুগ নির্বাচন অনুষ্ঠানে কোনো রকম ব্যপতয় ঘটলে কঠোরতম ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কেউ অনিয়ম করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।“আমরা কোনো দলীয় সরকারের অধীনে নই। আমরা সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কাছে দায়বদ্ধ। বিবেকের কাছে দায়বদ্ধ। তাই নিজের বিবেকের তাড়নায় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য সকল কর্মকর্তাকে কাজ করতে হবে।”
ভোটার উপস্থিতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “রাজনৈতিক দলগুলো ভাল প্রতিনিধি মনোনয়ন দিলে এবং জনগণকে উৎসাহিত করলে ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়বে।
“ভোটকেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতির হার ১০ না ৩০ ভাগ হল, সেটা দেখার বিষয় না। কারণ ভোটকেন্দ্রে ভোটার টেনে আনার দায়িত্ব আমাদের না। সেটা রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীদের কাজ।”আপনারা নির্ভয়ে ভোট গ্রহন করবেন, আমরা সাথে আছি পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ২০১৯ উপলক্ষে প্রিজাইডিং অফিসারদের ব্রিফিং অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ঝালকাঠি মো, হামিদুল হক এ কথা বলেন।
বিশেষ অতিথি ছিলেন–ঝালকাঠি পুলিশ সুপার মোঃ জোবায়েদুর রহমান, জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ সোহেল সামাদ।, ব্রিফিং এ সভাপতিত্ব করেন– রাজাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সোহাগ হাওলাদার।
এসময় রাজাপুর সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মোজাম্মেল হোসাইন, ওসি মোঃ জাহিদ হোসেন সহ মিডিয়ার সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

লাইক দিন এবং শেয়ার করুন


Leave a Reply