রবিবার, ২৪ Jun ২০১৮, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন



অকারণে সিজার করলে বন্ধ হবে হাসপাতাল : স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী

অকারণে সিজার করলে বন্ধ হবে হাসপাতাল : স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী



দেশে সিজারিয়ান অপারেশনের সংখ্যা উদ্বেগজনক জানিয়ে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহেদ মালেক বলেছেন, রোগীর শারীরিক অবস্থা যাচাই না করে সিজারিয়ান অস্ত্রোপচার করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। চিকিৎসককে জরিমানাসহ হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হবে। রোববার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে করা ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ সিজারিয়ান অপারেশন নিরাপদ মাতৃত্বের জন্য উদ্বেগজনক। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে সিজারিয়ান অপারেশন হওয়া উচিত সর্বোচ্চ ১৫ শতাংশ। বর্তমানে সরকারি হাসপাতাল গুলোতেও এই হার ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ। প্রতিমন্ত্রী বলেন, রোগী সিজারিয়ানের উপযোগী না হওয়া সত্ত্বেও কোনো চিকিৎসক বা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যদি তার সিজারিয়ান অপারেশন করেন তাহলে তাদের জরিমানাসহ হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাধারণ মানুষের মধ্যে এই সিজারিয়ান অপারেশনের প্রবণতা কমানোর লক্ষ্যে সরকারি উদ্যোগে ইতোমধ্যে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোতে বিভিন্ন তথ্যসংবলিত একটি ফরম পাঠানো হয়েছে। ফরমে মায়ের স্বাস্থ্যসংবলিত বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত থাকবে। এর মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়া যাবে সংশ্লিষ্ট রোগী সিজারিয়ানের উপযোগী কিনা। কোথাও এর ব্যত্যয় হলে সংশ্লিষ্ট ক্লিনিক বা হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হবে। স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জানান, শিশুদের মায়ের দুধপানের সুযোগ দিতে প্রতিটি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ব্রেস্টফিডিং জোন করা হবে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

Please Share This Post in Your Social Media




ফুটবল স্কোর





© 2018 Nobobarta । Privacy PolicyAbout usContact DMCA.com Protection Status
Design & Developed BY Nobobarta.com
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com