,

জেনে ভালো করে হাত পরিস্কার করার কয়েকটি নিয়ম (ভিডিওসহ)

জেনে না জেনে প্রতিনিয়ত আমরা অনেক ভুল করে থাকি। অতিসহজ কাজও ভুল করে ফেলি। আর সে ভুল শুধরে নেয়ার জন্য কোনো লজ্জা থাকতে নেই। একবার ভাবুন, আপনি ভুল ভাবে হাত ধুচ্ছেন। আর সেই ভুলগুলো একবার জেনে নিন, এবং দেখুন কেন? আপনি নিশ্চই নিয়মিত ‘ভাল করে’ হাত ধুয়ে নেন খাওয়ার আগে বা পরে। খুব ভাল। আপনার স্বাস্থ্য সচেতনতা প্রশংসাযোগ্য। কিন্তু গলদটা তো গোড়াতেই-

মানে আপনি কীভাবে হাত ধুয়ে থাকেন? নিশ্চই কলের তলায় সামান্য একটু জলে ঝট করে ধুয়ে নেন। কিংবা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে আর একটু বেশী সময় দেন হাতকে পরিষ্কার হওয়ার জন্য। কিন্তু তাতে তো হবে না- সেন্টার ফর ডিসিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সি.ডি.সি.পি) বাতলে দিচ্ছেভুল ভাবে হাত ধুচ্ছেন আপনি। জেনে নিন কেন?সর্বাধুনিক বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে কি ভাবে হাত ধোয়া উচিত:

১)প্রথমে ঠান্ডা অথবা গরম, স্বচ্ছ ‘রানিং ওয়াটারে’ হাত ভেজাতে হবে। এবং অবশ্যই কলটা বন্ধ করে দিতে হবে। তারপর হাতে সাবান ব্যবহার করতে হবে।

২)সাবানের ফেনাসহ দু’টি হাত, হাতের পিছনের অংশ, দুই আঙুলের মাঝের অংশ এবং নখের নীচের দিকগুলো ভাল করে ঘষতে বা কচলাতে হবে অন্তত কুড়ি সেকেন্ড ধরে।

৩)তারপর আবার পরিষ্কার ‘রানিং ওয়াটারে’ হাতের সব অংশ ভালভাবে ধুয়ে নিতে হবে।

৪)সব শেষে একটা পরিচ্ছন্ন তোয়ালেতে হাতটা মুছে নিতে হবে বা হাওয়ায় শুকিয়ে নিলেই জীবানু থেকে আপনার মুক্তি।

সি.ডি.সি.পি-এর আরও দাবী যে সাধারণ স্যানিটাইজারের থেকে অ্যালকোহল বেসড স্যানিটাইজার অনেক বেশী কাজ করে হাতের জীবীনুকে তাড়াতে। তাহলে এবার থেকে এই ভাবেই হাত ধোবেন তো?

ফেসবুক থেকে মতামত দিন

নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আরও অন্যান্য সংবাদ


টুইটর




Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com